| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
হেফাজত নেতাদের ওয়াজের ভিডিও খুঁজছে পুলিশ

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া হেফাজতে ইসলামের সহিংসতা ও ওয়াজের ভিডিও মামলার ‘আলামত’ হিসেবে সংগ্রহ করছে পুলিশ। সাম্প্রতিক সময়ে দেশজুড়ে কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক সংগঠনটির সহিংসতা ও নাশকতার ঘটনায় শতাধিক মামলার তদন্তে নেমে পুলিশ এসব আলামতকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে।তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা ও তাণ্ডবে কারা জড়িত এবং ঘটনার পেছনের ‘মদদদাতাদের’ চিহ্নিত করতে ঘটনাস্থলের ভিডিও এবং ওয়াজ মাহফিলে দেওয়া বক্তৃতা বিশ্লেষণ করছেন তারা।

তবে এরই মধ্যে সামাজিক মাধ্যমগুলো থেকে কিছু ভিডিও সরিয়ে ফেলা হয়েছে। সে কারণে ‘ভিন্ন পথে’ এগোনোর কথা বলেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পোশাল ক্রাইম ডিভিশনের উপকমিশনার মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম।

গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, কিছু কিছু কনটেন্ট ইউটিউব থেকে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে, কিন্তু কোনো লাভ নেই। ডাউনলোড করে আর্কাইভ করে রাখা হচ্ছে। ফরেনসিক পরীক্ষা করে রাখার পর সেটা শক্ত আলামত হয়ে যাচ্ছে। কেউ ইউটিউব বা অন্য কোনো মাধ্যমে ছড়ালে কেউ না কেউ ডাউনলোড করে থাকে। ফলে অপরাধীর ছাড় পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, মানিকগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, চট্টগ্রামের হাটহাজারী ও কক্সবাজারে হেফাজতের নাশকতার ১৬টি মামলার তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

এ তদন্ত সংস্থার প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার গণমাধ্যমকে বলেন, ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহে মাঠে নেমেছেন তাদের তদন্তকারীরা। তদন্তের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে। ভিডিও, অডিও ক্লিপ সংগ্রহ করা হচ্ছে।

মামলার অজ্ঞাতনামা আসামিদের চিহ্নিত করতে ‘বিশেষ পদ্ধতিতে’ অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে জানিয়ে ঊর্ধ্বতন এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, মামলার আলামত হতে পারত এ রকম কিছু ভিডিও ক্লিপ এরই মধ্যে বিভিন্ন সাইট থেকে সরিয়ে ফেলেছে। সেগুলো বিভিন্নভাবে জোগাড় করার পাশপাশি বর্তমানে যেগুলো সাইটে আছে, সেগুলো আর্কাইভ করে রাখা হচ্ছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে মার্চে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সহিংসতা ও তাণ্ডব চালায় হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা। চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণহানিও ঘটে।

এসব ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে হেফাজতে ইসলামের বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতাকেও গত কয়েক দিনে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক এ দলটির নেতার বছরজুড়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে যেসব ওয়াজ মাহফিল করেন, তাতে অনেকেই উসকানিমূলক বক্তব্য দেন বলে অভিযোগ এসেছে বিভিন্ন সময়ে। তাদের সমর্থকরা ইন্টারনেটেও সেসব ওয়াজ ও বক্তৃতা শেয়ার করেন।

পুলিশের ডিআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড প্ল্যানিং) মো. হায়দার আলী গণমাধ্যমকে বলেন, সম্প্রতি হেফাজতের সহিংসতার ঘটনায় সারাদেশে ১৩০টির মতো মামলা হয়েছে। নাম উল্লেখ করা আসামির সংখ্যা প্রায় তিন হাজার। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়েছে প্রায় ৮০০ জন।

এসব মামলার মধ্যে ২৩টির তদন্ত করবে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। এ সংস্থার প্রধান অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মাহবুবুর রহমান গত মঙ্গলবার এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনও করেন।

এদিকে র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, হেফাজতে ইসলামের কয়েকজন নেতাকে গ্রেপ্তারের পর দেখা গেছে, সংগঠনটির কর্মীরা ‘নাশকতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে’ পুরনো ভিডিও ‘লাইভ’ আকারে প্রচার করছে। সে জন্য তারা এক ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করছে। এসব যারা করছে, তাদের শনাক্ত করা হচ্ছে। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযানে নামবে র‌্যাব।

এ পর্যন্ত হেফাজতে ইসলামের ১২ জন নেতাকে র‌্যাব গ্রেপ্তার করেছে জানিয়ে মঈন বলেন, তারা অধিকাংশই দেশের বিভিন্ন জেলায় নাশকতার সঙ্গে জড়িত। আবার কেউ কেউ ছিলেন নাশকতা সৃষ্টির জন্য উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন।

হেফাজত নেতাদের ওয়াজের ভিডিও খুঁজছে পুলিশ
                                  

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া হেফাজতে ইসলামের সহিংসতা ও ওয়াজের ভিডিও মামলার ‘আলামত’ হিসেবে সংগ্রহ করছে পুলিশ। সাম্প্রতিক সময়ে দেশজুড়ে কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক সংগঠনটির সহিংসতা ও নাশকতার ঘটনায় শতাধিক মামলার তদন্তে নেমে পুলিশ এসব আলামতকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে।তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা ও তাণ্ডবে কারা জড়িত এবং ঘটনার পেছনের ‘মদদদাতাদের’ চিহ্নিত করতে ঘটনাস্থলের ভিডিও এবং ওয়াজ মাহফিলে দেওয়া বক্তৃতা বিশ্লেষণ করছেন তারা।

তবে এরই মধ্যে সামাজিক মাধ্যমগুলো থেকে কিছু ভিডিও সরিয়ে ফেলা হয়েছে। সে কারণে ‘ভিন্ন পথে’ এগোনোর কথা বলেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পোশাল ক্রাইম ডিভিশনের উপকমিশনার মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম।

গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, কিছু কিছু কনটেন্ট ইউটিউব থেকে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে, কিন্তু কোনো লাভ নেই। ডাউনলোড করে আর্কাইভ করে রাখা হচ্ছে। ফরেনসিক পরীক্ষা করে রাখার পর সেটা শক্ত আলামত হয়ে যাচ্ছে। কেউ ইউটিউব বা অন্য কোনো মাধ্যমে ছড়ালে কেউ না কেউ ডাউনলোড করে থাকে। ফলে অপরাধীর ছাড় পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, মানিকগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, চট্টগ্রামের হাটহাজারী ও কক্সবাজারে হেফাজতের নাশকতার ১৬টি মামলার তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

এ তদন্ত সংস্থার প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার গণমাধ্যমকে বলেন, ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহে মাঠে নেমেছেন তাদের তদন্তকারীরা। তদন্তের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে। ভিডিও, অডিও ক্লিপ সংগ্রহ করা হচ্ছে।

মামলার অজ্ঞাতনামা আসামিদের চিহ্নিত করতে ‘বিশেষ পদ্ধতিতে’ অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে জানিয়ে ঊর্ধ্বতন এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, মামলার আলামত হতে পারত এ রকম কিছু ভিডিও ক্লিপ এরই মধ্যে বিভিন্ন সাইট থেকে সরিয়ে ফেলেছে। সেগুলো বিভিন্নভাবে জোগাড় করার পাশপাশি বর্তমানে যেগুলো সাইটে আছে, সেগুলো আর্কাইভ করে রাখা হচ্ছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে মার্চে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সহিংসতা ও তাণ্ডব চালায় হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা। চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণহানিও ঘটে।

এসব ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে হেফাজতে ইসলামের বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতাকেও গত কয়েক দিনে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক এ দলটির নেতার বছরজুড়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে যেসব ওয়াজ মাহফিল করেন, তাতে অনেকেই উসকানিমূলক বক্তব্য দেন বলে অভিযোগ এসেছে বিভিন্ন সময়ে। তাদের সমর্থকরা ইন্টারনেটেও সেসব ওয়াজ ও বক্তৃতা শেয়ার করেন।

পুলিশের ডিআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড প্ল্যানিং) মো. হায়দার আলী গণমাধ্যমকে বলেন, সম্প্রতি হেফাজতের সহিংসতার ঘটনায় সারাদেশে ১৩০টির মতো মামলা হয়েছে। নাম উল্লেখ করা আসামির সংখ্যা প্রায় তিন হাজার। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়েছে প্রায় ৮০০ জন।

এসব মামলার মধ্যে ২৩টির তদন্ত করবে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। এ সংস্থার প্রধান অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মাহবুবুর রহমান গত মঙ্গলবার এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনও করেন।

এদিকে র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, হেফাজতে ইসলামের কয়েকজন নেতাকে গ্রেপ্তারের পর দেখা গেছে, সংগঠনটির কর্মীরা ‘নাশকতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে’ পুরনো ভিডিও ‘লাইভ’ আকারে প্রচার করছে। সে জন্য তারা এক ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করছে। এসব যারা করছে, তাদের শনাক্ত করা হচ্ছে। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযানে নামবে র‌্যাব।

এ পর্যন্ত হেফাজতে ইসলামের ১২ জন নেতাকে র‌্যাব গ্রেপ্তার করেছে জানিয়ে মঈন বলেন, তারা অধিকাংশই দেশের বিভিন্ন জেলায় নাশকতার সঙ্গে জড়িত। আবার কেউ কেউ ছিলেন নাশকতা সৃষ্টির জন্য উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন।

চট্টগ্রামে নুরুর বিরুদ্ধে আরেক মামলা
                                  

নতুন বাজার ৭১  ডেস্ক 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের লাইভে এসে ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত করে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূরের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে মামলা হয়েছে।মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নগরীর কোতোয়ালী থানায় মামলাটি দায়ের করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আজিজ মিসির। 

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নূরের বিরুদ্ধে একটি এজাহার দেওয়া হয়েছে। আমরা তা গ্রহণ করেছি। অভিযোগ তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’

মামলার এজাহারে বাদি আজিজ মিসির নিজেকে চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির অর্থ উপ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন।

বাদি আজিজ মিসির অভিযোগ করেছেন, নূর ব্যক্তিগত আইডি থেকে ফেইসবুক লাইভে এসে বাংলাদেশের অসংখ্য ধর্মপ্রাণ নেতাকর্মীদের ধর্মীয় মূল্যবোধ বা অনুভূতিতে উসকানি প্রদান, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোসহ মুসলমান নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মানহানিকর মন্তব্য প্রকাশ, আক্রমণাত্মক ও মিথ্যা তথ্য প্রদান করেন। বাদি কোতোয়ালী থানার কোর্ট হিলে আইনজীবী এনেক্স ভবনের-১ নিচতলায় অ্যাডভোকেট তসলিম উদ্দিনের চেম্বারে বসে নূরের এ বক্তব্য শোনেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত ১৪ এপ্রিল বিকেলে ফেইসবুক লাইভে এসে নূর বলেন, ‘কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না। যারা এই আওয়ামী লীগ করে তারা চাঁদাবাজ, ধান্ধাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, চিটার-বাটপার এই ধরনের মুসলমান।’

এ বক্তব্যের পর নূরের বিরুদ্ধে ঢাকা ও সিলেটে ইতোমধ্যে মামলা হয়েছে।

মামলা হওয়ার পর নুরুল হক নূর তার আরেকটি ফেইসবুক পেইজ থেকে লাইভে এসে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চান এবং সেদিনের লাইভ ভিডিও ফেসবুক থেকে অপসারণের কথা জানান।

দুধ দিয়ে সাপ পুষলে তার ফল শুভ হয় না: ১৪ দল
                                  

নতুন বাজার ৭১  ডেস্ক 

কেন্দ্রীয় ১৪ দল আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তরা বলেছেন, বিএনপি, জামায়াত ও হেফাজত একই সূত্রে গাঁথা। এই সাম্প্রদায়িক অপশক্তি দমনে কোনো আপস নয়। দুধ দিয়ে সাপ পুষলে তার ফল কখনও শুভ হয় না।ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) সকালে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় বক্তরা এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর সরকার গঠনের মধ্য দিয়ে বাংলার স্বাধীনতার সূর্য উদিত হয়েছিল, আর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মুজিবনগর সরকারের অধীনেই বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ পরিচালিত হয়েছিল।

তিনি বলেন, অসহযোগ আন্দোলনের সময় বঙ্গবন্ধু আওয়ামী লীগের যে হাই কমান্ডকে জাতির সামনে উপস্থাপন করেছেন তাদের নিয়ে গঠন করা হয় মুজিবনগর সরকার। আর এই সরকারের অধীনেই কাজ করেছেন সকল সেক্টর ও সাবসেক্টর কমান্ডারসহ বিভিন্ন ফোর্স। আজ যে যত কথাই বলুক না কেন এরা সবাই ছিলেন মুজিবনগর সরকারের বেতনভুক্ত।

আমির হোসেন আমু বলেন, আজকে পত্রপত্রিকার আলোচনায় অনেকেই বলেছেন মুক্তিযুদ্ধে অনেকের আবদান ছিল, সহযোগিতা ছিল, এদেশের সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ ছিল, তাদের বক্তব্য সব ঠিক কিন্তু এই অবদান, সহযোগিতা কার নেতৃত্বে, কার আহবানে হয়েছিল তারা সেই সত্যকে গোপন করতে চায়। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি ও বঙ্গবন্ধুকে খাটো করার এই অপপ্রয়াস কখনো সফল হবে না।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেন, নীতির প্রশ্নে শক্তভাবে দাঁড়ালে কোনো অশুভ শক্তি মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারে না। ২০১৩ সালের ৫ মে তাণ্ডবের পরই হেফাজত প্রশ্নে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত ছিল।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরি বলেন, বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক, চেতনাবোধ ও দেশপ্রেম সঠিকভাবে জাতীয় জীবনে প্রতিফলনের মধ্য দিয়ে তাঁর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেন, বিএনপি, জামায়াত ও হেফাজত একই সূত্রে গাঁথা। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি দমনে কোনো আপস নয়। দুধ দিয়ে সাপ পুষলে তার ফল কখনও শুভ হয় না।

আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাসের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় পার্টি-জেপির সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজ ভাণ্ডারি, গণ আজাদী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এস কে সিকদার, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, ন্যাপের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।

ইলিয়াসকে ‘গুমের পেছনে বিএনপির কেউ’, ইঙ্গিত মির্জা আব্বাসের
                                  

দীর্ঘ ৯ বছর পর এ ঘটনার বিষয়ে শনিবার এক আলোচনা সভায় তিনি এর সঙ্গে আওয়ামী লীগ বা সরকার জড়িত নয় বলে মন্তব্য করেন। ‘গুমের’ পেছনে নিজ দলের কারো সংশ্লিষ্টতার ইঙ্গিত দেন।

শনিবার বিকালে সিলেট বিভাগ জাতীয়তাবাদী সংহতি সম্মিলনীর উদ্যোগ এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় মির্জা আব্বাস এসব কথা বলেন।২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল ঢাকার বনানী থেকে গাড়িচালক আনসার আলীসহ নিখোঁজ হন ইলিয়াস আলী। বিএনপি অভিযোগ করে আসছে, তাকে সরকারই ‘গুম’ করে রেখেছে।

 

ভার্চুয়াল এই আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও বক্তব্য দেন।

 

কারো নাম উল্লেখ না করে মির্জা আব্বাস বলেন, “ইলিয়াস গুম হওয়ার আগের রাতে দলীয় অফিসে কোনো এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বাকবিতন্ডা হয় মারাত্মক রকমের। ইলিয়াস তাদের খুব গালিগালাজ করেছিল। সেই যে পেছন থেকে দংশন করা সাপগুলো আমাদের দলে এখনো রয়ে গেছে।”

মির্জা ফখরুলকে উদ্দেশ্যে করে তিনি আরও বলেন, “যদি এদেরকে দল থেকে বিতাড়িত না করেন, তাহলে কোনো পরিস্থিতিতেই দল সামনে এগুতে পারবে না।”

“বাংলাদেশের স্বাধীন-সার্বভৌমত্ব যে ভুলন্ঠিত হতে যাচ্ছে এটার জ্বলন্ত প্রমাণ হলো ইলিয়াস আলীর গুম। আমি জানি, বাংলাদেশ সরকার বা আওয়ামী লীগ সরকার ইলিয়াসকে গুম করে নাই। কিন্তু গুমটা করলো কে? এই সরকারের কাছে আমি এটা জানতে চাই।”

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য আরও বলেন, “একজন জলজ্যান্ত তাজা রাজনৈতিক নেতা গুম হয়ে গেলো দেশের অভ্যন্তর থেকে, আমাদের একজন নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদকে দেশ থেকে পাচার করে নিয়ে গেল, আমাদের চৌধুরী আলমকে গুম করে দেয়া হলো, আমাদের কত ছেলেকে গুম করে দেয়া হলো-আমি বুঝলাম এই সরকার করে না। করলো কারা? আমি বলতে চাই, যারা করেছে তারা এদেশের স্বাধীনতা চায় না, তারা এদেশটাকে স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব থাকতে দেবে না।“

ইলিয়াস আলীকে বেশি স্নেহ করার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “ইলিয়াস ছিলেন একজন স্বাধীনচেতা দেশপ্রেমিক নেতা। আমি তাকে একুট বেশি স্নেহ করতাম।”

জাতীয়তাবাদী যুব দলের সাবেক সহ-সভাপতি কাইয়ুম চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, আসাদুজ্জামান রিপন, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, জহিরউদ্দিন স্বপন, কামরুজ্জামান রতন, আজিজুল বারী হেলাল, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু ও আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল এবং নিখোঁজ এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা বক্তব্য দেন।

লোক দেখানো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিএনপির
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ লোক দেখানো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিএনপির কাছে স্বার্থ হাসিলের হাতিয়ার বলে মনে  করছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমবার সকালে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে তিনি এই মন্তব্য করেছেন।

বিএনপির শাসনামলে হাওয়া ভবনের দুর্নীতি আর দলীয় নেতাকর্মীদের নানা অপকর্মের কারণে দেশের অর্থনীতি মুখ থুবড়ে পড়েছিল উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সেই ক্ষত মুছে দিয়ে দেশকে এখন উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

এ সময় তিনি আরও বলেছেন, অপরাজনীতির সকল উপাদানে ঠাসা বিএনপির রাজনীতি। মুখোশের আড়ালে তাদের দেশবিরোধী ও জনবিরোধী লুকানো মুখচ্ছবি দেশ ও জনগণের কাছে এখন স্পষ্ট বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ।

ছাত্রদল কেন্দ্রিয় সংসদ কর্তৃক ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রদলের সদ্য ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।
                                  

মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপি-এর অস্থায়ী কার্যালয়ে ছাত্র দল কেন্দ্রিয় সংসদ কর্তৃক ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রদলের সদ্য ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শনিবার সকাল ১১.০০ টায় ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির আয়োজনে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ কর্তৃক ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্র দলের সদ্য ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে দলীয় বিষয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলন করেন ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী খোকন, তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর কাছে দলীয় অনিয়ম বিষয় তুলে ধরছি। ছাত্রদল কেদ্রীয় সংসদ থেকে সদ্য ঘোষিত ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রদলের কমিটির বিষয়ে কিছু কথা না বললে নয়। গত ০৯/০৩/২০২১ইং দিবাগত রাত আনুমানিক ৩টায় অর্থ্যাৎ ১০/০৩/২০২১ ইং তারিখ ভোর তিনটায় দিনাজপুর জেলা ছাত্র দলের অধিনস্থ চারটি কমিটি ছাত্রদল কেন্দ্র থেকে প্রকাশ হয়। ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপি গত ২৪/০২/২০২১ ইং তারিখে কেন্দ্র বরাবর আবেদন করে, কিন্তু কেন্দ্র ছাত্র সংসদ আমাদের মতামত উপেক্ষা করে কমিটি প্রকাশ করেন। যার মধ্যে ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রদল কমিটিও রয়েছে। যাদেরকে আহŸায়ক ও সদস্য সচিব করে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। তারা কোনোভাবে যোগ্য বলে বিবেচিত নয়।

তাই ঘোষিত কমিটি আমরা উপজেলা বিএনপি, পৌর বিএনপির সভাপতি সাংগঠনিক সম্পাদক, সদ্য সাবেক ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ ঘৃণাভাবে প্রত্যাখান করছি। এই কমিটিতে প্রকৃত ছাত্র নেতাদের যোগ্যস্থান না দিয়ে, বিবাহিত, মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারী ছাত্রলীগের সাথে সম্পৃক্ত লেখাপড়ার সাথে কোনো ভাবে সম্পৃক্ত নয় এমন মটর সাইকেল মেকানিক, রংমিস্ত্রি, ট্রাক মিস্ত্রি ও অযোগ্য লোকজনকে কমিটিতে স্থান দেওয়া হয়েছে বলে তিনি সংবাদ সম্মেলনে লিখিতভাবে অভিযোগ তুলে ধরেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ নবিউল ইসলাম, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহম্মেদ চৌধুরী খোকন, উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আবু ফরহাদ বাচ্চু, সহ-সভাপতি আব্দুল মজিত মন্ডল, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ তোফায়েল হোসেন চৌধুরী, পৌর বিএনপির সভাপতি মোঃ আবুল বাসার, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইদুর রহমান, উপজেলা বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক ও উপজেলা যুবদল সদস্য সচিব মোঃ মাহাবুব আলম মিলন, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহŸায়ক মোঃ জাকিউর রহমান ”ঞ্চল, উপজেলা সেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব মোঃ দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহŸায়ক মোঃ মকলেছার রহমান (নবাব)। এ সময় ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল, সেচ্ছাসেবক দলের সকল নেতাকৃর্মী উপস্থিত ছিলেন। এ সময় প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। আয়োজনে ছিলেন, ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপি।

 

আমি জেলে যেতে প্রস্তুতঃ কাদের মির্জা
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ‘আমি চাই গণতন্ত্রের চর্চা। বাংলাদেশে আমরা যদি গণতান্ত্রিক চর্চা করি, আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত করতে পারব। শুধু নোয়াখালী নয়, সারা দেশেই অপরাজনীতির কারণে আজ গণতন্ত্রের চর্চা নেই। আজ ভালো মানুষের কোনো দাম নেই। যারা এই সংগঠনের জন্য জীবন-যৌবন দিয়েছে, তারা আজ ঘরে ঢুকে গেছে। তারা আজ অবহেলিত ও লাঞ্ছিত। আর ভোগ করছে সুবিধাভোগীরা।’

সাম্প্রতিক সময়ে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে রাজনৈতিক অস্থিরতা বিরাজ করছে। বসুরহাট পৌর নির্বাচনের আগে থেকেই সেখানকার পরিস্থিতি ঘোলাটে হতে থাকে। এ পরিস্থিতির কেন্দ্রে রয়েছেন নির্বাচনে জয়ী মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। নিজের রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের বিভিন্ন নেতাকর্মীকে নিয়ে তিনি একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে কোম্পানীগঞ্জে হামলা-পাল্টা হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

সবশেষ ৯ মার্চ রাতে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আলাউদ্দিন নামে এক সিএনজিচালক নিহত হন। ওই ঘটনায় বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে প্রধান আসামি করে বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) রাতে একটি হত্যা মামলা করতে চেয়েছিলেন নিহতের ভাই এমদাদ হোসেন। এতে ১৬৪ জনের নাম উল্লেখ করেছিলেন তিনি। কিন্তু মামলাটি গ্রহণ না করে পর্যালোচনায় রেখেছে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপকএমন পরিস্থিতিতে পুলিশ মামলা নিলে কাদের মির্জার গ্রেফতার হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন অনেকেই। তবে গ্রেফতার নিয়ে মোটেও শঙ্কিত নন তিনি। গ্রেফতারের গুঞ্জন নিয়ে জানতে চাইলে কাদের মির্জা বলেন, ‘গ্রেফতার হলে অসুবিধা কী? ১৯৮২ সালে এরশাদবিরোধী আন্দোলন করে গ্রেফতার হয়ে একমাস ডিটেনশনে ছিলাম। এর পরবর্তী পর্যায়ে আমি শত শত দিন জেলখানায় ছিলাম। আমি জেলে যাব মুক্তি পাওয়ার জন্য। সেল হলো রাজনীতিবিদদের জন্য সোনার হরিণ।’

‘সেখানে যেতে হবে। আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। যারা চুরি করে নির্বাচিত হয় তাদের সঙ্গে কি আমাদের শপথ নিতে হয় না? ষড়যন্ত্র করে মিথ্যা মামলা দিয়ে যদি আমাকে জেলখানায় খারাপ লোকজনের সঙ্গে রাখা হয়, তাহলে কী আর করার আছে? আর এই দেশে তো সেই বিচার নাই। অতীতেও ছিল না। কোনোকালেই কোনো সরকারের আমলেই ছিল না। অন্যায়ভাবে মানুষকে জেলে নিক্ষেপ করা হয়েছে। আমাকে অন্যায়ভাবে জেলে নিক্ষেপ করা হলে আমি মাথা পেতে নেব।’

জেলে গেলে সমর্থকদের উদ্দেশে কী বার্তা থাকবে- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমার সমর্থকদের উদ্দেশে আমি বলব, তোমরা শান্ত থাকবে, তোমরা রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নেবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কিছু প্রোগ্রাম আমি আয়োজন করেছি, সেগুলো তারা করবে। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন যেন শতভাগ নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু হয় সে লক্ষ্যে তারা কাজ করবে।’

নোয়াখালীর বসুরহাটের পরিস্থিতির জন্য কারা দায়ী জানতে চাইলে কাদের মির্জা বলেন, ‘যারা অপরাজনীতি করে তারাই এর জন্য দায়ী। নিজাম হাজারী তো আমাদের জেলার লোক নয়। কিন্তু তথাকথিত সাধারণ সম্পাদক নুর নবী একটি সমাবেশে বলছেন নিজাম হাজারী উনাকে ফোন দিয়েছেন, এখানে অফিস করতে যত টাকা লাগবে নিজাম হাজারী দেবে। নিজাম হাজারী অন্য জেলার লোক, এখানে উনার কী কাজ? এ কথা তো আমাদের জেলার সভাপতি বলতে পারেন, উনি কেন বলবেন। যদিও নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে আমি মানি না। এ কমিটির এখনও অনুমোদন দেওয়া হয়নি। কিন্তু নিজাম হাজারী কেন এ কথা বলবে। তারা সবাই মিলে অবৈধ অস্ত্র দিয়ে রাজনীতি করছে।’

বিএনপি নেতার বক্তব্যে খুনের রাজনীতি স্পষ্ট : কাদের
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ফাইল ছবি।

বিএনপির ফ্যাসিবাদী রাজনীতির চরিত্র উন্মুক্ত হয়েছে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশে বিএনপির এক নেতা দেশে আরেকটি ১৫ আগস্ট ঘটানোর যে ঈঙ্গিতপূর্ণ ও উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন, তাতে দেশবাসী বিক্ষুব্ধ। জনগণ আশা করে, বিএনপি এ বিষয়ে তাদের বক্তব্য স্পষ্ট করবে।’

শুক্রবার (৫ মার্চ) সকালে ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে অনলাইনে নিয়মিত ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, ওয়ার্কার্স পার্টির ফজলে হোসেন বাদশা এবং রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ এ বিষয়ে প্রতিবাদ করলেও বিএনপির পক্ষ থেকে এর কোনো সুস্পষ্ট বক্তব্য দেওয়া হয়নি৷ তাহলে কি ধরে নেব, এটি বিএনপির দলীয় বক্তব্য?

১৫ ও ২১ আগস্ট একই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি নেতার এ বক্তব্যে তাদের খুনের রাজনীতির স্বরূপ উন্মোচিত হয়েছে। এই বক্তব্য থেকে স্পষ্ট বোঝা যায়, বিএনপি এখনো ষড়যন্ত্রের রাজনীতি করছে। এ ষড়যন্ত্রের জাল দেশ-বিদেশে বিস্তৃত, তাদের বক্তব্য লন্ডনের ছক অনুযায়ী গোপন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের অংশ কি না তা-ও খতিয়ে দেখা হবে।

সরকার নির্বাচিত নয়, জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে সরকারের পতন হবে- বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির এমন হুমকি-ধামকি আমরা বছরের পর বছর শুনেছি, তাদের আন্দোলন এবং সরকার পতনের ঘোষণার এক যুগ পূর্তি হয়ে গেছে এরই মধ্যে৷ জনগণ এখনো কোনো আন্দোলন দেখতে পায়নি রাজপথে।

তিনি বলেন, ক্ষমতায় থাকাকালে বিএনপি সরকার পরিচালনায় একাধিক বিকল্প ক্ষমতাকেন্দ্র তৈরি করেছিল৷ এখনো তাদের আন্দোলনের ডাক আসে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন ক্ষমতাকেন্দ্র থেকে। বিএনপি নেতারা ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টের অন্ধ বিরোধিতা করছে, আইনটির যথাযথ প্রয়োগের ক্ষেত্রে কোনো ব্যত্যয় ঘটছে কি না, সে বিষয়টির প্রতি সরকার কড়া নজর রাখছে৷ প্রযুক্তির এ যুগে জনস্বার্থেই এ আইন করা হয়েছে, আইনের অপপ্রয়োগ যাতে না হয়, সে বিষয়ে দেওয়া হয়েছে নির্দেশনা। বিএনপি এখন এ আইন নিয়ে মানবাধিকারের কথা বলছে, অথচ ১৯৭৫-এর হত্যাকাণ্ডের পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশের মাধ্যমে জাতির পিতার খুনিদের বিচার চাওয়ার পথ বন্ধ করে দিয়েছিল।

বিএনপি নেতার উসকানিমূলক বক্তব্যটি কি দলীয়, প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের
                                  

রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশে বিএনপির এক নেতা দেশে আরেকটি ১৫ আগস্ট ঘটানোর যে ঈঙ্গিতপূর্ণ ও উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছে তাতে দেশবাসী বিক্ষুব্ধ বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এই বক্তব্য বিএনপির ফ্যাসিবাদি মানসিকতা, ষড়যন্ত্র এবং খুনের রাজনীতির চরিত্র স্পষ্ট হয়ে উঠেছে বলেও মনে করেন তিনি। শুক্রবার (৫ মার্চ) ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে নিয়মিত ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিএনপি নেতাদের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, ওয়ার্কার্স পার্টির ফজলে হোসেন বাদশা এবং রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ এ বিষয়ে প্রতিবাদ করলেও বিএনপির পক্ষ থেকে এর কোনো সুস্পষ্ট বক্তব্য দেওয়া হয়নি, তহলে কি ধরে নেব এটি বিএনপির দলীয় বক্তব্য?

১৫ ও ২১ আগস্ট একই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি নেতার এ বক্তব্যে তাদের খুনের রাজনীতির স্বরূপ উন্মোচিত হয়েছে। এই বক্তব্য থেকে স্পষ্ট বোঝা যায় বিএনপি এখনো ষড়যন্ত্রের রাজনীতি করছে। তাদের বক্তব্য লন্ডনের ছক অনুযায়ী গোপন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের অংশ কি না, তাও খতিয়ে দেখা হবে বলেও জানান তিনি।

ইতোমধ্যে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ এ বক্তব্য প্রত্যাহারে ৭২ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছে। কেন্দ্রীয় বিএনপি তাদের অবস্থান স্পষ্ট করবে বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, ক্ষমতায় থাকাকালে বিএনপি সরকার পরিচালনায় একাধিক বিকল্প ক্ষমতাকেন্দ্র তৈরি করেছিল। এখনো দেশ-বিদেশের বিভিন্ন ক্ষমতাকেন্দ্র থেকে তাদের আন্দোলনের ডাক আসে।

বিএনপি নেতারা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অন্ধ বিরোধিতা করে মানবাধিকারের কথা বলছে। অথচ ৭৫-এর হত্যাকাণ্ডের পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশের মাধ্যমে জাতির পিতার খুনিদের বিচার চাওয়ার পথ বন্ধ করে দিয়েছিল তারা। সরকার আইনের প্রয়োগের ক্ষেত্রে কোনো ব্যত্যয় ঘটছে কিনা সে বিষয়টির প্রতি কড়া নজর রাখছে। প্রযুক্তির এ যুগে জনস্বার্থেই এ আইন করা হয়েছে, আইনের অপপ্রয়োগ যাতে না হয় সে বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। 

নৌকা ১৬ ধানের শীষ ৯৮১
                                  

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের নিজ কেন্দ্রে নৌকা পেয়েছে ১৬ ভোট। আর ধানের শীষ পেয়েছে ৯৮১ ভোট। রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনের এমন ভোট পড়েছে। উপজেলার গুনাইঘর উত্তর ইউনিয়নের ৭৯ নম্বর কেন্দ্র বনকোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ১৩১৯ জন। ১০০৭ জন ভোটার ভোট প্রদান করেছেন। এরমধ্যে ৬ টি ভোট বাতিল করা হয়েছে।

 

আওয়ামী লীগ প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন মাত্র ১৬ ভোট। বিএনপির প্রার্থী এ এফ এম তারেক ধানের শীর্ষ নিয়ে পেয়েছেন ৯৮১ ভোট। আবদুল হক খোকন আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ ভোট। আবদুল আউয়াল সরকার লাঙ্গন প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ ভোট। জানা গেছে, কুমিল্লা-৪ আসনের আওয়ামী লীগের রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের বাড়ি গুনাইঘর উত্তর ইউনিয়নের বনকোট গ্রামে। এই গ্রামেই নৌকার প্রার্থী পেয়েছেন মাত্র ১৬ ভোট, যে মোট ১১৪টি কেন্দ্রের সবচেয়ে নিম্ম ভোট। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি নৌকা নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। এর আগে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়েছিলেন।

 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কুমিল্লা-৪ (দেবীদ্বার) আসনের আওয়ামী লীগের এমপি রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের চাচা ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এ এফ এম ফখরুল ইসলাম মুন্সীর ছোট ভাই এ এফ এম তারেক এবার ধানের শীষ নিয়ে ভোট করেন। ২০১৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে এ এফ এম তারেক দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে পরাজিত হন।

ছাত্রদলের তিন নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ
                                  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের তিন নেতাকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তুলে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ তুলেছে বিএনপি। রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে গণমাধ্যমে পাঠানো বিএনপি মহাসচিবের এক বিবৃতিতে এ দাবি করা হয়।দলের সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুর রহমান টিপু স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘রোববার সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সদস্য আনিসুর খন্দকার অনিক, এফ রহমান হল ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক জুলফিকার জিসান ও সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ছাত্রদলের কর্মী আতিক মোর্শেদকে টিএসসি এলাকা থেকে সাদা পোশাকধারী আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা আটক করে নিয়ে যায়। কিন্তু আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাদেরকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করছে না। আটকের পর থানাসহ সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ করেও তাদের কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে তাদের পরিবার ও সংগঠনের নেতাকর্মীরা গভীর উদ্বেগ-উৎকন্ঠায় রয়েছেন।‘

বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল আরো বলেন, একদলীয় শাসনকে টিকিয়ে রাখতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী প্রাইভেট বাহিনীর মতো কাজ করছে। এই অরাজকতা মানুষ আর সহ্য করবে না। সংগ্রামী জনতা পথে-ঘাটে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে এখন প্রস্তুতি নিচ্ছে। অবিলম্বে আনিসুর খন্দকার অনিক, জুলফিকার জিসান এবং আতিক মোর্শেদকে জনসম্মুখে হাজির করার জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহবান বিএনপি মহাসচিব।

১নং উথুরা ইউনিয়ন যুব মহিলা লীগ কমিটি নিয়ে বির্তকিত ক্ষিপ্ত নেতার্কমীরা
                                  

ভালুকা ময়মনসিংহ 

ভালুকা উপজলোর ১নং উথুরা ইউনিয়ন যুব মহিলা লীগের ৩১ সদস্য বশিষ্টি কমিটি অনুমোদন দেন থানা কমিটি সভাপতি খালদো আক্তার ও ৭৮৯ এর মহলিা মেম্বার অলকা রানী কে সাধারণ সম্পাদক করা হয়ছেে ।

এ কমিটি নিয়ে আওয়ামীলীগ নেতার্কমী দরে মাযে আলোচনার ঝড় বইছে।
নেতার্কমী যানান যাকে সভাপতি করা হয়ছেে সে জাতীয়তা দল বি এন পির নেত্রী  এবং ওনার স্বামীর বি এন পিতে  পদবী আছে ।
এ বিষয় নিয়ে  ইউনিয়ন আওয়ামী লীগরে সভাপতি সাথে ফোনে কথা বললে উনি বলনে আমি ২২ বছর যাবত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগরে সভাপতরি দায়ত্বি পালন করে আসছি ।থানা কমিটি আমার সাথে কোন প্রকার যোগাযোগ না করইে এই কমটিি অনুমোদন দযি়ছেনে বলে জানান।
এ বিষয় নিয়ে থানা যুব মহলিা লীগরে সাধারণ সম্পাদক লিপি আক্তার এর সাথে ফোনে কথা বললে উনি বলনে প্রমাণ দিতে পারলে অনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 
এনিয়ে  ক্ষিপ্ত  নেতার্কমীরা বলনে,সদ্য অনুমোদতি কমিটিতে সভাপতি কে কোনভাবে আমরা মেনে নেব না।নেতার্কমীরা প্রশ্ন তুলে বলনে, অবলিম্বে ঘোষতি কমিটি বাতলি করে পরিচ্ছন্ন কমিটি দেওয়ার দাবি জানান নেতার্কমীরা।

মাতৃভাষা দিবসে যেসব কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিএনপি
                                  

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে দলটির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কর্মসূচি জানানো হয়।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ২১ ফেব্রুয়ারি ভোর ৬টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ এবং কালো পতাকা উত্তোলন। সকাল ৬টায় কালো ব্যাজ সহকারে বলাকা সিনেমা হলের সামনে দলীয় নেতা-কর্মীদের জমায়েত এবং আজিমপুর কবরস্থানে ভাষা শহীদদের মাজার জিয়ারত শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার অভিমুখে যাত্রা ও শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন।

বিকাল ৩টায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপির সিনিয়র নেতারাসহ দেশবরেণ্য বুদ্ধিজীবী ও ভাষা সৈনিকরা এ আলোচনায় অংশ নেবেন।সারাদেশের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ২১ ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সারাদেশে দলের জেলা/মহানগর/উপজেলা/থানা ও বিভিন্ন ইউনিট কার্যালয়ে সকাল ৬টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন এবং স্থানীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন। একই দিন দেশব্যাপী দলের বিভিন্ন ইউনিট স্থানীয়ভাবে ভাষা শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভা করবে।

খালেদা জিয়া অসুস্থ, শুনানি পিছিয়ে ২ মার্চ
                                  

নাইকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানির তারিখ ফের পিছিয়ে আগামী ২ মার্চ ধার্য করেছেন আদালত।আজ মঙ্গলবার মামলার অভিযোগ গঠনের দিন ধার্য ছিল। তবে খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত হননি। এজন্য তাঁর আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া আবারও সময়ের আবেদন করেন।

কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে নবনির্মিত ২ নম্বর ভবনে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ শেখ হাফিজুর রহমান সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে নতুন এ দিন ধার্য করেন।

পরে খালেদা জিয়ার আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার সূত্রে জানা গেছে, কানাডিয়ান প্রতিষ্ঠান নাইকোর সঙ্গে অস্বচ্ছ চুক্তির মাধ্যমে রাষ্ট্রের আর্থিক ক্ষতিসাধন ও দুর্নীতির অভিযোগে ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর দুদকের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ মাহবুবুল আলম তেজগাঁও থানায় খালেদা জিয়াসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলাটি করেন।

২০১৮ সালের ৫ মে খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করা হয়। এতে তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকা আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সচিব খন্দকার শহীদুল ইসলাম, সাবেক সিনিয়র সহকারী সচিব সি এম ইউছুফ হোসাইন, বাপেক্সের সাবেক মহাব্যবস্থাপক মীর ময়নুল হক, বাপেক্সের সাবেক সচিব মো. শফিউর রহমান, ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুন, বাগেরহাটের সাবেক সংসদ সদস্য এম এ এইচ সেলিম এবং নাইকোর দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট কাশেম শরীফ।

গোলাপগঞ্জে ওয়ার্ড বিএনপির কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত
                                  

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ গোলাপগঞ্জে ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়ন বিএনপির ওয়ার্ড বিএনপির কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দত্তরাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাত ৭ টায় বিএনপি নেতা হাজী আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ডা. আব্দুর গফুর ।

 

বিএনপি নেতা মসুদ আহমদের সঞ্চলনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক নুরুল আমিন লিলন , সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান নুমান উদ্দিন মুরাদ, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান উজ্জল, উপজেলা আহবায়ক কমিটির সদস্য শাহ জামাল, আতাউর রহমান উতু, রেদওয়ান আহমদ চৌধুরী, প্রভাষক সালমান আহমদ, মুহিব হোসেন, আব্দুল মালিক লাল মিয়া, আব্দুল কাহের ললাই, কবির আহমদ, আজিজুর রহমান খান, আব্দুর রউফ, বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম, শায়েখ আহমদ, মাসুম আহমদ, উপজেলা শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক তাহের আহমদ এনু, উপজেলা যুবদলের যুগ্নআহবায়ক শাহজাহান আহমদ, আবুল কালাম খোকন, উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক তানজিম আহাদ প্রমুখ।

ওসির গাড়ি থেকে নিখোঁজ স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী, থানা ঘেরাও
                                  

মাদারীপুরের কালকিনিতে পৌর এলাকায় নির্বাচনী মাঠ থেকে ওসির গাড়িতে তুলে নেওয়ার পর নিখোঁজ স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী মশিউর রহমান সবুজ। এরই প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে কালকিনি থানা ঘেরাও করেছেন স্বজন ও সমর্থকরা।শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কালকিনি পৌর এলাকার পালপাড়ায় নির্বাচনী প্রচারণাকালে এ ঘটনা ঘটে। 

স্বজন ও সমর্থকরা জানায়, শনিবার দুপুরে কালকিনি পৌর এলাকার পালপাড়ায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মশিউর রহমান সবুজ। এসময় তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে একটি কল আসে। তাৎক্ষণিক সেখানে কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ গাড়ি নিয়ে হাজির হন। পরে সেখান থেকে সবুজকে পুলিশের গাড়িতে করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর পরই নিখোঁজ হয় সবুজ। 

এরই প্রতিবাদে বিক্ষোভ নিয়ে কালকিনি থানা ঘেরাও করে ওই প্রার্থীর সমর্থকরা। টায়ার জ্বালিয়ে স্লোগান দেন বিক্ষুব্ধরা। এসময় কালকিনি-ভুরঘাটা ও কালকিনি-মাদারীপুর আঞ্চলিক সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। 

এদিকে, বিক্ষোভ মিছিলে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় নৌকার সমর্থকরা। পরে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে আহত হয় অন্তত অর্ধশত মানুষ। ভাঙচুর করা হয় বেশকিছু দোকানপাট। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

এদিকে, স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সবুজকে তুলে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসিরউদ্দিন।


   Page 1 of 25
     রাজনীতি
হেফাজত নেতাদের ওয়াজের ভিডিও খুঁজছে পুলিশ
.............................................................................................
চট্টগ্রামে নুরুর বিরুদ্ধে আরেক মামলা
.............................................................................................
দুধ দিয়ে সাপ পুষলে তার ফল শুভ হয় না: ১৪ দল
.............................................................................................
ইলিয়াসকে ‘গুমের পেছনে বিএনপির কেউ’, ইঙ্গিত মির্জা আব্বাসের
.............................................................................................
লোক দেখানো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিএনপির
.............................................................................................
ছাত্রদল কেন্দ্রিয় সংসদ কর্তৃক ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রদলের সদ্য ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।
.............................................................................................
আমি জেলে যেতে প্রস্তুতঃ কাদের মির্জা
.............................................................................................
বিএনপি নেতার বক্তব্যে খুনের রাজনীতি স্পষ্ট : কাদের
.............................................................................................
বিএনপি নেতার উসকানিমূলক বক্তব্যটি কি দলীয়, প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের
.............................................................................................
নৌকা ১৬ ধানের শীষ ৯৮১
.............................................................................................
ছাত্রদলের তিন নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ
.............................................................................................
১নং উথুরা ইউনিয়ন যুব মহিলা লীগ কমিটি নিয়ে বির্তকিত ক্ষিপ্ত নেতার্কমীরা
.............................................................................................
মাতৃভাষা দিবসে যেসব কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিএনপি
.............................................................................................
খালেদা জিয়া অসুস্থ, শুনানি পিছিয়ে ২ মার্চ
.............................................................................................
গোলাপগঞ্জে ওয়ার্ড বিএনপির কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
ওসির গাড়ি থেকে নিখোঁজ স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী, থানা ঘেরাও
.............................................................................................
মহেশপুরে বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল
.............................................................................................
ঝিনাইদহে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
কল্যাণ পার্টির নৈশভোজ বাতিল
.............................................................................................
দেশে-বিদেশে গণতন্ত্রবিরোধী অপশক্তি এখনো সক্রিয়: সেতুমন্ত্রী কাদের
.............................................................................................
গৌরীপুর পৌর নির্বাচনে সাংবাদিকের ওপর হামলা
.............................................................................................
বিএনপির হাত ধরেই দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতি চালু: কাদের
.............................................................................................
দুঃসময়ের কর্মীদের প্রাধান্য দেয়ার নির্দেশ কাদেরের
.............................................................................................
উপজেলা ও ইউপি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী যারা
.............................................................................................
সরকারকে গদি থেকে টেনে-হিঁচড়ে নামানো হবে
.............................................................................................
সাংগঠনিক কার্যক্রম কাউন্সিলের অংশ
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভা আজ
.............................................................................................
‘হত্যার রাজনীতি জিয়ার আমল থেকে শুরু’
.............................................................................................
আ.লীগের শক্তির উৎস জনগণ
.............................................................................................
সর্বশক্তি নিয়েই ভোটের মাঠে থাকবে জাপা
.............................................................................................
উপনির্বাচন: বিএনপির মনোনয়ন চেয়ে ২৯ আবেদন
.............................................................................................
নির্বাচন কমিশন বাতিল করতে হবে
.............................................................................................
আমি রাষ্ট্র পরিচালনা করার মতো ক্ষমতা রাখি
.............................................................................................
খালেদার স্থায়ী মুক্তি চেয়ে ফের আবেদন পরিবারের
.............................................................................................
‘বঙ্গবন্ধুই দেশের জ্বালানী নিরাপত্তার উদ্যোগ নিয়েছিলেন’
.............................................................................................
ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সঙ্গে বিএনপি মহাসচিবের বৈঠক
.............................................................................................
ঢাকা-১৮ আসনে সরব বিএনপির কফিল উদ্দিন
.............................................................................................
তিনগুণের বেশি ব্যয় বেড়েছে বিএনপির
.............................................................................................
জাতীয় শোক দিবসে নানা কর্মসূচি
.............................................................................................
‘করোনা বুলেটিনে কারও বিশ্বাস নেই’
.............................................................................................
বিএনপিকে জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার অনুরোধ তথ্যমন্ত্রীর
.............................................................................................
‘অসাম্প্রদায়িক চেতনা দিয়েই সমৃদ্ধির সোপান রচনা করতে হবে’
.............................................................................................
সরকার দলের লোকদেরও ছাড় দিচ্ছে না
.............................................................................................
রাজনৈতিক পরিচয় অপরাধীর আত্মরক্ষার ঢাল হতে পারে না
.............................................................................................
‘ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহযোদ্ধা’
.............................................................................................
`সরকারের শেকড় মাটির অনেক গভীরে`
.............................................................................................
আজ শহীদ শেখ কামালের ৭১তম জন্মদিন
.............................................................................................
খালেদার মুক্তির মেয়াদ বাড়াতে আবেদন করবে পরিবার
.............................................................................................
হাসপাতালে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মান্নান
.............................................................................................
‘ষড়যন্ত্রকারীদের অপচেষ্টা আজও চলমান’
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ হাজী মোবারক হোসেন।। সহ-সম্পাদক : কাউসার আহম্মেদ।
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু। র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল, ফোন ০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop