| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বাংলাদেশ চাইলে আগামী নির্বাচনে সহায়তা দিতে প্রস্তুত জাতিসংঘ

  ঢাকায় জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো বলেছেন, বাংলাদেশ চাইলে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সহায়তা দিতে প্রস্তুত জাতিসংঘ। কোনো দেশ না চাইলে জাতিসংঘ সহায়তা দিতে পারে না। 

রোববার ফরেন সার্ভিস একাডেমি মিলনায়তনে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ডিকাব) আয়োজিত ‘ডিকাব টক’ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। সংগঠনটির সভাপতি পান্থ রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক একেএম মঈনউদ্দিন। 

 

জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশন, জলবায়ু সংকট, রোহিঙ্গা সংকট, জাতিসংঘ সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন ফ্রেমওয়ার্কসহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, ডিজিটাল স্পেসের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপের ক্ষেত্রে অবশ্যই সতর্ক ভারসাম্য রাখতে হবে। কেননা নিয়ন্ত্রণ আরোপের ফলে যেন মতপ্রকাশের অধিকার খর্ব না হয়। 

রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে সম্পৃক্তির লক্ষ্যে বিশ্বব্যাংকের বিতর্কিত নীতি সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া চাইলে সেপ্পো বলেন, জাতিসংঘ উদ্বাস্তু সংস্থা ইউএনএইচসিআর বিশ্বব্যাংকের অংশ। বিশ্বব্যাংকের গ্লোবাল পলিসি তাই জাতিসংঘের পলিসির সঙ্গে মিলে যায়। তবে মাঠ পর্যায়ে নীতির বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচন করতে পারে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কোনো দেশের সরকার সহায়তা না চাইলে জাতিসংঘ নির্বাচনী ব্যবস্থায় কোনো সহায়তা দিতে পারে না। বাংলাদেশ যদি অনুরোধ করে তবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও সহায়তা দিতে জাতিসংঘ প্রস্তুত।’ 

সেপ্পো বলেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে আমরা সুশীল সমাজের জন্য স্পেস প্রত্যাশা করি। গুমের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক কনভেনশন রয়েছে। বাংলাদেশ এই কনভেনশন রেটিফাই করুক এটাই প্রত্যাশা। মানবাধিকার পরিস্থিতি বিশেষ করে নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা, বৈষম্য নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। এটা অবশ্যই বৈশ্বিক উদ্বেগ। 

তিনি বলেন, মিয়ানমার নিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যে কোনো আলোচনায় রোহিঙ্গা ইস্যু অন্তর্ভুক্ত থাকা উচিত। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের দুটি দিক আছে। একটি রাজনৈতিক, অপরটি মানবিক। জাতিসংঘের তরফে এসব দেখাশোনার ভিন্ন ভিন্ন এজেন্সি রয়েছে। 

মিয়া সেপ্পো আরও বলেন, জাতিসংঘ শিগগিরই ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কার্যক্রম শুরু করবে। বাংলাদেশের বিভিন্ন এনজিও ইতোমধ্যে ওই চরে তাদের কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছে। ইউএনএইচসিআরের সঙ্গে বাংলাদেশের এ বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক সই হবে। তারপরই ভাসানচরে জাতিসংঘের উদ্বাস্তু সংস্থা যুক্ত হবে। তবে ঐতিহাসিক ভিন্নতার কারণে কক্সবাজার ও ভাসানচরে জাতিসংঘের ভূমিকা হবে ভিন্ন।

জাতিসংঘ প্রতিনিধি বলেন, বাংলাদেশের নিজস্ব চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও আমাদের সময়ের ট্র্যাজেডি রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে বাংলাদেশ তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। গত ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গা ঢলের চার বছর পূর্তির দিনটিকে অনেকে গণহত্যার স্মরণ দিবস হিসাবে পালন করেছেন। রোহিঙ্গা সংগঠনগুলো ২০১৭ সালের আগস্টে সংঘটিত ঘটনাকে গণহত্যা হিসাবে অভিহিত করে তা স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।   

তিনি বলেন, বিশ্বের এক ক্রান্তিলগ্নে এবার নেতাদের উপস্থিতিতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কোভিড-১৯ মহামারির কারণে ২০২০ সালে ভার্চুয়াল অধিবেশন হয়েছিল। তিনি মহামারি মোকাবিলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টা গ্রহণের জন্য বিশেষ আহ্বান জানান। এবারের অধিবেশন চলাকালে (২৩ সেপ্টেম্বর) ফুড সিস্টেম সামিট অনুষ্ঠিত হবে। মহামারি থেকে পুনরুদ্ধারের ক্ষেত্রে সম্মেলনের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। বাংলাদেশের জন্য এই সম্মেলন অত্যন্ত জরুরি।

এবারের অধিবেশনে জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয় গুরুত্ব পাবে বলে উল্লে­খ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের উপক‚লবর্তী অঞ্চলে জলবায়ু সংকটে ক্ষতি হচ্ছে। সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে ২০৫০ সাল নাগাদ বাংলাদেশের ১৭ শতাংশ ভূখণ্ড তলিয়ে যেতে পারে। এতে করে দুই কোটি মানুষ গৃহহারা হতে পারে। 

 
বাংলাদেশ চাইলে আগামী নির্বাচনে সহায়তা দিতে প্রস্তুত জাতিসংঘ
                                  

  ঢাকায় জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো বলেছেন, বাংলাদেশ চাইলে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সহায়তা দিতে প্রস্তুত জাতিসংঘ। কোনো দেশ না চাইলে জাতিসংঘ সহায়তা দিতে পারে না। 

রোববার ফরেন সার্ভিস একাডেমি মিলনায়তনে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ডিকাব) আয়োজিত ‘ডিকাব টক’ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। সংগঠনটির সভাপতি পান্থ রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক একেএম মঈনউদ্দিন। 

 

জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশন, জলবায়ু সংকট, রোহিঙ্গা সংকট, জাতিসংঘ সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন ফ্রেমওয়ার্কসহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, ডিজিটাল স্পেসের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপের ক্ষেত্রে অবশ্যই সতর্ক ভারসাম্য রাখতে হবে। কেননা নিয়ন্ত্রণ আরোপের ফলে যেন মতপ্রকাশের অধিকার খর্ব না হয়। 

রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে সম্পৃক্তির লক্ষ্যে বিশ্বব্যাংকের বিতর্কিত নীতি সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া চাইলে সেপ্পো বলেন, জাতিসংঘ উদ্বাস্তু সংস্থা ইউএনএইচসিআর বিশ্বব্যাংকের অংশ। বিশ্বব্যাংকের গ্লোবাল পলিসি তাই জাতিসংঘের পলিসির সঙ্গে মিলে যায়। তবে মাঠ পর্যায়ে নীতির বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচন করতে পারে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কোনো দেশের সরকার সহায়তা না চাইলে জাতিসংঘ নির্বাচনী ব্যবস্থায় কোনো সহায়তা দিতে পারে না। বাংলাদেশ যদি অনুরোধ করে তবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও সহায়তা দিতে জাতিসংঘ প্রস্তুত।’ 

সেপ্পো বলেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে আমরা সুশীল সমাজের জন্য স্পেস প্রত্যাশা করি। গুমের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক কনভেনশন রয়েছে। বাংলাদেশ এই কনভেনশন রেটিফাই করুক এটাই প্রত্যাশা। মানবাধিকার পরিস্থিতি বিশেষ করে নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা, বৈষম্য নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। এটা অবশ্যই বৈশ্বিক উদ্বেগ। 

তিনি বলেন, মিয়ানমার নিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যে কোনো আলোচনায় রোহিঙ্গা ইস্যু অন্তর্ভুক্ত থাকা উচিত। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের দুটি দিক আছে। একটি রাজনৈতিক, অপরটি মানবিক। জাতিসংঘের তরফে এসব দেখাশোনার ভিন্ন ভিন্ন এজেন্সি রয়েছে। 

মিয়া সেপ্পো আরও বলেন, জাতিসংঘ শিগগিরই ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কার্যক্রম শুরু করবে। বাংলাদেশের বিভিন্ন এনজিও ইতোমধ্যে ওই চরে তাদের কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছে। ইউএনএইচসিআরের সঙ্গে বাংলাদেশের এ বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক সই হবে। তারপরই ভাসানচরে জাতিসংঘের উদ্বাস্তু সংস্থা যুক্ত হবে। তবে ঐতিহাসিক ভিন্নতার কারণে কক্সবাজার ও ভাসানচরে জাতিসংঘের ভূমিকা হবে ভিন্ন।

জাতিসংঘ প্রতিনিধি বলেন, বাংলাদেশের নিজস্ব চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও আমাদের সময়ের ট্র্যাজেডি রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে বাংলাদেশ তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। গত ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গা ঢলের চার বছর পূর্তির দিনটিকে অনেকে গণহত্যার স্মরণ দিবস হিসাবে পালন করেছেন। রোহিঙ্গা সংগঠনগুলো ২০১৭ সালের আগস্টে সংঘটিত ঘটনাকে গণহত্যা হিসাবে অভিহিত করে তা স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।   

তিনি বলেন, বিশ্বের এক ক্রান্তিলগ্নে এবার নেতাদের উপস্থিতিতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কোভিড-১৯ মহামারির কারণে ২০২০ সালে ভার্চুয়াল অধিবেশন হয়েছিল। তিনি মহামারি মোকাবিলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টা গ্রহণের জন্য বিশেষ আহ্বান জানান। এবারের অধিবেশন চলাকালে (২৩ সেপ্টেম্বর) ফুড সিস্টেম সামিট অনুষ্ঠিত হবে। মহামারি থেকে পুনরুদ্ধারের ক্ষেত্রে সম্মেলনের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। বাংলাদেশের জন্য এই সম্মেলন অত্যন্ত জরুরি।

এবারের অধিবেশনে জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয় গুরুত্ব পাবে বলে উল্লে­খ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের উপক‚লবর্তী অঞ্চলে জলবায়ু সংকটে ক্ষতি হচ্ছে। সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে ২০৫০ সাল নাগাদ বাংলাদেশের ১৭ শতাংশ ভূখণ্ড তলিয়ে যেতে পারে। এতে করে দুই কোটি মানুষ গৃহহারা হতে পারে। 

 
আলোচনায় বড় বড় কথা, মাঠে নেই শীর্ষ নেতারা: বিএনপির বৈঠকে ক্ষোভ
                                  

দ্বিতীয় দিনের মতো বিএনপির রুদ্ধদ্বার বৈঠক চলছে রাজধানীর গুলশানে দলের চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে। এ সময় নেতারা দলটির হাইকমান্ডের কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আলোচনার টেবিলে অনেক বড় বড় কথা বলেন দলের শর্ষ নেতারা, কিন্তু আন্দোলন-সংগ্রাম-কর্মসূচিতে তাদের মাঠে পাওয়া যায় না। এমনকি আগে যেমন বিভাগীয় পর্যায়ে বড় সমাবেশ হতো কিন্তু এখন বিএনপির আন্দোলন বা কর্মসূচি প্রেসক্লাব নির্ভর হয়ে গেছে।বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বৈঠকে অংশ নিয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একাধিক নেতা সময় সংবাদকে এসব কথা জানান।

রুদ্ধদ্বার এ সিরিজ বৈঠকে উপস্থিত আছেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক, সম্পাদক, সহ-সম্পাদক, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব ও যুগ্ম মহাসচিব পর্যায়ের নেতারা।

ঢাকায় তৃণমূলের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ না হওয়ার কথা উল্লেখ করে নেতারা অভিযোগ করে বলেন, কারও এলাকা মোহাম্মদপুর কিন্তু তারা থাকেন মহাখালী। কেউ আবার কাটাবনে নিজ এলাকা রেখে থাকেন উত্তরা। এসব কারণে তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে অনেক সময় যোগাযোগ করা সম্ভব হয় না।এছাড়া আলোচনায় উঠে আসে আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি, সংগঠন পুনর্গঠন ও আগামী আন্দোলনের কর্মকৌশল কী হবে এসব বিষয়।

এসময় নেতারা বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচনে না যাওয়ার পক্ষে হাইকমান্ডের কাছে মতামত তুলে ধরেছেন বলে জানা গেছে। এমনকি দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের সময় নির্বাচনকালীন সরকার কেমন হবে এবং সেই সরকারের অধীনে বিএনপি অংশ নেবে কিনা; সেসব বিষয় উঠে আসে তাদের বক্তব্যে। একই সঙ্গে নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের দাবি আদায়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পরামর্শও দিয়েছেন তারা।

তবে সবকিছুর আগে দলীয় প্রধান বেগম জিয়ার মুক্তির বিষয়টি জোর তাগিদ দিয়েছেন। সেক্ষেত্রে আন্দোলনের বিকল্প নেই বলেও মতামত তুলে ধরেন নেতারা।

এছাড়াও জোট শরীক জামায়াত ইসলাম নিয়ে বিএনপির অবস্থান কী, তা পরিষ্কার করতে হাইকমান্ডের কাছে জানতে চান বৈঠকে উপস্থিত বেশ কয়েকজন নেতা। যেহেতু দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ছাড়াও বিভিন্ন মহলে জামায়াতের সঙ্গে বিএনপির সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা রয়েছে, সেহেতু এ বিষয়ে পরিষ্কার হওয়া জরুরি বলে মত দেন তারা।আগমীকাল বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টম্বর) অঙ্গসংগঠনের শর্ষ নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন দলটির হাইকমান্ড। তিন দিনের বৈঠক শেষে বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন দলটির বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল।

২০১৮ সালের ৩ ফ্রেব্রুয়ারি সর্বশেষ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি গঠিত হয়।

খালেদার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
                                  

নিজস্ব প্রতিনিধি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিত করে মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ কথা জানান। এরই মধ্যে তার দণ্ড স্থগিত করে মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানোর বিষয়ে মতামত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। খালেদা জিয়ার স্থায়ী মুক্তির আবেদনে মতামত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। এটির অগ্রগতি কতদূর জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার ছোট ভাই আমাদের কছে একটি আবেদন নিয়ে আসছিলেন। আমরা যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছিলাম। আপনারা জানেন, আমি বিদেশে ছিলাম। আমি এখনই ফিরেছি। আইন মন্ত্রণালয় যে অভিমত দিয়েছে, সে অনুযায়ী প্রক্রিয়া চলছে। আমি তো অফিসে মাত্রই আসলাম। প্রক্রিয়া কোন পর্যন্ত, আমি না জেনে বলতে পারব না।’ সেপ্টেম্বরের ২৪ তারিখ দণ্ড স্থগিতের সময় শেষ হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এটা প্রক্রিয়াধীন।’ প্রধানমন্ত্রী ১৭ তারিখে বিদেশে যাবেন, সেক্ষেত্রে আজকের দিনটিই আছে- এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা অপেক্ষা করুন। ইয়েস, নো- কোনোটাই তো আমরা বলতে পারব না। এটা প্রক্রিয়ায় আছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ওখানে যাবে। প্রক্রিয়াধীন আছে।’ দুটি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়া কারাবন্দি ছিলেন। নির্বাহী আদেশে খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিত রয়েছে। খালেদা জিয়ার নানা ধরনের শারীরিক জটিলতা রয়েছে। এর মধ্যে গত এপ্রিলে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। হাসপাতালে চিকিৎসাও নেন তিনি। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর তার দণ্ড স্থগিতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। এ অবস্থায় খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য মুক্তি চেয়ে কিছুদিন আগে তার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন। পরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে মতামতের জন্য আবেদনটি আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। গত ৭ সেপ্টেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে আবেদনের বিষয়ে মতামত দেয় আইন মন্ত্রণালয়। বিদেশে যাওয়া যাবে না এবং বাড়িতে বসে চিকিৎসা নিতে হবে- আগের মতো এ দুটি শর্তে তার দণ্ড স্থগিতের মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানোর বিষয়ে মত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। এখন এতে প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ থেকে খালেদা জিয়ার দণ্ড আরও ছয় মাস স্থগিত করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

নরসিংদী সদরে বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়ার পথে আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া
                                  

নরসিংদী সদর উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া। আজ সোমবার নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে তিনি ছাড়া আর কেউ মনোনয়নপত্র জমা দেননি। ফলে উপনির্বাচনে আর ভোটের দরকার হচ্ছে না।

আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া নরসিংদী সদর থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ও চিনিশপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে প্রথমে তাঁর নাম ঘোষণা করা হয়েছিল। পরে তাঁর নাম পরিবর্তন করে সেবার নরসিংদী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সফর আলী ভূঁইয়াকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। কেন্দ্রের ওই নির্দেশ মেনে নিয়ে সফর আলী ভূঁইয়ার পক্ষে সেবার কাজ করেছিলেন আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া।সদর উপজেলা পরিষদ কর্মকর্তারা জানান, গত ১৫ মার্চ রাত সাড়ে আটটার দিকে নরসিংদী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সফর আলী ভূঁইয়া (৭৮) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তাঁর মৃত্যুর পর পদটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। এর পর থেকে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কফিল উদ্দিন ভূঁইয়া। এই উপজেলা ১৪টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। বর্তমানে এই উপজেলায় মোট ভোটার ৪ লাখ ৮৯ হাজার ৫৯২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ২ লাখ ৪৮ হাজার ৬২৫ জন, নারী ২ লাখ ৪০ হাজার ৯৬৭ জন ও তৃতীয় লিঙ্গের ৭ জন রয়েছেন।গত ১৫ মার্চ রাত সাড়ে আটটার দিকে নরসিংদী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সফর আলী ভূঁইয়া (৭৮) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তাঁর মৃত্যুর পর পদটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে আজ শুধু আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় এই উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে না। তবে ১৪ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাই ও ১৯ সেপ্টেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। যাচাই–বাছাইয়ের পর প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হলে আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হবেন। আর প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা না করা হলে পুনরায় তফসিল ঘোষণা করা হবে।রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নরসিংদীর জ্যেষ্ঠ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মেছবাহ উদ্দিন বলেন, আগামী ৭ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনের সব ধরনের প্রস্তুতি ও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছিল। কিন্তু মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন আজ মাত্র একজন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেওয়ায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে না। মনোনয়নপত্র যাচাই–বাছাই ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের দিন পেরিয়ে গেলে বলা যাবে, এই প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হবেন নাকি পুনরায় তফসিল ঘোষণা করতে হবে।

সোনারগাঁয়ে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে মিছিল, সমাবেশ
                                  

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে আজ সোমবার মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সমর্থকেরা নির্বাচনী আচরণবিধি অমান্য করে মিছিল ও সমাবেশ করেছেন।

২০১৬ সালের ২১ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশনের সর্বশেষ প্রজ্ঞাপনের ১১ অনুচ্ছেদে মিছিল বা মহড়াসংক্রান্ত বাধানিষেধের ১ উপধারায় বলা আছে, মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও দাখিলের সময় কোনো মিছিল মহড়া করা যাবে না। প্রার্থী পাঁচজনের অধিক সমর্থক নিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমা দিতে পারবেন না।

কয়েক প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সোমবার উপনির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শামসুল ইসলাম ভূঁইয়ার সমর্থনে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে ট্রাক, ট্রলার ও বাসে করে কয়েক হাজার নেতা-কর্মী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে জড়ো হন। বেলা দুইটা থেকে এই নেতা-কর্মীরা ঢাকঢোল পিটিয়ে বিভিন্ন ব্যানার ও পোস্টার নিয়ে স্লোগান দিতে দিতে বিভিন্ন স্থান থেকে এসে উপজেলা পরিষদের মাঠে একত্র হন।

একপর্যায়ে বেলা তিনটায় উপজেলা পরিষদের মাঠে কয়েক হাজার নেতা-কর্মীর সামনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শামসুল ইসলাম ভূঁইয়া বক্তব্য দেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘আপনারা এভাবে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করবেন না। সবাই মিছিল বন্ধ করুন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক ব্যবহার করুন।’বিকেল চারটায় নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ এ কে এম শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সাবেক সাংসদ আবদুল্লাহ আল কায়সার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত বাদল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাসুদুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আবু জাফর চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপকমিটির সদস্য মাসুদ দুলাল, দীপক কুমারসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপজেলা পরিষদ মাঠে উপস্থিত হন। এ সময় নেতা-কর্মীদের সামনে সাংসদ শামীম ওসমান বক্তব্য দেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শামসুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, ‘আমি আমার সমর্থকদের কোনো মিছিল সমাবেশ না করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।’

নারায়ণগঞ্জ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সোনারগাঁ উপজেলা উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মতিয়ুর রহমান জানান, উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ছাড়া আর কোনো মনোনয়নপত্র জমা হয়নি। নির্বাচনী আচরণবিধি অমান্য করার ব্যাপারে কেউ কোনো অভিযোগপত্র দাখিল করেননি।

গত ২২ জুলাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন মারা যাওয়ায় সোনারগাঁ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের তফসিল অনুযায়ী আগামী ৭ অক্টোবর এ উপজেলায় ভোট নেওয়ার কথা ছিল। আওয়ামী লীগ প্রার্থী ছাড়া কেউ মনোনয়নপত্র দাখিল না করার কারণে এ উপজেলায় নির্বাচনের সম্ভাবনা নেই।

 

একই ভুল আবার করলে বিএনপি আরও ছোট হয়ে যবে: তথ্যমন্ত্রী
                                  

২০১৪ ও ২০১৮ সালে যে ভুল করেছে, সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি করলে বিএনপি আরও ছোট হয়ে যাবে। যেটা তাদের জন্য আত্মহননমূলক হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।


সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়, বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে- আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হতে হবে। না হলে তারা নির্বাচনে অংশ নেবে না এবং কোনো নির্বাচনও বাংলাদেশে হতে দেবে না। এ ধরনের একটা সতর্কবাণী তারা উচ্চারণ করছেন এ বিষয়টি কীভাবে দেখছেন?

এর উত্তরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, `বিএনপি এ ধরনের কথা ২০১৪ সালের বহু আগে থেকেই বলে আসছিল এবং ২০১৪ সালের নির্বাচন বানচাল করার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়েছিল। সে সময় তারা ৫০০ ভোটকেন্দ্র জ্বালিয়ে দিয়েছিল, ছাত্রছাত্রীদের নতুন বই পুড়িয়ে দিয়েছে। কারণ স্কুলগুলো ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল। আর সেখানে রক্ষিত ছিল বইগুলো।`

তিনি আরও বলেন, `সেই বই জ্বালিয়ে দিয়েছে বহু মানুষকে হত্যা করেছে, নির্বাচনী কর্মকর্তাদের হত্যা করেছে। এরপরও তারা নির্বাচন ঠেকাতে পারেনি, দেশে নির্বাচন হয়েছে। ২০১৮ সালেও নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা করা হয়েছিল। তখনও তারা এ ধরনের হুমকি-ধমকি দিয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে নির্বাচনে অংশ নিয়েছে।`
তিনি বলেন, ২০১৮ সালে নির্বাচনের শুরুতে তারা বানচালের দিকে না গিয়ে, শুরু থেকে সিরিয়াসলি নিয়ে অংশগ্রহণ করত, তাহলে হয়তো তারা আরও ভালো ফলাফল করতে পারত। বর্তমানে বিএনপির একই তর্জন-গর্জন শোনা যাচ্ছে, যখন নির্বাচনের বাকি সোয়া  দুই বছর। বিএনপিকে অনুরোধ জানাব, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে তারা যে ভুল করেছে, সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি করলে বিএনপি আসলে ছোট হয়ে আসছে, আরও ছোট হয়ে যাবে। যেটা তাদের জন্য আত্মহননমূলক হবে। যেটি ২০১৪ ও ২০১৮ সালে হয়েছিল।

ইউটিউবে যে পরিমাণ অশ্লীল কনটেন্ট দেখানো হয়, একই সঙ্গে রাষ্ট্রসহ সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হয়, সেগুলো বন্ধ করার কোনো সুযোগ আছে কি না, এ বিষয়ে তিনি বলেন, এগুলোর সার্ভিস প্রোভাইডার হচ্ছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ বা অন্যান্য যেসব প্ল্যাটফর্মে দেখানো হয় সেসকল কর্তৃপক্ষ।  

তিনি আরও বলেন, তাদের বলা হয় অনেক ক্ষেত্রে সারা পাওয়া যায়, অনেক ক্ষেত্রে সারা পাওয়া যায় না। সে কারণে আমরা আরও জোরাল ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সার্ভিস প্রোভাইডারের সঙ্গে আলোচনায় আছি। অনেকটা এগিয়ে এসেছে আমরা আশায় আছি। সরকারের পক্ষ থেকে ফেসবুকসহ অন্য প্লাটফর্মকে বলা হয়েছে বাংলাদেশে তাদের অফিস খোলার জন্য। বাংলাদেশে যখন এ সকল কোম্পানি নিবন্ধিত হবে, তখন বাংলাদেশের আইনানুযায়ী এ সমস্ত কনটেন্ট বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া অনেকটা সহজ হবে। এ ধরনের কনটেন্ট সরানো বা বন্ধ করার ক্ষেত্রে যে প্রতিবন্ধকতা আছে, সেগুলো দূর হবে।

 

 
শেষ হলো ‘কর্মজীবনের কর্মশালা’
                                  

সফলভাবে শেষ হলো ‘কর্মজীবনের কর্মশালা’র প্রশিক্ষণ। তরুণদের ক্যারিয়ার সম্পর্কে সচেতন করতে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ উপ-কমিটির উদ্যোগে এবং সেন্টার ফর রিসার্স অ্যান্ড ইনফর্মেশনের (সিআরআই) সহযোগিতায় ‘কর্মজীবনের কর্মশালা’ এর প্রথম এবং দ্বিতীয় ব্যাচের সফল সম্পন্নকারীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ‘যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন’ বিষয়ক কর্মশালা। একই সাথে শুরু হয়েছে তৃতীয় ব্যাচের রেজিস্ট্রেশন।আগ্রহীরা https://career.albd.org/ ঠিকানায় গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। ১২ এবং ১৩ সেপ্টেম্বর, দুইদিন বিকেল ৩টা থেকে শুরু হয় কর্মশালা’র মূল আয়োজন। সব অংশগ্রহণকারী মূল অনুষ্ঠানের আগেই জুম প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অনলাইনে অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

কর্মশালার শুরুতেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ উপ-কমিটির সন্মানিত সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা কর্মশালার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এ সময় তিনি বলেন, যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়টি ক্যারিয়ার এর সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আশা রাখি এ প্রশিক্ষণ থেকে সবাই খুবই উপকৃত হবেন। এরপর তিনি সবার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করে কর্মশালার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।কর্মজীবনের কর্মশালা আয়োজনটিতে সার্বিক সহযোগিতা করছে গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্স অ্যান্ড ইনফর্মেশন (সিআরআই)। যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক আয়োজন প্রসঙ্গে সিআরআইয়ের সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ বলেন, যোগাযোগ দক্ষতা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে এতটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ যে এ দক্ষতা না থাকলে কোনো কাজই কেউ সঠিক ও সহজভাবে করতে পারবেন না। এ দক্ষতা অর্জন করে আপনারা যাতে কর্মজীবনে সফল হতে পারেন সেই ইচ্ছা আর চেষ্টা থেকেই আজকের এই আয়োজন।

কর্মজীবনের কর্মশালার শুরু থেকেই যুক্ত আছেন তথ্যপ্রযুক্তিবিদ সুফি ফারুক ইবনে আবু বকর। কর্মশালাটি সম্পর্কে তিনি জানান, সঠিকভাবে যোগাযোগ করতে না পারার কারণে অনেক সুন্দর সুযোগ আমরা হারিয়ে ফেলি। আর নিজেদের ব্যর্থ মনে করে হতাশ হয়ে পড়ি। আজকের এ আয়োজন সেই সব বিষয় লক্ষ্য করেই করা হয়েছে।

কর্মশালার এদিনে অতিথি বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোহেলী সুলতানা সুমী। তিনি কর্মজীবনে প্রবেশের আগের সময়ে সবার যে মনস্তাত্ত্বিক সমস্যা তৈরি হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন এবং কী করলে একজন কর্মপ্রত্যাশী ব্যক্তি সব মনস্তাত্ত্বিক সমস্যা মোকাবিলা করে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেন সে বিষয়ে আলোচনা করেন।

যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চৌধুরী শোভন রফিক শুভ। অতিথি বক্তা হিসেবে এইদিন উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ। তিনি লিডারশিপ বা নেতৃত্ব কী, কীভাবে লিডার হওয়া যায়, একজন ভালো লিডারের বৈশিষ্ট্য ইত্যাদি নানা বিষয়ে বিস্তারিতভাবে উপস্থাপন করেন।

কর্মশালার কার্যক্রমের শেষ পর্যায়ে পরবর্তী কার্যক্রম প্রসঙ্গে তন্ময় বলেন, তৃতীয় ব্যাচের প্রাথমিক কাজ চলছে। খুব শিগগিরই আমরা তৃতীয় ব্যাচ শুরু করতে পারব। আমাদের রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া আবারও উন্মুক্ত করা হয়েছে। যারা রেজিস্ট্রেশন করতে আগ্রহী তারা এখন রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

বাংলাদেশে তৈরি হবে বিদেশি ব্র্যান্ডের গাড়ি: শিল্পমন্ত্রী
                                  

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, ২০২৪ সালের মধ্যে বাংলাদেশে হুন্দাই এর যাত্রীবাহী গাড়ি তৈরি হবে। এর ফলে দেশেই তুলনামূলক কম মূল্যে পাওয়া যাবে বিদেশি ব্রান্ডের গাড়ি। এ লক্ষ্যে হুন্দাই এবং ফেয়ার টেকনোলজি যৌথভাবে বাংলাদেশে হুন্দাই যাত্রীবাহী যানবাহন উৎপাদন কারখানা গড়ে তুলছে। গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কে এ কারখানা স্থাপন করা হবে।

রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর তেজগাঁওয়ের হুন্দাই থ্রি এস সেন্টারে  ফেয়ার গ্রুপ আয়োজিত ফেয়ার টেকনোলজিস-হুন্ডাই ‘থ্রি এস সেন্টার’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন।


শিল্পমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশীয় শিল্পের বিকাশের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানকে বাংলাদেশে কাজ করার সুযোগ দিচ্ছেন। ফলে এখন থেকে দেশেই বিক্রয়, বিক্রয় পরবর্তী সেবা এবং খুচরা যন্ত্রাংশ ক্রয়ের সুবিধা পাবেন গাড়ি প্রস্তুত ও বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকেরা।
ফেয়ার গ্রুপের চেয়ারম্যান রুহুল আমল আল মাহবুবের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ক্যাপ্টেন (অব.) এ বি তাজুল ইসলাম।

এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং-কিউন। অন্যদের মধ্যে ফেয়ার টেকনোলজি লিমিটেডের পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মুতাসিম দয়ান এবং ফেয়ার গ্রুপের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) হামিদ আর চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
জিয়ার লাশ ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে প্রমাণ দেওয়ার আহ্বান
                                  

রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের লাশ থাকলে ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে তা প্রমাণ করতে বিএনপিকে আহ্বান জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতার কবর আছে কি নেই এমন বিতর্কের মধ্যেই মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমানের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমান সেক্টর কমান্ডার হলেও মুজিবনগর সরকারের অধীনে যুদ্ধ করতে অস্বীকার করে বহিষ্কৃত হয়েছিলেন। পরে ক্ষমা চেয়ে পার পেয়ে যান।

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, যুদ্ধের সময় জিয়াউর রহমান জোনাল কমান্ডার ছিলেন। তিনিই একমাত্র ব্যক্তি, যিনি বলেছিলেন, আমরা সিভিল গভর্নমেন্টের অধীনে যুদ্ধ করব না। আমরা ওয়ার কাউন্সিলর হয়ে যুদ্ধ করতে চাই। সেজন্য তৎকালীন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এমএজি ওসমানী তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছিলেন। পরে জিয়াউর রহমান দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা প্রার্থনা করে দায়িত্বে পুনর্বহাল হন।

তবে এই দাবি ভিত্তিহীন মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় বিএনপির মহাসচিব বলেন, ক্ষমতাসীনরা দেউলিয়া হয়ে গেছে বলেই মুক্তিযুদ্ধে জিয়ার ভূমিকা ও তার লাশ নিয়ে কথা বলছে।মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ কেন এই কবর নিয়ে কথা বলছে? তারা কেন জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধে যোগদান বিষয়ে প্রশ্ন তুলছে? কারণ তাদের তো আর কিছু নেই! রাজনৈতিকভাবে তার দেউলিয়া হয়ে গেছে। কিছু দেওয়ার নেই। তাই আজ তারা এই ধরনের ইস্যু নিয়ে আসছেন।

আর মানুষের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে নিতেই সরকার নানা রকমের ইস্যু তৈরি করছে বলে দাবি করেন বিএনপি নেতারা।

সত্যের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে বিএনপিই আবোল-তাবোল বকছে: কাদের
                                  

সরকার নাকি দেউলিয়া হয়ে জিয়ার লাশ নিয়ে আবোল তাবোল বকছে - বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার নয়, জিয়ার লাশ নিয়ে ইতিহাসের অমোঘ সত্যের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে বিএনপিই আবোল-তাবোল বকছে।

শনিবার (০৪ সেপ্টেম্বর) ওবায়দুল কাদের তার বাসভবনে ব্রিফিংকালে একথা বলেন।


 
নির্বাচন ও আন্দোলনে জনগণ দ্বারা প্রত্যাখ্যাত হয়ে বিএনপি এখন হতাশার গভীর সাগরে নিমজ্জিত উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, `ক্ষমতা নির্ভর দল বিএনপি দীর্ঘদিন ক্ষমতায় না থাকায় হতাশ হতে হতে এখন আর তারা স্বাভাবিক রাজনীতি করতে পারছে না।`

 
বিএনপির এখন কোনো রাজনৈতিক কৌশল নেই, তাই তারা সরকারের বিষোদগার করতে গিয়ে হতাশ হয়ে আবোল তাবোল বলে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।
 

 
জিয়ার লাশ নিয়ে বিএনপি মহাসচিবকে সুনির্দিষ্ট প্রশ্ন করলে জবাব পাওয়া যায় না, এমন অভিযোগ করে ওবায়দুল কাদের আবারও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উদ্দেশে বলেন, `তিনি এ প্রসঙ্গ বারবার এড়িয়ে সামঞ্জস্যহীন জবাব দেন এবং স্বভাবসুলভ আবোল তাবোল বলেন।`
সরকার নাকি দুর্নীতির কারণে অধিক সংখ্যক মানুষকে করোনার টিকা দিতে ব্যর্থ, - বিএনপি মহাসচিবের এমন অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, `এটা তাদের চিরাচরিত কাল্পনিক অভিযোগ।`

 
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বিএনপি মহাসচিবের উদ্দেশে বলেন, `ঢালাওভাবে অভিযোগ না করে সুনির্দিষ্টভাবে তথ্য প্রমাণ দিন, কোথায় দুর্নীতি হচ্ছে বা হয়েছে।`

 
টিকা নিয়ে বিএনপি একেক সময় একেক রকম কথা বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

 
ওবায়দুল কাদের বলেন, `বিএনপির অনেকেই শুধু প্রথম ডোজ নয়, দ্বিতীয় ডোজও নিয়েছেন।`

 

দেশের জনগণ এখন টিকা পেতে শুরু করেছে এবং পর্যায়ক্রমে সবাই পাবে এটা দেখে বিএনপির গাত্রদাহ শুরু হয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, `আসলে বিএনপি তাদের নেতিবাচক রাজনীতির জন্য ভালো কিছু চোখে দেখে না।`

 
বিএনপির কোন পর্যায়ের কাউন্সিল কিংবা সম্মেলন সময় মত হয়েছে?  তাদের জাতীয় সম্মেলনও সময় মত হয়নি,যা অনেক আগেই পেরিয়ে গেছে,  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এতসব প্রশ্ন রেখে বলেন, `আগে আপনাদের নিজ দলের কথা ভাবুন?`
বঙ্গোপসাগরের সব পানি দিয়েও ১৫ আগস্টের কলঙ্ক মোচন হবে না’
                                  

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজির আহমেদ বলেছেন, ১৫ আগস্ট যে অভিশাপ তৈরি হয়েছে বঙ্গোপসাগরের সব পানি দিয়ে জাতির হাত ধুয়েও সেই কলঙ্ক মোচন হবে না।

ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে গোপালগঞ্জ জেলা সমিতি, ঢাকার উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস নিয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
 

আইজিপি বলেন, বঙ্গবন্ধু তার জীবন দিয়ে, আদর্শ দিয়ে আমাদের সামনে যে অভিজ্ঞান রেখে গেছে, আমাদের সবার লক্ষ্য হবে সেই বাংলাদেশ বিনির্মাণে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা।
 
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙালি জাতির জন্য ঈশ্বর প্রেরিত। বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেননি। নিজের জীবন উৎসর্গ করে তিনি কথা রেখেছেন। বঙ্গবন্ধুকে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আজ ১৮ কোটি মানুষের সামর্থ্য নিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা প্রমাণ করে দিয়েছেন বাংলাদেশ পৃথিবীর বুকে জন্ম নিয়েছে আত্মমর্যাদাশীল জাতি হিসেবে টিকে থাকার জন্য।তিনি আরও বলেন, আমরা পরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটি স্বাধীন আত্মমর্যাদাশীল জাতি প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম রেখে যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দৃপ্ত পদক্ষেপে অগ্রসর হচ্ছি।
৭৫ সালে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারাই প্রতিবাদ করেনি: নানক
                                  

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পরে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের কাছ থেকে প্রতিরোধ বা প্রতিবাদের ডাক আসেনি। আর প্রতিবাদের ডাক আসেনি বলে সেই সময় খুনিদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা যায়নি।

শনিবার (২৮ আগস্ট) ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ডেমরা থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় দোয়া মাহফিল ও ত্রাণ বিতরণ করা হয়।


বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান পাকিস্তানের গুপ্তচর ছিলেন দাবি করে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, `১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ড আমাদের জন্য চরম শিক্ষা। ৭৫ এর এ ঘটনা কেন ঘটল এটা খুঁজতে হলে ৭১ কে খুঁজতে হবে। জেনারেল জিয়া পাকিস্তানের গুপ্তচর হিসেবে মুক্তিযুদ্ধকে ধ্বংস করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ব্যর্থ জিয়া ও তার সকল সহযোগী স্বাধীনতা বিরোধীরা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পরিকল্পনা করে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার বোন শেখ রেহানা বিদেশে থাকায় প্রাণে বেঁচে যায়। `

তিনি বলেন, `বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের নিহত সকল সদস্যদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই। আর এ শিক্ষা নিয়েই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী-দেশপ্রেমিকদের দলের কর্মী বানাতে হবে। তাহলেই একটি আদর্শ দল হিসেবে আওয়ামী লীগ পুনর্গঠন হবে। আজকে শেখ হাসিনা বেঁচে আছেন বলেই তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বের দরবারে রোল মডেলে পরিচিতি পেয়েছে।
নানক বলেন, `বিএনপির নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, গোলাম আযম ও নিজামির নেতৃত্বে ২১ আগস্ট শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশে গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছিল।`

সরকারকে পরাজিত করতে হবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে নানক বলেন, `তারা আবারো এই ধরনের কর্মপরিকল্পনা করলে দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হবে।`
দলের নেতাকর্মীর উদ্দেশে তিনি বলেন, `দলের দুঃসময়ে নেতাকর্মীরা সব সময় দলের জন্য প্রস্তুত। তবে এজন্য দলের যোগ্য এবং ত্যাগী নেতাদের পদে স্থান দিতে হবে। মনে রাখতে হবে বিএনপি জামায়াতের মতাদর্শকারীরা যে দলে ঢুকে সে দল কখনোই দেশের জন্য সুফল বয়ে আনতে পারে না। আর ৭১ এর দালালরা এদেশে কখনোই তাদের উদ্দেশ্য সফল করতে পারবে না। বরং তাদের এদেশ থেকে চিরতরে উৎখাত করা হবে।`

নানক বলেন, `এখনো একটি কুচক্রী মহল শেখ হাসিনার উন্নয়নকে দূর্বার গতিকে বাধাগ্রস্ত করতে চাচ্ছে। কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গড়া বাংলাদেশের সুসংগটিত আওয়ামী লীগ ও এদেশের মানুষ ওই কুচক্রীদের কখনোই সফল হতে দেবে না। এদেশকে উন্নত দেশে রূপান্তর করতে কোনো বাধাই টিকে থাকতে পারবে না। আল্লাহর রহমতে দশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে উঠবে।`

ডেবরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম মাসুদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ুন কবির, ঢাকা ৫ আসনের এমপি মনিরুল ইসলাম মনুসহ ওয়ার্ড এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের নেতারা।
পুলিশি সেবা জনকল্যাণে পৌছে দিতে বিট পুলিশিং কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে - ওসি শাহ কামাল আকন্দ।।
                                  

আরিফ রববানী ময়মনসিংহ।। ময়মনসিংহ নগরীর মাদক,ছিনতাই,সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ নির্মুলের মাধ্যমে জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে পুলিশি সেবার মান কে জনকল্যাণে জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে দিতে বিট পুলিশিং কার্যক্রম কে শক্তিশালী করার লক্ষে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬শে আগষ্ট) বিকালে নগরীর আকুয়াস্থ ১২নং বিট পুলিশিং কার্যালয়ের প্রাঙ্গণে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল বলা উদ্দিন বলেন, বিট পুলিশিং কার্যক্রম নিয়ে সমাজের সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সর্বস্তরের মানুষের সার্বিক সহযোগিতায় সব ধরনের অপরাধ প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বিট পুলিশিং কার্যক্রম। পুলিশি সেবা আরও গতিশীল ও কার্যকরের লক্ষ্যে জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কার্যক্রমসহ কমিউনিটি পুলিশের ন্যায় বিট পুলিশিংয়ের ফলে এলাকার অপরাধী এবং অপরাধের প্রকৃতি সম্পর্কে দ্রুত বিস্তারিত জানা যাবে। পাশাপাশি স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে পুলিশের বন্ধুত্বপূর্ণ মনোভাব সৃষ্টি হবে। পুলিশের জন্য এলাকার বিভিন্ন বিষয়ে তথ্য জানাসহ অপরাধ দমন ও সহজে রহস্য উৎঘাটন করা যাবে। কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শাহ কামাল আকন্দ বলেন, কোতয়ালিতে ইতিমধ্যে অর্ধশতাধিকের বেশী বিটে ভাগ করে বিট পুলিশং কর্মকর্তা নিযুক্ত হয়েছে। এখন জনসাধারণ তার বাসায় থেকেই পুলিশিং সেবাটা দ্রুত পেয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে তার থানার দারস্থ না হলেও চলবে। কারণ নিজ নিজ এলাকার গন্ডির মধ্যেই বিট পুলিশিংয়ের দপ্তর রয়েছে। এদিকে, বীট পুলিশিং কার্যক্রম নিয়ে অনুসন্ধানসূত্রে জানা গেছে, এটি একটি নির্দিষ্ট এলাকায় কিছু নির্দিষ্ট সংখ্যক বা বিশেষ পুলিশ সদস্যদের স্থায়ীভাবে দায়িত্ব নিয়োজিত করা। এলাকাগুলোকে কয়েকটি বিটে ভাগ করে বিট পুলিশিং দপ্তর তৈরী করা হয়েছে। অত্র এলাকাগুলোতে কিছু সংখ্যক পুলিশ অফিসার ঊর্ধতন কর্মকর্তাদের প্রত্যক্ষ নিয়ন্ত্রণের বাইরে থেকে নিজস্ব বিবেচনা শক্তি প্রয়োগ করে সেই এলাকায় পুলিশিং সেবা প্রদান করে থাকে। এক্ষেত্রে তার নির্ধারিত এলাকার মাদক নির্মুলে ও বখাটেদের অত্যাচারসহ যেকোন অপরাধ ও সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে এলাকাবাসীর নিকট গৃহ-ডাক্তারের মতোই কাজ করে। এতে করে দেশে এখন অপরাধের মাত্রা তুলনামূলকভাবে কম। আর অপরাধ সংগঠিত হবার আগেই তা নিয়ন্ত্রনের ব্যবস্থা করা হয়। ঠিক একইভাবে বর্তমানে ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানা এলাকার অপরাধের মাত্রা কমিয়ে আনার লক্ষ্যে পুলিশিং কার্যক্রমকে আরো ক্ষুদ্র আকারে জনগনের মাঝে পৌঁছে দেয়ার জন্যই কয়েকটি এলাকা নিয়ে গঠন করা হয়েছে বিট পুলিশিং কার্যক্রম। তিনি বলেন আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে তৃর্ণমুলের প্রান্তিক জনগণের মাঝে পুলিশি সেবা জনকল্যাণে জনগণের দোরগোড়ায় ছড়িয়ে দেওয়া। এসময় কোতোয়ালী মডেল থানাধীন ১২ নং বিট (১২নং ওয়ার্ড) আকুয়া এলাকার অপরাধ প্রতিরোধের লক্ষে স্থানীয় জনসাধারণকে পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা প্রদান করেন কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শাহ কামাল আকন্দ। এসময় উপস্থিত ছিলেন সহ সংশ্লিষ্ট বিটের দায়িত্বরত কর্মকর্তা রাসেদুল হাসান ও অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তাগগন ও কমিউনিটি পুলিশ কমিটির নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা।

জিয়া ‘বাইচান্স’ মুক্তিযোদ্ধা: কাদের
                                  

বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে বাইচান্স মুক্তিযোদ্ধা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।বুধবার (২৫ আগস্ট) বিকেলে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক উপ কমিটি আয়োজিত শোক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট জিয়া সহযোগিতা না করলে এ হত্যাকাণ্ড ঘটত না। তিনি প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হলে হত্যায় সহায়তা করতে পারতেন না। খুনিদের পুরস্কৃত করে বিদেশে পুনর্বাসন করতে পারতেন না।

এসময় তিনি আরও বলেন, দেশে সাম্প্রদায়িক রাজনীতির বিশ্বাসযোগ্য ও নির্ভরযোগ্য ঠিকানা হচ্ছে বিএনপি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন আমি নাকি প্রতিদিনই জিয়াকে আক্রমণ করে কথা বলি। আমাকে এ বিষয়ে কথা বলতেই হবে। কারণ এ বিষয়ের সঙ্গে আমাদের আচ্ছন্ন সম্পর্ক আছে, আন্তঃসম্পর্ক আছে।

১৫ আগস্টের পর ২১ আগস্টের ঘটনা আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে রাজনৈতিক দেয়াল তৈরি করে দিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

এ সময় তিনি বলেন, বিশ্বাস ঘাতকতা ও সাম্প্রদায়িকতা শুরু হয়েছে জিয়ার আমল থেকে।সরকারের উন্নয়ন প্রকল্পগুলো তাদের গাত্রদাহের অন্যতম কারণ। বাংলাদেশকে শেখ হাসিনা উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে যাচ্ছেন সেটি তাদের গায়ের জ্বালা, বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনা গোটা বিশ্বকে বদলে দিয়েছে কিন্তু বিএনপি বদলায়নি। তাদের সাম্প্রদায়িকতাও বদলায়নি।

অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস, আওয়ামী লীগ নেতা ও ঢাকা ২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলন। এছাড়া আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, আইন বিষয়ক সম্পাদক কাজী নজিবুল্লাহ হিরুসহ  আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। 

আই‌সিইউ‌তে রওশন এরশাদ
                                  

শারী‌রিক অবস্থার অবন‌তি হওয়ায় সংস‌দের বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হ‌য়েছে।সোমবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে রওশন এরশা‌দের সহকারী একান্ত স‌চিব মামুন হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, `বিরোধীদলীয় নেতার করোনাজনিত সমস্যা না থাকলেও  ফুসফুসে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ বৃদ্ধিজনিত সমস্যা রয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।’

শনিবার (১৪ আগস্ট) রাতে তাকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক (সিএমএইচ) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

রওশন এরশাদের ছে‌লে রাহগীর আলমাহি সাদ এরশাদ বিরোধীদলীয় নেতার আরোগ্য কামনায় দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

এর আগে গত ৩০ এপ্রিল রাতে রওশন এরশাদের পানিশূন্যতা দেখা দিলে তাকে সিএমএইচ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ২৪ দিন চিকিৎসা শেষে ২৩ মে তিনি বাসায় ফেরেন।

খালেদা জিয়ার করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ বুধবার
                                  

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া বুধবার (১৮ আগস্ট) করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করবেন। এদিন দুপুর ২টায় রাজধানীর মহাখালীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করবেন তিনি।

এর আগে করোনামুক্ত হওয়ার ২ মাস ১৩ দিন পর গত ১৯ জুলাই করোনার টিকার প্রথম ডোজ নেন বিএনপি চেয়ারপার্সন। ওইদিন চিকিৎসকদের পরীক্ষানিরীক্ষা শেষে বিকেল ৪টায় রাজধানীর গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের টিকা কেন্দ্রে তিনি মডার্নার টিকা নেন।

খালেদা জিয়া গত ৯ জুলাই ‘সুরক্ষা’ ওয়েবসাইটে টিকার জন্য নিবন্ধন ফরম পূরণ করেন। ৯ দিন পর টিকা নেওয়ার নির্ধারিত তারিখ উল্লেখ করে তাকে এসএমএস দেওয়া হয়।

চলতি বছর ১৪ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। প্রথমে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নেন তিনি। পরে নানা শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে ২৭ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে গত ৯ মে তার করোনা পরীক্ষায় ‘নেগেটিভ’ আসে। তারপরও শারীরিক সমস্যা থাকায় প্রায় দেড় মাস তাকে হাসপাতালে থাকতে হয়।

সেখানে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। শ্বাসকষ্টের কারণে মাঝে কিছুদিন তাকে সিসিইউতেও রাখা হয়।

৫২ দিনের চিকিৎসা শেষে ১৯ জুন রাতে গুলশানের বাসা ফিরোজায় ফেরেন তিনি। এতদিন বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

দুর্নীতির দুই মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বেগম জিয়া গত বছরের ২৫ মার্চ শর্ত সাপেক্ষে মুক্তি পান। এরপর তার মুক্তির মেয়াদ তিন দফা বাড়ানো হয়।

 

   Page 1 of 27
     রাজনীতি
বাংলাদেশ চাইলে আগামী নির্বাচনে সহায়তা দিতে প্রস্তুত জাতিসংঘ
.............................................................................................
আলোচনায় বড় বড় কথা, মাঠে নেই শীর্ষ নেতারা: বিএনপির বৈঠকে ক্ষোভ
.............................................................................................
খালেদার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
নরসিংদী সদরে বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়ার পথে আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া
.............................................................................................
সোনারগাঁয়ে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে মিছিল, সমাবেশ
.............................................................................................
একই ভুল আবার করলে বিএনপি আরও ছোট হয়ে যবে: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
শেষ হলো ‘কর্মজীবনের কর্মশালা’
.............................................................................................
বাংলাদেশে তৈরি হবে বিদেশি ব্র্যান্ডের গাড়ি: শিল্পমন্ত্রী
.............................................................................................
জিয়ার লাশ ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে প্রমাণ দেওয়ার আহ্বান
.............................................................................................
সত্যের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে বিএনপিই আবোল-তাবোল বকছে: কাদের
.............................................................................................
বঙ্গোপসাগরের সব পানি দিয়েও ১৫ আগস্টের কলঙ্ক মোচন হবে না’
.............................................................................................
৭৫ সালে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারাই প্রতিবাদ করেনি: নানক
.............................................................................................
পুলিশি সেবা জনকল্যাণে পৌছে দিতে বিট পুলিশিং কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে - ওসি শাহ কামাল আকন্দ।।
.............................................................................................
জিয়া ‘বাইচান্স’ মুক্তিযোদ্ধা: কাদের
.............................................................................................
আই‌সিইউ‌তে রওশন এরশাদ
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ বুধবার
.............................................................................................
হেফাজতকাণ্ড: জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরীর জামিন স্থগিত
.............................................................................................
গণটিকার কর্মসূচি দলীয় কর্মসূচিতে পরিণত হয়েছে’মির্জা ফখরুল
.............................................................................................
বিএনপির মিথ্যাচারের জবাব অনিচ্ছা সত্ত্বেও দিতে হয়: কাদের
.............................................................................................
টিকা আসছে, আসবে বলে মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছে সরকার খন্দকার মোশাররফ হোসেন।
.............................................................................................
আ.লীগ ফিনিক্স পাখির মতো জেগে উঠেছে’
.............................................................................................
তিন আসনের উপনির্বাচনে আ.লীগের ৯৪ মনোনয়ন ফরম বিক্রি
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার কিডনি ও লিভার ঠিকমতো কাজ করছে না:
.............................................................................................
আ.লীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিগুলোর সম্মেলন শিগগিরই: কাদের
.............................................................................................
যারা দানবীয় আচরণ করেছিল তারাই এখন উসকানি দিচ্ছে: কাদের
.............................................................................................
রিজভীকে দেখতে গেলেন মির্জা ফখরুল
.............................................................................................
হেফাজত নেতাদের ওয়াজের ভিডিও খুঁজছে পুলিশ
.............................................................................................
চট্টগ্রামে নুরুর বিরুদ্ধে আরেক মামলা
.............................................................................................
দুধ দিয়ে সাপ পুষলে তার ফল শুভ হয় না: ১৪ দল
.............................................................................................
ইলিয়াসকে ‘গুমের পেছনে বিএনপির কেউ’, ইঙ্গিত মির্জা আব্বাসের
.............................................................................................
লোক দেখানো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিএনপির
.............................................................................................
ছাত্রদল কেন্দ্রিয় সংসদ কর্তৃক ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রদলের সদ্য ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।
.............................................................................................
আমি জেলে যেতে প্রস্তুতঃ কাদের মির্জা
.............................................................................................
বিএনপি নেতার বক্তব্যে খুনের রাজনীতি স্পষ্ট : কাদের
.............................................................................................
বিএনপি নেতার উসকানিমূলক বক্তব্যটি কি দলীয়, প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের
.............................................................................................
নৌকা ১৬ ধানের শীষ ৯৮১
.............................................................................................
ছাত্রদলের তিন নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ
.............................................................................................
১নং উথুরা ইউনিয়ন যুব মহিলা লীগ কমিটি নিয়ে বির্তকিত ক্ষিপ্ত নেতার্কমীরা
.............................................................................................
মাতৃভাষা দিবসে যেসব কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিএনপি
.............................................................................................
খালেদা জিয়া অসুস্থ, শুনানি পিছিয়ে ২ মার্চ
.............................................................................................
গোলাপগঞ্জে ওয়ার্ড বিএনপির কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
ওসির গাড়ি থেকে নিখোঁজ স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী, থানা ঘেরাও
.............................................................................................
মহেশপুরে বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল
.............................................................................................
ঝিনাইদহে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
কল্যাণ পার্টির নৈশভোজ বাতিল
.............................................................................................
দেশে-বিদেশে গণতন্ত্রবিরোধী অপশক্তি এখনো সক্রিয়: সেতুমন্ত্রী কাদের
.............................................................................................
গৌরীপুর পৌর নির্বাচনে সাংবাদিকের ওপর হামলা
.............................................................................................
বিএনপির হাত ধরেই দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতি চালু: কাদের
.............................................................................................
দুঃসময়ের কর্মীদের প্রাধান্য দেয়ার নির্দেশ কাদেরের
.............................................................................................
উপজেলা ও ইউপি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী যারা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু। র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল, ফোন ০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, রেজিস্ট্রেশন নং 134 / নিবন্ধন নং 69 মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop