টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কতটা প্রস্তুত বাংলাদেশ?

করোনার বিষবাষ্পে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে যে স্থবিরতা নেমে এসেছিল সময়ের পরিক্রমায় তা সচল হয়েছে। কেটে গেছে কালো মেঘের অমানিশা। মাঠে ফিরেছে প্রাণ-চাঞ্চল্য। শুরু হয়েছে স্থগিত হওয়া সব সিরিজ। স্বাস্থ্যবিধি আর কোভিডের কঠোর নিয়মনীতি মেনেই চলছে মাঠের খেলা। পিছিয়ে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও হাতছানি দিচ্ছে। চলতি বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে গড়াবে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরমেটের এ আয়োজন।করোনার কারণে নির্ধারিত সময়ে মাঠে গড়ায়নি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০২০ সালের আয়োজনের কথা থাকলেও তা স্থগিত হয়ে যায়। অনেক জল ঘোলার পর আইসিসি জানিয়েছিল, ২০২০ সালের টুর্নামেন্টটা হবে ২০২১ এর অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতের মাটিতে। তবে ভারতের করোনা পরিস্থিতি আবারও দুশ্চিন্তায় ফেলে আয়োজকদের। সিদ্ধান্ত বদলে যায়। বদলানো হয় ভেন্যু।

ভারত থেকে সরিয়ে নেওয়া হয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম, আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়াম, শারজাহ স্টেডিয়াম ও ওমান ক্রিকেট একাডেমি-এ চারটি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে এবারের বিশ্বকাপের খেলা।

আয়োজনের তারিখ, ভেন্যু সবই ঠিক। এখন অপেক্ষা মাঠের লড়াই শুরুর। বিশ্বকাপের মঞ্চে কেমন করবে বাংলাদেশ দল? এমন প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক। সাবেক টাইগার ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুলের কাছে এমন প্রশ্নই ছিল সময় সংবাদের পক্ষ থেকে। সময় সংবাদের নিয়মিত অনুষ্ঠান ‌`খেলার ক্ষণে‌`কে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা নিয়ে বিস্তারিত কথা বলেন তিনি।

মোহাম্মদ আশরাফুল বলেন, ‌টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ দলের সামনে প্রায় ১৫টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সুযোগ আছে। জিম্বাবুয়ের পর এবার অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টির সিরিজ শুরু হচ্ছে। এরপর নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ আছে। এ টুর্নামেন্টগুলো শেষ হলে বোঝা যাবে আমরা কতদূর যেতে পারি। স্বাভাবিকভাবে বলতে হয়, আমরা টি-টোয়েন্টিতে ফরমেটে বেশি শক্তিশালী নই। তবুও এই দলের ওপর আস্থা আছে। তরুণ ক্রিকেটারদের প্রমাণ করার ক্ষমতা আছে।‌

টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হওয়া শামীম পাটোয়ারী নজর কেড়েছেন জিম্বাবুয়ে সিরিজে। শামীম পাটোয়ারীকে নিয়ে আশাবাদী আশরাফুলও।

তিনি বলেন, ‌শামীম পাটোয়ারী ভালো ফিল্ডার এবং ব্যাটসম্যান। আশা করি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সে দলে থাকবে। অজি পেসারদের বিপক্ষে ভালো করার সুযোগ আছে তার।‌

টি-টোয়েন্টি ফরমেটে উন্নতি করার বিষয়ে আশরাফুল জানান, ‌২০০৬ সালে আমরা এ ফরমেটে খেলা শুরু করেছিলাম। ২০০৭ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়েছিলাম। তখন ভেবেছিলাম এ ফরমেটে দ্রুত উন্নতি করবে বাংলাদেশ। কিন্তু এ খেলায় যারা অভিজ্ঞ তারা বেশি সফল। পাশাপাশি পাওয়ার হিটিং এবং মাঠের হিসাব-নিকাশ আছে। আমাদের দলে পাওয়ার হিটিং ব্যাটসম্যান নেই তেমন। এছাড়া এ ফরমেটে খেলাও কম হয় আমাদের। এর সমাধান হতে পারে ঘরোয়া লিগে বেশি বেশি খেলা আয়োজন করার মধ্যদিয়ে।‌

টিম বাংলাদেশের অন্যতম ভরসা সাকিব আল হাসান। তার ব্যাটে ভর করে অনেক জয়ের স্বাদ পেয়েছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টিতেও বড় ভূমিকা রাখতে পারেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত ফরমেটে সাকিব আল হাসানের পারফরমেন্স নিয়ে আশরাফুল জানান, ‌আমার মনে হয় সাকিবের তিন নম্বর পজিশনে খেলা উচিত। আমাদের দলে পাওয়ার হিটার নেই। সাকিব সার্কেল ব্যবহার করে শট খেলতে পারে ভালো। পাওয়ার প্লে ব্যবহারের জন্য তাকে ওই পজিশনে দরকার।‌

এছাড়া টি-টোয়েন্টি ফরমেটে সৌম্য সরকারকে বেশি মনযোগ দেওয়ার ব্যাপারে জোর দেন জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার আশরাফুল।

বাংলাদেশ দলের অলরাউন্ডারদের সম্পর্কে আশরাফুল জানান, `অনেক অলরাউন্ডার আছে দলে। অলরাউন্ডারদের কামব্যাক করার সুযোগ করে দিতে হবে। এখানে বাড়তি নজর দেওয়া প্রয়োজন।‌

বিশ্বকাপ নিয়ে বাংলাদেশের প্রস্তুতি সম্পর্কে ‌‘খেলার ক্ষণে‌` অনুষ্ঠানকে সিনিয়র সাংবাদিক নোমান মোহাম্মদ বলেন, ‌টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে শিরোপা প্রত্যাশী তিনটি দলের বিপক্ষে সিরিজ খেলবে। যা বাড়তি আত্মবিশ্বাস যোগাবে। প্রস্তুতি সর্বোচ্চটাই হওয়া উচিত। আমাদের সমস্যা হলো আমরা বর্তমানে বাঁচি। কিন্তু বোর্ড, ম্যানেজমেন্টের উচিত দীর্ঘমেয়াদি চিন্তা করা যাতে প্রস্তুতি ভালো হয় এবং প্রাথমিক পর্বটা সহজে উতরে যায়।‌

উল্লেখ্য বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডে খেলবে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি, নামিবিয়া, নেদারল্যান্ডস, স্কটল্যান্ড ও ওমান। এখান থেকে চারটি দল যাবে পরের পর্বে। সেখানে সরাসরি জায়গা করে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তান।

... বিস্তারিত
হামাসের নেতৃত্বে আবারও ইসমাইল হানিয়া

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের নেতা পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন ইসমাইল হানিয়া। আগামী চার বছর তিনি হামাসের নেতৃত্ব দেবেন। এর আগে ২০১৭ সালে তিনি হামাস প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এ বছর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তিনি পুনরায় নির্বাচিত হলেন।  
রোববার (১ আগস্ট) হামাসের নির্বাহী কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।
স্বাধীন ফিলিস্তিনের দাবিতে গাজা উপত্যকা ছাড়াও ইসরাইল অধিকৃত পশ্চিম তীর ও গাজার বাইরে ফিলিস্তিনি অভিবাসীদের নিয়ে রাজনৈতিকসহ অন্যান্য কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে থাকে হামাস।
ইসমাইল হানিয়া গত দুই বছর তুরস্ক ও কাতারে অবস্থান করে হামাস পরিচালনা করছেন। গাজায় কবে ফিরবেন তা জানাননি তিনি।
 
গত মে মাসে ইসরাইলের সঙ্গে হামাসের যে ১১ দিনব্যাপী যুদ্ধে ইসমাইল হানিয়া নেতৃত্ব দেন। যুদ্ধে ২৫০ জনের বেশি ফিলিস্তিনি ও ইসরাইলের ১৩ জন নাগরিকের মৃত্যু হয়।
পরে মিশরের মধ্যস্থতায় পরে উভয় পক্ষ যুদ্ধবিরতি ঘটে।
৫৮ বছর বয়সী ইসমাইল হানিয়া হামাসের প্রতিষ্ঠাতা আহমেদ ইয়াসিনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা ছিল। ২০০৪ সালে গাজায় ইসরাইলের বিমান হামলায় ইয়াসিন নিহত হন।
২০০৬ সালে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন ইসমাইল হানিয়া। ওই বছর ফিলিস্তিনের সংসদ নির্বাচনে মাহমুদ আব্বাসের ফাতাহ পার্টিকে হারিয়ে তিনি জয়লাভ করেন।
এরপর ওই বছর জানুয়ারিতে তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। কিন্তু আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী হামাসকে সন্ত্রাসী হিসেবে বিবেচনা করায় তিনি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিতে পারেননি।
২০০৭ সালে এক গৃহযুদ্ধে গাজা অঞ্চল দখল করে নেয় হামাস। এরপর থেকে ইসরায়েল গাজাকে আকাশ, সড়ক ও জলপথে অবরোধ করে রেখেছে।
হামাস প্রতি চার বছর পরপর নির্বাচন করে। গোষ্ঠীটির উদ্দেশ্য হলো ইসরায়েলের বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়া। ২০০৭ সাল থেকে হামাস ও ইসরায়েল অন্তত চারবার যুদ্ধে জড়িয়েছে।

সূত্র: আল জাজিরা,
... বিস্তারিত
নারায়ণগঞ্জ অগ্নিকাণ্ড: ডিএনএ পরীক্ষায় ৪৫ জনের পরিচয় শনাক্ত

কাউসার আহমেদ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সজীব গ্রুপের খাদ্যপণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান হাসেম ফুডস লি. কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আগুনে পুড়ে নিহতদের মধ্যে পঁয়তাল্লিশ জনের পরিচয় শনাক্ত করেছে তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি।

সংস্থাটি অচিরেই আলাদাভাবে নিহতদের প্রত্যেকের পরিচয়ের তালিকা প্রকাশ করবে। এমনকি সেই প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

রোববার (০১ আগস্ট) রাতে সময় নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন আগুনের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার তদন্তের দায়িত্বে থাকা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি’র অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন।
সময় নিউজকে এই কর্মকর্তা আরও বলেন, মামলাটির তদন্তভার পাওয়ার পর থেকে আমরা সবচেয়ে স্পর্শকাতর বিষয়গুলোকে গুরুত্ব ও প্রাধান্য দিয়ে নিবিড়ভাবে তদন্ত কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীসহ সংশ্লিষ্ট অনেকের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছি, যা তদন্তের প্রতিবেদন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
তিনি বলেন, তদন্তের স্বার্থে এই মুহূর্তে সবকিছু খোলাখুলিভাবে প্রকাশ করা সম্ভব নয়। তবে আগুনের সূত্রপাত ও পরবর্তীতে এতোগুলো মানুষের প্রাণহানি কেন হলো সেই প্রশ্নকে সামনে এনে আমরা তদন্ত কাজ করছি।
ইতোমধ্যে তদন্তের বেশ অগ্রগতি হয়েছে জানিয়ে সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন বলেন, আমরা আশা করছি সুস্পষ্ট তথ্য প্রমাণাদিসহ স্বল্প সময়ের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করতে সক্ষম হবো।
 
পরিচয় শনাক্ত হওয়া লাশগুলোর ব্যাপারে তিনি বলেন, ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে আমরা পঁয়তাল্লিশটি লাশের পরিচয় শনাক্ত করতে পেরেছি। বাকীগুলো খুব শিগগিরই ডিএনএ পরীক্ষা সম্পন্ন হবে। এই ডিএনএ টেস্ট সম্পন্ন হলে আমরা নিয়ম অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসকের কাছে লাশের পরিচয়সহ পূর্ণ তালিকা বুঝিয়ে দেব। পরে জেলা প্রশাসক সেই তালিকা অনুযায়ী ক্ষতিপূরণ প্রদানসহ নির্দিষ্ট স্বজনদের কাছে লাশগুলো হস্তান্তর করবেন।
এ ব্যাপারে সিআইডির নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন সময় নিউজকে বলেন, আমাদের উর্ধতন কর্তৃপক্ষ ও তদন্ত প্রধানের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা মাঠ পর্যায়ে তদন্ত কাজ করছি। যার কাছ থেকে যা যা তথ্য পেয়েছি সবগুলো গুরুত্ব সহকারে গ্রহণ করে তদন্ত কাজ করছি।
এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ সময় নিউজকে বলেন, সিআইডির ফরেনসিক বিভাগ লাশের পরিচয় শনাক্ত করেছে কিনা বিষয়টি আমাকে এখনও নিশ্চিত করে জানানো হয়নি। তবে সিআইডি যদি ডিএনএ টেস্টের মাধ্যমে সবার পরিচয় শনাক্ত করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করে আমারা একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে সেগুলো বুঝে নিয়ে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবো। লাশ দাফনের জন্য নিহত ব্যক্তির পরিবারকে সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ বাবদ ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বলেও জানান জেলা প্রশাসক।
গত ৮ জুলাই রূপগঞ্জ উপজেলার কর্ণগোপ এলাকায় হাসেম ফুড কারখানায় আগুনে পুড়ে ৪৮ ও ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে আরও ৩ জনের মৃত্যু হয়। ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত তিনজন ঢাকা মেডিকেলে মারা গেলে তাদের পরিচয় শনাক্ত হওয়ায় তখনই স্বজনদের কাছে লাশগুলো হস্তান্তর করা হয়। পরে ভবন থেকে উদ্ধার ৪৮ জনের লাশগুলো আগুনে এতটাই পুড়ে যায় যে দেখে চেনা বা শনাক্ত করা তখন সম্ভব হয়নি। যে কারণে ওই লাশগুলো ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে।
এদিকে, এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানার ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক নাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে কারখানার মালিক আবুল হাসেম, তার চার ছেলেসহ আটজনের বিরুদ্ধে রূপগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করলে ওই মামলায় গত ১০ জুলাই আবুল হাসেম, তার চার ছেলেসহ আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে মামলাটি অধিক তদন্তের জন্য পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়।
অপরদিকে, স্বজনরা এখন পর্যন্ত লাশ বুঝে না পেলেও হাসেম ফুড বেভারেজের মালিক আবুল হাসেম, ও তার চার ছেলে জামিনে মুক্তি  পেয়েছেন। হাসেম ফুডসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহান শাহ আজাদ, উপ-মহাব্যবস্থাপক মামুনুর রশিদ, সিভিল ইঞ্জিনিয়ার ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন বর্তমানে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে রয়েছেন।
... বিস্তারিত
দশ বছরের ভাইটাকেও সবশেষে হত্যা করে ঘাতকরা: শেখ হাসিনা

জাতির পিতার পরিবারের কেউ যেন আর বেঁচে না থাকে, পঁচাত্তরের পনেরই আগস্টে সেভাবেই পরিকল্পিতভাবে হত্যাকাণ্ড চালায় ঘাতকরা। দশ বছরের ভাইটাকেও সবশেষে হত্যা করে তারা। আবেগাপ্লুত কণ্ঠে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার (০১ আগস্ট) সকালে শোকাবহ আগস্টের সূচনাতে ধানমন্ডির বত্রিশ নম্বরে বাংলাদেশ কৃষক লীগ আয়োজিত রক্তদান ও অসচ্ছলদের জন্য খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
 

এসময় নিজ পরিবারের সদস্যদের হারানোর বেদনার কথা বলতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ঘাতকরা সেদিন মা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব, দুই ভাই,  ভাইয়ের বৌকে হত্যা করে। আবেগজড়ানো কণ্ঠে তিনি বলেন, দশ বছরের ছোট ভাইটাকেও সবশেষে হত্যা করে ঘাতকরা।
 
তিনি বলেন, সেদিনের হত্যাকাণ্ড কেবল একটি বাড়িতে হয়নি। সেদিন যুব নেতা শেখ ফজলুল হক মনিকে হত্যা করা হয়। কর্নেল জামিল, যিনি খবর পেয়ে ছুটে গিয়েছিলেন তাকেও হত্যা করা হয়। ঘাতকদের আক্রমণে সেদিন ফুফু ও ফুফাতো বোন বেঁচে গেলেও তারা আছেন পঙ্গু হয়ে।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, হত্যাকাণ্ডের সময় ছোট বোন শেখ রেহানা ও তিনি জার্মানিতে ছিলেন। ৩১ জুলাই সেখানে পৌঁছান তারা। আর ১৫ আগস্ট এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়। এমন কিছু ঘটতে পারে এবং এই দুঃসংবাদ পাবেন এটি ভাবতে পারেননি বলে উল্লেখ করেন তিনি। তবে, একটি আশঙ্কা ছিল বলেও জানান তিনি।
 
এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাওয়ার অধিকারও সেদিন ছিল না জানিয়ে গভীর দুঃখের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে এই হত্যাকাণ্ডের বিচার বন্ধ করা হয়েছিল। ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে বিচারের ব্যবস্থা করা হয় বলে জানান তিনি।
 
 
এসময় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, পনের আগস্টের হত্যাকাণ্ডের পর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের নাম পরিবর্তন করে ইসলামী রাষ্ট্র, বাংলাদেশ করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। তবে, এটি টিকাতে পারেনি তারা।
 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হয়েছে। তবে হত্যার পেছনে যে ষড়যন্ত্র রয়েছে, বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যের সেই ষড়যন্ত্রও একদিন উন্মোচিত হবে। জড়িতদের বিচার হবে জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, তবে তার আগে এদেশের মানুষের জীবনমান উন্নত করাই এখন প্রধান লক্ষ্য।
... বিস্তারিত
   সর্বশেষ
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কতটা প্রস্তুত বাংলাদেশ?
হামাসের নেতৃত্বে আবারও ইসমাইল হানিয়া
নারায়ণগঞ্জ অগ্নিকাণ্ড: ডিএনএ পরীক্ষায় ৪৫ জনের পরিচয় শনাক্ত
দশ বছরের ভাইটাকেও সবশেষে হত্যা করে ঘাতকরা: শেখ হাসিনা
ডেঙ্গু: মন্ত্রী দিলেন ভয়, মেয়রের অভয়
পার্বতীপুর সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ সেল্স এন্ড সোসাইটি লিমিটেডের বিতর্কিত
গণপরিবহণ চালু শ্রমিকদের জন্য
আটোয়ারীতে ২১ টি গাছসহ গাঁজা চাষি আটক
শামসুল আলম আনুর মৃত্যুতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শোক
শিল্প-কারখানা শ্রমিকদের সুবিধার্থে লঞ্চ চালু
   জাতীয়
নারায়ণগঞ্জ অগ্নিকাণ্ড: ডিএনএ পরীক্ষায় ৪৫ জনের পরিচয় শনাক্ত
দশ বছরের ভাইটাকেও সবশেষে হত্যা করে ঘাতকরা: শেখ হাসিনা
ডেঙ্গু: মন্ত্রী দিলেন ভয়, মেয়রের অভয়
শামসুল আলম আনুর মৃত্যুতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শোক
        'জাতীয়' - এর আরো খবর
   রাজনীতি
বিএনপির মিথ্যাচারের জবাব অনিচ্ছা সত্ত্বেও দিতে হয়: কাদের
টিকা আসছে, আসবে বলে মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছে সরকার খন্দকার মোশাররফ হোসেন।
আ.লীগ ফিনিক্স পাখির মতো জেগে উঠেছে’
তিন আসনের উপনির্বাচনে আ.লীগের ৯৪ মনোনয়ন ফরম বিক্রি
        'রাজনীতি' - এর আরো খবর
   আন্তর্জাতিক
হামাসের নেতৃত্বে আবারও ইসমাইল হানিয়া
মালদ্বীপের ইকনমিক্স মন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশের হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ
তালেবানের আক্রমণে দিশেহারা আফগান সেনাবাহিনী
মালদ্বীপের সর্বশেষ করোনা আপডেট ,
        'আন্তর্জাতিক' - এর আরো খবর
   অর্থ-বাণিজ্য
খুলনায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের প্রাক-বাজেট আলোচনা সভা
ময়মনংসিহরে ভালুকা উথুরা বাজারে অগ্রণী ব্যাংক এজেন্ট শাখার কার্যক্রম চালু
বর্ডারে চালের ট্রাক আটকে আছে, এলেই দাম কমবে: খাদ্যমন্ত্রী
মাথাপিছু জিডিপিতে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ
        'অর্থ-বাণিজ্য' - এর আরো খবর
   মুক্তিযুদ্ধ
অনলাইনে মিলবে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের ৩৮ সেবা
বীর বিক্রম আব্দুল খালেক আর নেই
১১৮১ জনের মুক্তিযোদ্ধা গেজেট বাতিল
নতুন করে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেলেন ১২৫৬ জন
        'মুক্তিযুদ্ধ' - এর আরো খবর
   জেলা সংবাদ
পার্বতীপুর সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ সেল্স এন্ড সোসাইটি লিমিটেডের বিতর্কিত
গণপরিবহণ চালু শ্রমিকদের জন্য
আটোয়ারীতে ২১ টি গাছসহ গাঁজা চাষি আটক
আরেক ভুঁইফোড় নেতা ‘দর্জি মনির’ আটক
        'জেলা সংবাদ' - এর আরো খবর
   খেলাধূলা
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কতটা প্রস্তুত বাংলাদেশ?
মুশফিককে ছাড়াই খেলতে হবে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ
বড় জয়ে টি-টোয়েন্টি মিশন শুরু টাইগারদের
সিরিজ জিতল টাইগাররা
        'খেলাধূলা' - এর আরো খবর
   ফিচার
চিকিৎসকের অবহেলায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের মৃত্যু
সিলেটের ওসমানীনগরে ভারতীয় নাসির বিড়িসহ আটক ২
মানবতার কল্যাণে বিজয়ের ইতিহাস স্মরণীয় হোক
অশ্লীলতাকে বর্জন করে যথার্থভাবে ইউটিউব চ্যানেল পরিচালিত হো
        'ফিচার' - এর আরো খবর
   দেশজুড়ে
কাদের মির্জার পাঠানো গরু-ছাগল ফেরত দিল কোম্পানীগঞ্জ থানা
কাদের মির্জার পাঠানো গরু-ছাগল ফেরত দিল কোম্পানীগঞ্জ থানা
ভদ্রবাবু’র দাম উঠল ১৫ লাখ
রোহিঙ্গা সংকট: সমাধানের আহ্বানে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে
        'দেশজুড়ে' - এর আরো খবর
   বিনোদন
শ্রাবন্তীকে রোশানের খোঁচা
টালিউডে অভিষেক হচ্ছে মিথিলার
মা-বাবাকে নিয়ে গান আসছে অন্তরালয়ের ব্যানারে
সেপ্টেম্বরে মা হচ্ছেন নুসরাত
        'বিনোদন' - এর আরো খবর
   তথ্য -প্রযুক্তি
ফেক নিউজ’ শেয়ার করলে প্রোফাইল পিকচার পরিবর্তন করবে ফেসবুক!
হোয়াটসঅ্যাপে এই লিংকগুলো ক্লিক করলেই বিপদ!
ফেসবুকে ফেরানো যাবে ডিলিট হওয়া পোস্ট
ছাগল চুরির ঘটনায় জড়িত নন, দাবী সাবেক ছাত্রলীগ নেতার
        'তথ্য -প্রযুক্তি' - এর আরো খবর
   চিত্র-বিচিত্র
কবর থেকে আওয়াজ এলো, `আমি এখনও বেঁচে আছি’
যেসব দেশে মহিলাদের পাশাপাশি পুরুষরা ‘হিজাব’ পরেন!
করোনা আতঙ্ক: গাঁজার জন্য দীর্ঘ লাইন!
বাংলাদেশের যে গ্রামে নেই কোনো নারী!
        'চিত্র-বিচিত্র' - এর আরো খবর
   স্বাস্থ্য
যে কারণে নারীদের গড় আয়ু পুরুষের চেয়ে বেশি
গ্রাম থেকে ১৪ দিন পর ঢাকায় ফেরার অনুরোধ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের
মাস্ক পরিধানে এবং খুলতে সাবধানতা
ওজন ও মেদ কমাতে পারে চাল কুমড়া
        'স্বাস্থ্য' - এর আরো খবর
   শিক্ষা
এসএসসি-এইচএসসি নিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে যা লেখা আছে
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন নিতে লাগ
এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা: কেমন হবে প্রশ্ন, নম্বর ও সময়
৫৪ হাজার বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ
        'শিক্ষা' - এর আরো খবর
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ হাজী মোবারক হোসেন।। সহ-সম্পাদক : কাউসার আহম্মেদ।সহ সম্পাদক মুশিদুল আলম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু। র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল, ফোন ০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]