| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শেয়ার করুন
Share Button
   জাতীয়
  ১৫ ই আগস্ট: কাল থেকে কালান্তরে জ্বলবে এ শোকের আগুন
  15, August, 2021, 1:50:24:AM

এই ইতিহাস ভুলে যাবো আজ, আমি কি তেমন সন্তান? যখন আমার জনকের নাম শেখ মুজিবুর রহমান। তারই ইতিহাস প্রেরণায় আমি বাংলায় পথ চলি, চোখে নীলাকাশ, বুকে বিশ্বাস পায়ে ঊর্বর পলি।

সৈয়দ শামসুল হকের আমার পরিচয় কবিতার শেষ ৪ লাইনেই বুঝা যায় বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এক অভিন্ন সত্তা। বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ। কেনই বা এক সত্তা হবে না? জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার রাজনৈতিক জীবনে ৪ হাজার ৬৮২ দিন কারাভোগ করেছেন। এর মধ্যে স্কুলের ছাত্র অবস্থায় ব্রিটিশ আমলে সাত দিন কারা ভোগ করেন। বাকি ৪ হাজার ৬৭৫ দিন তিনি কারাভোগ করেন পাকিস্তান সরকারের আমলে। মৃত্যুর মুখোমুখি থেকেও ফিরে এসেছেন কয়েকবার। অর্থাৎ জীবনের প্রায় ১৩ বছরই তিনি জেলে সময় কাটিয়েছেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে, মানুষের অধিকার নিশ্চিত করতে, পূর্ব পাকিস্তানের মানুষকে দাসত্ব থেকে মুক্তি দিতে। তিনি ছিলেন শোষিত মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল। তার এই নীতিতে অটল থাকার জন্য তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারীদের ন্যায্য অধিকার আদায়ের সংগ্রামে একাত্বতা ঘোষণা করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্র হয়েও বহিষ্কৃত হয়েছিলেন। তাই তো তিনি সবসময় বলতেন, তিনি তার পরিবারের চেয়েও তার দেশের জনগণকে অধিক ভালোবাসতেন।


পাকিস্তানি শাসন-শোষণের বিরুদ্ধে দীর্ঘ ২৪ বছরের আন্দোলন-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধু ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ঐতিহাসিক ভাষণে স্বাধীনতার যে ডাক দিয়েছিলেন তা অবিস্মরণীয়। সেদিন তার বজ্রকণ্ঠে উচ্চারিত ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম/এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’ এই অমর আহ্বানেই স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল নিপীড়িত কোটি বাঙালি। সেই মন্ত্রপূত ঘোষণায় বাঙালি হয়ে উঠেছিল লড়াকু এক বীরের জাতি।

আবার ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের কালরাতে ইতিহাসের নৃশংসতম গণহত্যার পর ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরেও বঙ্গবন্ধুর কণ্ঠেই জাতি শুনেছিল মহান স্বাধীনতার অমর ঘোষণা। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ওই রাতে বঙ্গবন্ধুকে ধানমন্ডির বাসভবন থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। এরপর মহান মুক্তিযুদ্ধের নয় মাস তাকে বন্দি থাকতে হয় পাকিস্তানের কারাগারে। তার আহ্বানেই চলে মুক্তিযুদ্ধ। বন্দিদশায় মৃত্যুর খবর মাথায় ঝুললেও স্বাধীনতার প্রশ্নে আপস করেননি অকুতোভয় এ মহান নেতা। মুক্তিযুদ্ধ শেষে বাঙালির প্রাণপ্রিয় নেতাকে ফিরিয়ে দিতে বাধ্য হয় পাকিস্তান। বীরের বেশে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি তার স্বপ্নের স্বাধীন বাংলাদেশে ফিরে আসেন বঙ্গবন্ধু।

দেশে ফিরে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গড়ার কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখার পাশাপাশি দেশের মানুষকে উন্নয়নের ধারায় সম্পৃক্ত করেন বঙ্গবন্ধু। দেশগড়ার এই সংগ্রামে চলার পথে তার দৃঢ় বিশ্বাস ছিল, তার দেশের মানুষ কখনও তার ত্যাগ ও অবদানকে ভুলে যাবে না। অকৃতজ্ঞ হবে না। নবগঠিত বাংলাদেশের রাষ্ট্রপ্রধান বঙ্গবন্ধু তাই সরকারি বাসভবনের পরিবর্তে ধানমন্ডির ৩২ নম্বর সড়কের সাধারণ বাড়িটিতেই বাস করতেন।

এরপর আসল ১৯৭৫ সাল। ১৫ আগস্ট জাতীয় শোকের দিন। ১৫ আগস্ট বাংলার আকাশ-বাতাস আর প্রকৃতির অশ্রুসিক্ত হওয়ার দিন। কেননা ১৯৭৫ সালের এই দিনে আগস্ট আর শ্রাবণ মিলেমিশে একাকার হয়েছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের রক্ত আর আকাশের মর্মছেঁড়া অশ্রুর প্লাবনে।
ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে নিজ বাসভবনে সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে বুলেটের বৃষ্টিতে ঘাতকরা ঝাঁঝরা করে দিয়েছিল, তখন যে বৃষ্টি ঝরছিল, তা যেন ছিল প্রকৃতিরই অশ্রুপাত। ভেজা বাতাস কেঁদেছে সমগ্র বাংলায়। ঘাতকদের উদ্যত অস্ত্রের সামনে ভীতসন্ত্রস্ত বাংলাদেশ বিহ্বল হয়ে পড়েছিল শোকে আর অভাবিত ঘটনার আকস্মিকতায়। কাল থেকে কালান্তরে জ্বলবে এ শোকের আগুন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে ঘাতকের হাতে নৃশংসভাবে নিহত হন বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী শেখ ফজিলাতুন নেছা, পুত্র শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেল, শেখ কামালের স্ত্রী সুলতানা কামাল, জামালের স্ত্রী রোজী জামাল, বঙ্গবন্ধুর ভাই শেখ নাসের, এসবি অফিসার সিদ্দিকুর রহমান, কর্নেল জামিল, সেনা সদস্য সৈয়দ মাহবুবুল হক। প্রায় একই সময়ে ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে যুবলীগ নেতা শেখ ফজলুল হক মণির বাসায় হামলা চালিয়ে শেখ ফজলুল হক মণি, তার অন্তঃসত্তা স্ত্রী আরজু মণি, বঙ্গবন্ধুর ভগ্নিপতি আবদুর রব সেরনিয়াতের বাসায় হামলা করে হত্যা করে আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ও তার কন্যা বেবী সেরনিয়াত, পুত্র আরিফ সেরনিয়াবাত, নাতি সুকান্ত বাবু, আবদুর রব সেরনিয়াবাতের বড় ভাইয়ের ছেলে সজীব সেরনিয়াবাত এবং এক আত্মীয় বেন্টু খানকে হত্যা করে।
বাঙালি জাতি আজীবন গভীর শোক ও শ্রদ্ধায় স্মরণ করবে সকল শহীদকে। জাতির পিতাকে দৈহিকভাবে হত্যা করা হলেও তার মৃত্যু নেই। তিনি চিরঞ্জীব। মৃত্যু নেই জাতির পিতার আদর্শের। কেননা একটি জাতিরাষ্ট্রের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্থপতি তিনিই। যতদিন এ রাষ্ট্র থাকবে, ততদিন অমর তিনি। সমগ্র জাতিকে তিনি বাঙালি জাতীয়তাবাদের প্রেরণায় প্রস্তুত করেছিলেন ঔপনিবেশিক শাসক-শোষক পাকবাহিনীর বিরুদ্ধে সশস্ত্র সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়তে। তাই চিরঞ্জীব তিনি এ জাতির চেতনায়। বঙ্গবন্ধু কেবল একজন ব্যক্তি নন, এক মহান আদর্শের নাম। যে আদর্শে উজ্জীবিত হয়েছিল গোটা দেশ। বাঙালি জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র আর ধর্মনিরপেক্ষ দর্শনে দেশের সংবিধানও প্রণয়ন করেছিলেন স্বাধীনতার স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব। শোষক আর শোষিতে বিভক্ত সেদিনের বিশ্ববাস্তবতায় বঙ্গবন্ধু ছিলেন শোষিতের পক্ষে।

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধে জয়ী হলেও মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত অপশক্তির ষড়যন্ত্র থেমে থাকেনি। পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতে তারা একের পর এক চক্রান্তের ফাঁদ পেতেছে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সেনাবাহিনীর বিপথগামী উচ্চাভিলাষী কয়েকজন সদস্যকে ষড়যন্ত্রকারীরা ব্যবহার করেছে ওই চক্রান্তেরই বাস্তব রূপ দিতে। এরাই স্বাধীনতার সূতিকাগার বলে পরিচিত ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের বাড়িটিতে হামলা চালায় গভীর রাতে। হত্যা করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারকে। বিশ্ব ও মানবসভ্যতার ইতিহাসে ঘৃণ্য ও নৃশংসতম এই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে সেদিন তারা কেবল বঙ্গবন্ধুকেই নয়, তার সঙ্গে বাঙালির হাজার বছরের প্রত্যাশার অর্জন স্বাধীনতার আদর্শগুলোকেও হত্যা করতে চেয়েছিল। মুছে ফেলতে অপপ্রয়াস চালিয়েছিল বাঙালির বীরত্বগাথার ইতিহাসও। বঙ্গবন্ধুর নৃশংসতম হত্যাকান্ড বাঙালি জাতির জন্য করুণ বিয়োগগাথা হলেও ভয়ঙ্কর ওই হত্যাকাণ্ডে খুনিদের শাস্তি নিশ্চিত না করে বরং দীর্ঘ সময় ধরে তাদের আড়াল করার অপচেষ্টা হয়েছে। এমনকি খুনিরা পুরস্কৃতও হয়েছে নানাভাবে। হত্যার বিচার ঠেকাতে কুখ্যাত ‘ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ’ জারি করেছিল বঙ্গবন্ধুর খুনি খন্দকার মোশতাক সরকার। ১৯৭৬ সালের ৮ জুন ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকার দায়ে অভিযুক্ত হত্যাকারী গোষ্ঠীর ১২ জনকে বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দেওয়া হয়েছিল।

তবে দীর্ঘ ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালে বঙ্গবন্ধু-কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রীয় মতায় আসীন হলে ‘ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ’ বাতিল করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের পথ উন্মুক্ত করা এবং নানা বাধাবিপত্তি পেরিয়ে বিচার কাজ ‍শুরু হয়। জোট শাসনের পাঁচ বছর এই রায় কার্যকরের পথে বাধা সৃষ্টি করে রাখা হলেও বর্তমান মহাজোট সরকার গঠনের পর ২০০৯ সালে বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয় এবং মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তদের পাঁচজনের রায় কার্যকর হয় ২০১০ সালের ২৭ জানুয়ারি।

কলঙ্ক মোচনের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে যায় ২০২০ সালের ১১ এপ্রিল খুনি আবদুল মাজেদের ফাঁসি কার্যকরের মধ্য দিয়ে। দণ্ড প্রাপ্ত এখনও ৫ খুনি বিভিন্ন দেশে পলাতক রয়েছেন। দ্রুততম সময়ে এই খুনিদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসার কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। আশা করছি খুবই দ্রুত এই খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার লক্ষ্যে এবং বিজ্ঞানভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার একটা সচেতন প্রয়াসে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’-এর দার্শনিকতাকে বাস্তবায়ন করে চলেছেন।

বঙ্গবন্ধুবিহীন বাংলাদেশে স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা। তারা ভেবেছিল মুজিবকে হত্যা করলে বুঝি, বাংলাদেশ থেকে মুছে যাবে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস, তার আদর্শ হয়ে যাবে সব শেষ! কিন্তু তারা হয়তো বুঝেনি, ‘মুজিব মানেই তো বাংলাদেশ’।
সাম্প্রতিক সময়
মালয়েশিয়ায় শ্রমিকের মৃত্যুতে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশিরা
৮ মিনিট আগে
আন্তর্জাতিক

মালয়েশিয়ায় শ্রমিকের মৃত্যুতে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশিরা

ছড়িয়ে পড়েছে শ্রাবন্তী পুত্রের ঘনিষ্ঠ ছবি
৩১ মিনিট আগে
বিনোদন ও লাইফস্টাইল

ছড়িয়ে পড়েছে শ্রাবন্তী পুত্রের ঘনিষ্ঠ ছবি

মাজার-ই-শরীফ দখলে নিল তালেবান
৪৯ মিনিট আগে
আন্তর্জাতিক

মাজার-ই-শরীফ দখলে নিল তালেবান

আজ জাতীয় শোক দিবস
৫৩ মিনিট আগে
বাংলাদেশ

আজ জাতীয় শোক দিবস

জাতিসংঘের ভাষণে বিশ্বকে যে বার্তা দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু
১ ঘণ্টা আগে
আন্তর্জাতিক

জাতিসংঘের ভাষণে বিশ্বকে যে বার্তা দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু

 
চট্টগ্রাম মেডিকেলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ
১ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

চট্টগ্রাম মেডিকেলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ

ঢাকায় পৌঁছেছে সিনোফার্মের আরও ১০ লাখ ডোজ
১ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

ঢাকায় পৌঁছেছে সিনোফার্মের আরও ১০ লাখ ডোজ

অনলাইনে সেমিস্টার ফাইনাল নেওয়ার পরিকল্পনা জবি’র
১ ঘণ্টা আগে
শিক্ষা

অনলাইনে সেমিস্টার ফাইনাল নেওয়ার পরিকল্পনা জবি’র

মেসিকে মনে রাখতে চান না বার্সা কোচ
১ ঘণ্টা আগে
খেলা

মেসিকে মনে রাখতে চান না বার্সা কোচ

পার নাইট রেট কত, শুনতে হচ্ছে ফারিয়াকে
২ ঘণ্টা আগে
বিনোদন ও লাইফস্টাইল

পার নাইট রেট কত, শুনতে হচ্ছে ফারিয়াকে

 
২৬ বছরের যুবককে ‘ধর্ষণ’
২ ঘণ্টা আগে
আন্তর্জাতিক

২৬ বছরের যুবককে ‘ধর্ষণ’

ভারত থেকে এলো এক হাজার ৩৪০ মেট্রিক টন গম
২ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

ভারত থেকে এলো এক হাজার ৩৪০ মেট্রিক টন গম

দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে নিলয়কে আক্রমণ, পাশে দাঁড়ালেন তাহসান
২ ঘণ্টা আগে
বিনোদন ও লাইফস্টাইল

দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে নিলয়কে আক্রমণ, পাশে দাঁড়ালেন তাহসান

পানির নিচে পন্টুন, লঞ্চঘাটে যাত্রী ভোগান্তি চরমে
২ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

পানির নিচে পন্টুন, লঞ্চঘাটে যাত্রী ভোগান্তি চরমে

ত্রিশালে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত ৫
২ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

ত্রিশালে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত ৫

ধর্ষণ তো আর করিনি: নিলয়
২ ঘণ্টা আগে
বিনোদন ও লাইফস্টাইল

ধর্ষণ তো আর করিনি: নিলয়

‘বঙ্গভ্যাক্স’ অক্টোবরে মানবদেহে প্রয়োগ করতে চায় গ্লোব
২ ঘণ্টা আগে
স্বাস্থ্য

‘বঙ্গভ্যাক্স’ অক্টোবরে মানবদেহে প্রয়োগ করতে চায় গ্লোব

ন্যাম সম্মেলন এবং বিশ্বে শোষিতদের নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
২ ঘণ্টা আগে
আন্তর্জাতিক

ন্যাম সম্মেলন এবং বিশ্বে শোষিতদের নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ আজ অভিন্ন সত্তায় পরিণত হয়েছে: রাষ্ট্রপতি
২ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ আজ অভিন্ন সত্তায় পরিণত হয়েছে: রাষ্ট্রপতি

নোয়াখালীতে বিএনপি নেতা হত্যা পরিকল্পিত: শাহজাহান
২ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

নোয়াখালীতে বিএনপি নেতা হত্যা পরিকল্পিত: শাহজাহান

আবারও বিয়ে করলেন সালমান শাহ’র স্ত্রী সামিরা
২ ঘণ্টা আগে
বিনোদন ও লাইফস্টাইল

আবারও বিয়ে করলেন সালমান শাহ’র স্ত্রী সামিরা

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ষড়যন্ত্রের পেছনে কারা ছিল সেটিও বের হবে: প্রধানমন্ত্রী
৩ ঘণ্টা আগে
বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ষড়যন্ত্রের পেছনে কারা ছিল সেটিও বের হবে: প্রধানমন্ত্রী

 
আরও সময় সংবাদ

১ ঘণ্টা আগে

ঢাকায় পৌঁছেছে সিনোফার্মের আরও ১০ লাখ ডোজ

ঢাক  <br><br>    </td> </tr>
<tr> <td height='5'> </td> </tr>
</table>





<table align='center' width='690' cellpadding='0' cellspacing='0' bgcolor=''>
<tr> <td height='10'> </td> </tr>
<tr> 
<form action='newsprint.php' method='POST' target='a_blank'>
<td height='' align='left'> <span id='newsbbb'> সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট </span>:

 <span id='newscaption1'>  91  </span> 


<input type='hidden' name='id' value='31986'>
          <input type='submit' value='Print'>
</td> 


</form>
</tr>
<tr> <td height='5'> </td> </tr>
</table>










<table align='center' width='700' cellpadding='0' cellspacing='0'>


<div class=
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
মুজিববর্ষে ইউএন সদর দপ্তরে গাছের চারা রোপন করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরও বাড়ল
.............................................................................................
যশোরে কিশোরীকে গণধর্ষণের ঘটনায় মামলা, আটক ১
.............................................................................................
শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা: আসামি আব্দুস সাত্তারের সাজা বহাল
.............................................................................................
আজ ১৬০ ইউপিতে ভোট
.............................................................................................
দুর্নীতিবাজরা যেন শাস্তি পায়, দুদককে রাষ্ট্রপতি
.............................................................................................
পুলিশের ২০ কর্মকর্তার পদায়ন
.............................................................................................
ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতি উদ্ধারের পথ খুঁজুন: কমনওয়েলথকে অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
গভীর রাতে বাবা-মায়ের কবরের পাশে কাঁদলেন শামীম ওসমান
.............................................................................................
হাতুড়ি-শাবল দিয়ে আশ্রয়ণের ঘর ভেঙেছে কিছু লোক : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের বংশানুক্রমে চাকরিতে রাখার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
.............................................................................................
কবে খুলবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়?
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর এপিএস হলেন ইসমাত মাহমুদা
.............................................................................................
স্বাস্থ্যসম্মত খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে হকার নীতিমালা জরুরি
.............................................................................................
শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলাকারী গ্রেপ্তার
.............................................................................................
হত্যার পর স্ত্রীর লাশ পোড়ালেন স্বামী, অতঃপর..
.............................................................................................
ঘাতকচক্রের লক্ষ্য ছিল স্বৈরশাসন ও জঙ্গিবাদ প্রতিষ্ঠা করা: রাষ্ট্রপতি
.............................................................................................
গ্রেনেড মামলার রায়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের চির অবসান হবে:
.............................................................................................
২১ আগস্ট: নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ভয়াল দিন
.............................................................................................
পাবজি-ফ্রি ফায়ার বন্ধে হাইকোর্টের আদেশে যা রয়েছে
.............................................................................................
১৫ ই আগস্ট: কাল থেকে কালান্তরে জ্বলবে এ শোকের আগুন
.............................................................................................
আজ জাতীয় শোক দিবস
.............................................................................................
বাসায় টিকা দেওয়ার ছবি পোস্ট করে ধরা যুবক
.............................................................................................
শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ
.............................................................................................
যে কারণে সাকিবের ১ ওভারে ৫ ছক্কা
.............................................................................................
বঙ্গমাতার জীবন ও কর্ম থেকে নারীদের শিক্ষা নেওয়া দরকার
.............................................................................................
বিশ শতকের সেরা বাঙালি নারী বঙ্গমাতা: ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
বিএনপি নেতারা চুপিচুপি টিকা নিচ্ছেন: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জ অগ্নিকাণ্ড: ডিএনএ পরীক্ষায় ৪৫ জনের পরিচয় শনাক্ত
.............................................................................................
দশ বছরের ভাইটাকেও সবশেষে হত্যা করে ঘাতকরা: শেখ হাসিনা
.............................................................................................
ডেঙ্গু: মন্ত্রী দিলেন ভয়, মেয়রের অভয়
.............................................................................................
শামসুল আলম আনুর মৃত্যুতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
শিল্প-কারখানা শ্রমিকদের সুবিধার্থে লঞ্চ চালু
.............................................................................................
বয়স ২৫ হলেই নেওয়া যাবে করোনার টিকা
.............................................................................................
কোরবানির গরু উপহার দিলেন আইনমন্ত্রী
.............................................................................................
দেশব্যাপী এক কোটি মাস্ক দেবে এফবিসিসিআই
.............................................................................................
২৩ জুলাই থেকে আবারো কঠোর বিধিনিষেধ
.............................................................................................
সাবেক এমপি তুহিন এর সৌজন্যে ‘করোনা প্রতিরোধক বুথ’
.............................................................................................
নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে ১ টন আম উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
জলাবদ্ধতা নিরসনে সব দপ্তরের সমন্বয় প্রয়োজন’
.............................................................................................
যে কোনো দুর্যোগ মোকাবিলায় তৎপর পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়
.............................................................................................
ভাসানী থেকে হাসিনা যুগ
.............................................................................................
নাসির দোষী সাব্যস্ত হলে ব্যবস্থা: জিএম কাদের
.............................................................................................
৬ দিন বিরতির পর সংসদ অধিবেশন শুরু
.............................................................................................
কারা অর্থ পাচার করে, জানেন না অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
বাজেটে যেসব পণ্যের দাম বাড়বে
.............................................................................................
বাজেটে যেসব পণ্যের দাম কমবে
.............................................................................................
প্রস্তাবিত বাজেট মন্ত্রিসভায় অনুমোদন
.............................................................................................
সংসদে বাজেট পেশ করছেন অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
ধূমপায়ীদের জন্য দুঃসংবাদ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু। র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল, ফোন ০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, রেজিস্ট্রেশন নং 134 / নিবন্ধন নং 69 মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop