| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শেয়ার করুন
Share Button
   নির্বাচন
  ত্রিশালে সুষ্ঠু পরিবেশে কেন্দ্রে গিয়ে ভােটাধিকার প্রয়োগের নিশ্চয়তা চান ভোটাররা।
  13, February, 2021, 12:54:26:AM

 । ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ভাের থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভােটারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভােট চাইছেন । তবে নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে , সাধারণ ভােটারদের মধ্যে শঙ্কা – আতঙ্ক ও উৎকণ্ঠা তত বাড়ছে। ইতিমধ্যে বৃহস্পতিবার রাতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর প্রচার মাইক-গাড়ী ও কেন্দ্র ভাংচুর অপরদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রার্থীর কর্মীসমর্থকদের উপর হামলার ঘটনা ঘটার ফলে ভােটারদের মাঝে আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচনে ভােট সুষ্ঠু না হলে সাধারণ মানুষ ঝামেলায় পড়বে এমন আলোচনাও চলছে বিভিন্ন মহলে । এদিকে সুষ্ঠু ভােট গ্রহণের আশ্বাস দিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন , নির্বাচন সুষ্ঠু ও গ্রহণযােগ্য করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে র্যার বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা টহল দিচ্ছে, এখানে আশঙ্কার কোনাে কারণ নেই ।নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান মেয়রসহ ৪জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও মাঠে শক্তিশালী অবস্থানে আছেন বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব এবিএম আনিসুজ্জামান। তাকেই ফ্যাক্টর বলে গণ্য করছেন পৌরসদরসহ উপজেলার সর্বস্তরের জনতা। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী এবিএম আনিসুজ্জামান ও তার কর্মী সমর্থকরা অভিযােগ করেন , নির্বাচনের পরিবেশ ঘােলাটে করার জন্য আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা হামলা চালাচ্ছে। স্বতন্ত্র প্রার্থীর জগ প্রতীকের কেন্দ্র ভাংচুর,কর্মীদের উপর হামলাসহ তাদের নামে মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে ইতিমধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব এবিএম আনিসুজ্জামান সহ তার ২৯জন কর্মীর নামে মিথ্যা বানোয়াট মামলাও দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন- আমি আমার নেতাকর্মীদের কারাে উসকানিতে যেন পা না বাড়ায় সেই নির্দেশনা দিয়েছি । ভােটের দিন পর্যন্ত মাঠে থাকতে চাই আমরা । তিনি বলেন-গত পৌর নির্বাচনে ও আমার কর্মীদের উপর এরকম হামলা চালানো হয়েছিলো,ভোটের দিনেও গুলিবর্ষণ করা হয়েছিলো, আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীর নেতাকর্মীরা পরিবেশ নষ্ট করে এই পৌর এলাকায় হতাহতের ঘটনা ঘটানোর পরও আমরা শান্ত ছিলাম,বিজয়ের মালা নিয়েই ঘরে ফিরেছিলাম,এবারও যত চক্রান্ত, ষড়যন্ত্র, মামলা,হামলা হউক না আমরা নিরবে সহ্য করে বিজয় নিয়েই ঘরে ফিরতে চাই। তাই এবার সবাই সুষ্ঠু পরিবেশে যেন ভােট দিতে পারে সেজন্য নেতাকর্মীরাদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সূত্রে জানা গেছে , পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার সঙ্গে জগ প্রতীকের ভােটযুদ্ধ হতে যাচ্ছে এখানে । এবারেও ভােটের লড়াইকে কেন্দ্র করে উৎসব – আমেজেরও কমতি নেই । ভােটারদের আশঙ্কা , বিগত নির্বাচনের মত ভােটের পরিবেশ হলে এতে সংঘাত অনিবার্য । তাই সুষ্ঠু পরিবেশে কেন্দ্রে গিয়ে যেন ভােট দিতে পারে সেই নিশ্চয়তা চান । স্বতন্ত্র প্রার্থীর অভিযােগ , প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর নেতাকর্মীরা বাড়িতে বাড়িতে হুমকি – ধামকি দিয়ে চলছে । প্রচারণায় মাঝে যেন না থাকতে পারে, সেজন্য ভয়-ভিত্তি প্রদর্শন করে হয়রানি করা হচ্ছে । তবে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীর কর্মীরা বলেছেন , আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন মানুষের দ্বার প্রান্তে পৌঁছে দেয়ার জন্য কাজ করছেন । কোন কর্মীদের হুমকি – হামলা ও হুমকি দেয়ার বিষয়ে আওয়ামী লীগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন । ত্রিশাল পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ, বিএনপি,স্বতন্ত্রসহ ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন । তবে পৌর এলাকার জনগণ সহ উপজেলার সর্বস্তরের জনতারা তাকিয়ে আছে সুষ্ঠু নির্বাচনের দিকে, উপজেলার সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরাও তাকিয়ে আছেন নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশের দিকে। পৌর এলাকাসহ উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের মাঝে গুঞ্জন চলছে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বর্তমান মেয়র আনিসুজ্জামান বিপুল ভোটের ব্যবধানে আবারো তৃতীয়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হবেন বলে মনে করেন তারা। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব নবী নেওয়াজ সরকার দলের একজন পরীক্ষিত সাবেক ছাত্রনেতা। তিনি উপজেলার রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।একজন প্রবীণ রাজনীতিবিদ হিসাবে বিভিন্ন সময়ে দলীয় বিভিন্ন কর্মসুচী ও বিগত সংসদ,পৌর ও ইউপি নির্বাচন গুলোতে দলীয় প্রার্থীদের পক্ষে ভোট চাইতে গিয়ে মঞ্চ কাঁপানো বক্তব্য রেখেছেন তিনি।এবার নিজের জন্য ভোট যুদ্ধে নেমেছেন। তবে ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগে রাজনৈতিক গ্রুপিংয়ের কারণে সুষ্ঠু ভোটে তার ভরাডুবির আশঙ্কা রয়েছে বলেও মনে করছেন উপজেলার রাজনৈতিক গবেষকরা। অপরদিকে বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব এবিএম আনিসুজ্জামান আনিছ বিগত দুই মেয়াদে ত্রিশাল পৌরসভার উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা থাকায় তার রয়েছে আকাশ ছোঁয়া জনপ্রিয়তা। তার বিপক্ষে বিজয়ী হওয়াটা যে কারো পক্ষেই একটি কঠিন ব্যাপার। মেয়র আনিছের প্রার্থীতায় দলীয় প্রতীককে গুরুত্ব না দিয়ে চলমান উন্নয়নকে অব্যাহত রাখতে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনিছের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করছে ভোটাররা। তার আচার আচরণ ও ভদ্রতার কারণে মানুষ তাকে ছাড়তে নারাজ। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরাও তাকিয়ে আছে ত্রিশালের পৌর নির্বাচনের দিকে। এ ব্যাপারে কথা হলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২/৩জন ইউপি চেয়ারম্যান বলেন-বর্তমান মেয়রের পক্ষে ভোটের যে জোয়ার বইছে, তাতে যে কোন প্রার্থীকে তার বিপক্ষে বিজয়ী হওয়া কঠিন হবে।তারা জানান- ত্রিশাল পৌর নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশের উপর নির্ভর করছে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন।কারণ মাঠে ভোট না থাকার পরেও যদি ক্ষমতার দাপটে বিজয়ী হওয়া যায় তাহলে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যারা ক্ষমতাশীন দলীয় পরিচয়ে প্রার্থী হয়ে নির্বাচনী মাঠে আসবে বিজয়তো তারাই পাবে,আমরা নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে আর লাভ কি। তারা দাবী করেন-আমরা চাই সুষ্ঠু নির্বাচন, আর পৌর নির্বাচন সুষ্ঠু হলে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনও সুষ্ঠু হবে বলে আমরা আশাবাদী। ইউপি চেয়ারম্যান গণ ছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়নের সম্ভাব্য প্রার্থীরাও এমন দাবী জানান।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 49        
   আপনার মতামত দিন
     নির্বাচন
রাজশাহীর পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জয়জয়কার
.............................................................................................
হবিগঞ্জে বিএনপি প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত
.............................................................................................
পৌরসভা নির্বাচনে আবারো প্রচার প্রচারণায় নেমেছে ,জহিরুল ইসলাম মিল্টন
.............................................................................................
কাঁঠালের ৭,৮,৯ ওয়ার্ডের নিরীহ গরীব দুঃখী অসহায় মানুষের সেবা করতে চান নারী নেত্রী ফাতেমা।
.............................................................................................
ত্রিশালে নারী নেত্রী রানু এখন মহিলা কাউন্সিলর।
.............................................................................................
ত্রিশালে হ্যাট্রিক জয় স্বতন্ত্র প্রার্থী আনিছের।
.............................................................................................
ত্রিশালে নির্বাচনী সহিংসতার প্রস্তুতিকালে ২৫ ভাড়াটে সন্ত্রাসী আটক।। দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার।
.............................................................................................
ত্রিশালে সুষ্ঠু পরিবেশে কেন্দ্রে গিয়ে ভােটাধিকার প্রয়োগের নিশ্চয়তা চান ভোটাররা।
.............................................................................................
আমতলীতে নির্বাচনী সভা।
.............................................................................................
গোলাপগঞ্জে হ্যাটট্রিক জয় রুহিন খানের আর ডাবল হ্যাটট্রিক মনাক্কা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ হাজী মোবারক হোসেন।। সহ-সম্পাদক : কাউসার আহম্মেদ।
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু। র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল, ফোন ০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, mannan2015news@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop