| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   বিনোদন -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
দর্শককে ঠকায় না বলেই ইত্যাদি আলাদা, অনবদ্য

এখন কন্টেন্টের যুগ। অথচ ইত্যাদি যখন শুরু হয়েছিল তখন ঘরে মাত্র একটি টেলিভিশন ছিল, বিটিভি। তখনও কেউ কেউ বলতেন, একটাই টেলিভিশন, বেশিদিন জনপ্রিয়তা টিকবে না। অথচ ইত্যাদির জন্য আমি আমরা দেখেছি অনুষ্ঠান শুরুর অন্তত ১০ মিনিট আগে টিভির সামনে সিনেমা শুরুর মতো করে বসে আছেন দর্শকরা! এরপর স্যাটেলাইট যুগ এলো। গুটিকতক ঈর্ষাকাতর নিন্দুক এবারও ভবিষ্যতবাণী করলেন, শেষ! ইত্যাদি এবার পড়ে যাবে! ঐ বিটিভির ট্রান্সমিশন এখন বেশি তো তাই! কতদিন আর মান ধরে রাখবেন তিনি। সম্ভব না।

ইত্যাদি পড়েনি, বরং সময়ের সাথে সাথে এর গুণগত মান বেড়েছে। বেড়েছে নান্দনিকতা। আর প্রযুক্তির সময়োপযোগী সংযোজন। দর্শককে না ঠকিয়ে এর রসদ জোগানোটা কঠিন এক অধ্যাবশায়ের কাজ। ইত্যাদি তা করেছে।

এখন মিডিয়ার বাহুল্যের যুগ। হাতে হাতে গণমাধ্যম। দর্শক চোখের বিরাম নেই। দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে সারাবিশ্বের কন্টেন্ট নিয়ে এখন আমরা নিজেদের কন্টেন্টকে বিচার করি। যথারীতি কেউ কেউ বলেছিলেন, ইত্যাদি কী টিকবে? অথচ ইত্যাদি গত কয়েক বছর ধরে ডিজিটাল প্লাটফর্মে পোস্ট হলেই তা ইউটিউব ট্রেন্ডিংয়ে ১ নম্বরে থাকে। ইত্যাদির প্রাণপুরুষ দেশবরেণ্য গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব হানিফ সংকেতকে এর রহস্যের কথা জানতে চাইলে বলেন, ‘দর্শকের সাথে আমি সত্য থাকি। দর্শকদের ভালোবাসাই আমার শক্তি।’ সত্যিই তাই। তবে ভাবনার প্রকার ও প্রকাশ থাকে তার। ঈদ ইত্যাদির ১ ঘণ্টা ১২ মিনিটে ২২টি কন্টেন্ট দেখিয়েছেন নির্মাতা। এই পুরো সময়টাতে একবারের জন্যও মনে হয়নি যে, অনুষ্ঠানে খানিক বিরতির প্রয়োজন। এটিই একজন নির্মাতার স্বার্থকতা।

শুরুতে কাজী নজরুল ইসলামের ‘ও মোর রমজানের ঐ রোজার শেষে’ গানটির নতুন সংগীতায়োজন ও চিত্রায়ণে অনবদ্য পরিবেশনা দি‌েই শুরু হলো। ইত্যাদি দীর্ঘদিন যাবত্ ভিন্ন ভিন্ন কম্পোজিশনে, ভিন্ন ভিন্ন কোরিওগ্রাফিতে এই গানটির পরিবেশনা করে আসছে। এই কালজয়ী গানের বড় আর্কাইভ হলো ইত্যাদি। তবে এবারের বাড়তি যোগ ছিল এই গানের অংশগ্রহণকারীরা ছিলেন করোনাযুদ্ধে অংশ নেওয়া ২ শতাধিক করোনাযোদ্ধা। দারুণ এই আইডিয়ার জন্য আলাদা ধন্যবাদ পেতেই পারেন হানিফ সংকেত। আকর্ষণীয় স্কিডটি ছিল ভুঁইফোঁড় ইউটিউবারদের অত্যাচারে একে অপরকে বয়কট নিয়ে অন্তর্দ্বন্দ্ব। পুরো সেগমেন্টটি এতটাই বাস্তবতার সাথে মিল, যা সাম্প্রতিক সময়ের চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কোন্দলকে মনে করিয়ে দিলো।

ঈদ বাজারে দুনী‌র্তিবাজের চরিত্রে অভিনেতা পলাশের অভিনয় নজরকাড়ে। গানে গানে ঈদের একাল সেকাল পর্বে তারিন-ফেরদৌস ছিল ইত্যাদির নিয়মিত প্যাটার্নেই। তবে দারুণ নজর কেড়েছে এবারের দর্শকপর্ব। অপূর্ব-পূর্ণিমার মতো জনপ্রিয় তারকাদের অভিনয়ের সাথে সঙ্গতি রেখে এতটা সাবলীল অভিনয় করেছেন অতিথি দর্শকরা, তা মুগ্ধ করেছে দর্শকচোখ।

এবারের ইত্যাদির দুর্দান্ত স্কিড ছিল মোবাইলে পাত্র দেখার বিষয়টি। অতি লোভে তাঁতী নষ্ট এই মোরাল স্টোরিটা এত সুন্দর আর হিউমার দিয়ে বুঝিয়েছেন, যা সত্যিই অনবদ্য। ইত্যাদির দীর্ঘ কয়েক পর্বে আমরা গ্রিস এর নানা তথ্যবহুল ভ্রমণচিত্র দেখছিলাম। তবে সেরা সেগমেন্টটি হয়তো নির্মাতা ঈদের জন্য সঞ্চয় করে রেখেছিলেন। দারুণ সাবলীল অভিনয় আর স্ক্রিপ্টের রশদ মনে করিয়ে দেয়, এই কারণেই ইত্যাদি আলাদা। মেধাদীপ্ত রসবোধের ভেতর দিয়ে সমাজের অসঙ্গতি তুলে ধরার এই আয়োজন আর কোথাও নেই। এছাড়াও ভীষণ সময়োপযোগী পর্ব ছিল মামা-ভাগ্নে এপিসোডে বর্তমান সময়ে মানহীন বাংলা গান যে হারে ভাইরাল হচ্ছে, তা তুলে ধরার বিষয়টা। আমাদের যে রুচির স্খলন হয়েছে তা এই অনুষ্ঠান যেখানে তুলে ধরে। একইভাবে হাসপাতালে নেতার আগমনে হাস্যরসের সাথে তীব্র ব্যঙ্গ ছিল। অনেকদিন পর শিবলী-নিপার পরিবেশনা ছিল অনবদ্য এক সংযোজন। শুধু এই একটি নৃত্যনাট্য দিয়েই অনেকে একটি গোটা অনুষ্ঠান করে ফেলতে পারেন। যথারীতি এই বরেণ্য জুটি তাদের নিজেদের স্বাক্ষর রাখলেন। সঙ্গে গুণী অভিনয়শিল্পী দিলারা জামান, আবুল হায়াত, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়ের অভিনয় মন্ত্রমুগ্ধতা এনেছে। গানে সম্প্রতি দারুণ এক জুটিতে পরিণত হয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী ও মেহের আফরোজ শাওন। তাদের কণ্ঠে এবারের ইত্যাদির পরিবেশনা ছিল সাবলীল। সিয়াম-পূজার পরিবেশনা ছিল যথাযথ ঈদ সংযুক্তি।

শেষে দর্শক হিসেবে অপেক্ষায় ছিলাম বিদেশিদের অংশগ্রহণে নাটিকার। কারণ করোনার কারণে এই পর্ব মিস করেছি খুব। উপস্হাপক সেই কারণটিও ব্যাখ্যা করলেন দারুণভাবে। নাটিকাটি যথারীতি মেসেজ ধর্মী এবং দারুণ অভিনয়। কোনো কোনো বিদেশিনীর ফলস লুক চোখে পড়লেও সেগুলোও দেখতে দারুণ নির্মল লেগেছে। শেষে কোরাস ড্রান্স আর ঢাকার কোকিলে গানটিতে নৃত্য পরিবেশনা যেন সবটুকু মিলিয়ে মাখন হয়ে গেছে।

নানি-নাতি পর্বের একটি বিশেষ শব্দ দারুণ লাগলো। তা হলো-‘এখন তো অ্যাওয়ার্ডও হোম ডেলিভারি দেওয়া হয়।’ নির্মাতার সমাজ সচেতনতা ও বিভিন্ন অসঙ্গতিগুলো কতটা সূক্ষ্ম হতে পারে তা ঐ একটি শব্দে বুঝিয়ে দিয়েছেন, এ কারণেই তিনি হানিফ সংকেত। কারণ সাম্প্রতিককালে অ্যাওয়ার্ড তারকার ঘরে পৌঁছে দিয়ে সাজানো নাটকীয়তায় তারকাদের উচ্ছ্বাস রেকর্ড করার মতো প্রবণতা তৈরি হয়েছে। সেটিই নানি-নাতি পর্বে দারুণ সূক্ষ্মভাবে উপস্হাপন করলেন। অনুষ্ঠান রিভিউয়ে জোর করে সমালোচক চোখ হয়তো দুয়েকটা অনিচ্ছার ভুল তুলতেই পারবেন। কিন্তু সাবলীল এক দর্শকের চোখে এবারের ঈদ ইত্যাদি গত ৩৪ বছরের ইত্যাদির আর্কাইভের সেরা সংকলন করলে অন্যতম সেরা বলে বলে সংরক্ষিত থাকা উচিত। দর্শক হিসেবে কৃতজ্ঞতা ইত্যাদিও প্রতি। ধন্যবাদ হানিফ সংকেত।

দর্শককে ঠকায় না বলেই ইত্যাদি আলাদা, অনবদ্য
                                  

এখন কন্টেন্টের যুগ। অথচ ইত্যাদি যখন শুরু হয়েছিল তখন ঘরে মাত্র একটি টেলিভিশন ছিল, বিটিভি। তখনও কেউ কেউ বলতেন, একটাই টেলিভিশন, বেশিদিন জনপ্রিয়তা টিকবে না। অথচ ইত্যাদির জন্য আমি আমরা দেখেছি অনুষ্ঠান শুরুর অন্তত ১০ মিনিট আগে টিভির সামনে সিনেমা শুরুর মতো করে বসে আছেন দর্শকরা! এরপর স্যাটেলাইট যুগ এলো। গুটিকতক ঈর্ষাকাতর নিন্দুক এবারও ভবিষ্যতবাণী করলেন, শেষ! ইত্যাদি এবার পড়ে যাবে! ঐ বিটিভির ট্রান্সমিশন এখন বেশি তো তাই! কতদিন আর মান ধরে রাখবেন তিনি। সম্ভব না।

ইত্যাদি পড়েনি, বরং সময়ের সাথে সাথে এর গুণগত মান বেড়েছে। বেড়েছে নান্দনিকতা। আর প্রযুক্তির সময়োপযোগী সংযোজন। দর্শককে না ঠকিয়ে এর রসদ জোগানোটা কঠিন এক অধ্যাবশায়ের কাজ। ইত্যাদি তা করেছে।

এখন মিডিয়ার বাহুল্যের যুগ। হাতে হাতে গণমাধ্যম। দর্শক চোখের বিরাম নেই। দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে সারাবিশ্বের কন্টেন্ট নিয়ে এখন আমরা নিজেদের কন্টেন্টকে বিচার করি। যথারীতি কেউ কেউ বলেছিলেন, ইত্যাদি কী টিকবে? অথচ ইত্যাদি গত কয়েক বছর ধরে ডিজিটাল প্লাটফর্মে পোস্ট হলেই তা ইউটিউব ট্রেন্ডিংয়ে ১ নম্বরে থাকে। ইত্যাদির প্রাণপুরুষ দেশবরেণ্য গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব হানিফ সংকেতকে এর রহস্যের কথা জানতে চাইলে বলেন, ‘দর্শকের সাথে আমি সত্য থাকি। দর্শকদের ভালোবাসাই আমার শক্তি।’ সত্যিই তাই। তবে ভাবনার প্রকার ও প্রকাশ থাকে তার। ঈদ ইত্যাদির ১ ঘণ্টা ১২ মিনিটে ২২টি কন্টেন্ট দেখিয়েছেন নির্মাতা। এই পুরো সময়টাতে একবারের জন্যও মনে হয়নি যে, অনুষ্ঠানে খানিক বিরতির প্রয়োজন। এটিই একজন নির্মাতার স্বার্থকতা।

শুরুতে কাজী নজরুল ইসলামের ‘ও মোর রমজানের ঐ রোজার শেষে’ গানটির নতুন সংগীতায়োজন ও চিত্রায়ণে অনবদ্য পরিবেশনা দি‌েই শুরু হলো। ইত্যাদি দীর্ঘদিন যাবত্ ভিন্ন ভিন্ন কম্পোজিশনে, ভিন্ন ভিন্ন কোরিওগ্রাফিতে এই গানটির পরিবেশনা করে আসছে। এই কালজয়ী গানের বড় আর্কাইভ হলো ইত্যাদি। তবে এবারের বাড়তি যোগ ছিল এই গানের অংশগ্রহণকারীরা ছিলেন করোনাযুদ্ধে অংশ নেওয়া ২ শতাধিক করোনাযোদ্ধা। দারুণ এই আইডিয়ার জন্য আলাদা ধন্যবাদ পেতেই পারেন হানিফ সংকেত। আকর্ষণীয় স্কিডটি ছিল ভুঁইফোঁড় ইউটিউবারদের অত্যাচারে একে অপরকে বয়কট নিয়ে অন্তর্দ্বন্দ্ব। পুরো সেগমেন্টটি এতটাই বাস্তবতার সাথে মিল, যা সাম্প্রতিক সময়ের চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কোন্দলকে মনে করিয়ে দিলো।

ঈদ বাজারে দুনী‌র্তিবাজের চরিত্রে অভিনেতা পলাশের অভিনয় নজরকাড়ে। গানে গানে ঈদের একাল সেকাল পর্বে তারিন-ফেরদৌস ছিল ইত্যাদির নিয়মিত প্যাটার্নেই। তবে দারুণ নজর কেড়েছে এবারের দর্শকপর্ব। অপূর্ব-পূর্ণিমার মতো জনপ্রিয় তারকাদের অভিনয়ের সাথে সঙ্গতি রেখে এতটা সাবলীল অভিনয় করেছেন অতিথি দর্শকরা, তা মুগ্ধ করেছে দর্শকচোখ।

এবারের ইত্যাদির দুর্দান্ত স্কিড ছিল মোবাইলে পাত্র দেখার বিষয়টি। অতি লোভে তাঁতী নষ্ট এই মোরাল স্টোরিটা এত সুন্দর আর হিউমার দিয়ে বুঝিয়েছেন, যা সত্যিই অনবদ্য। ইত্যাদির দীর্ঘ কয়েক পর্বে আমরা গ্রিস এর নানা তথ্যবহুল ভ্রমণচিত্র দেখছিলাম। তবে সেরা সেগমেন্টটি হয়তো নির্মাতা ঈদের জন্য সঞ্চয় করে রেখেছিলেন। দারুণ সাবলীল অভিনয় আর স্ক্রিপ্টের রশদ মনে করিয়ে দেয়, এই কারণেই ইত্যাদি আলাদা। মেধাদীপ্ত রসবোধের ভেতর দিয়ে সমাজের অসঙ্গতি তুলে ধরার এই আয়োজন আর কোথাও নেই। এছাড়াও ভীষণ সময়োপযোগী পর্ব ছিল মামা-ভাগ্নে এপিসোডে বর্তমান সময়ে মানহীন বাংলা গান যে হারে ভাইরাল হচ্ছে, তা তুলে ধরার বিষয়টা। আমাদের যে রুচির স্খলন হয়েছে তা এই অনুষ্ঠান যেখানে তুলে ধরে। একইভাবে হাসপাতালে নেতার আগমনে হাস্যরসের সাথে তীব্র ব্যঙ্গ ছিল। অনেকদিন পর শিবলী-নিপার পরিবেশনা ছিল অনবদ্য এক সংযোজন। শুধু এই একটি নৃত্যনাট্য দিয়েই অনেকে একটি গোটা অনুষ্ঠান করে ফেলতে পারেন। যথারীতি এই বরেণ্য জুটি তাদের নিজেদের স্বাক্ষর রাখলেন। সঙ্গে গুণী অভিনয়শিল্পী দিলারা জামান, আবুল হায়াত, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়ের অভিনয় মন্ত্রমুগ্ধতা এনেছে। গানে সম্প্রতি দারুণ এক জুটিতে পরিণত হয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী ও মেহের আফরোজ শাওন। তাদের কণ্ঠে এবারের ইত্যাদির পরিবেশনা ছিল সাবলীল। সিয়াম-পূজার পরিবেশনা ছিল যথাযথ ঈদ সংযুক্তি।

শেষে দর্শক হিসেবে অপেক্ষায় ছিলাম বিদেশিদের অংশগ্রহণে নাটিকার। কারণ করোনার কারণে এই পর্ব মিস করেছি খুব। উপস্হাপক সেই কারণটিও ব্যাখ্যা করলেন দারুণভাবে। নাটিকাটি যথারীতি মেসেজ ধর্মী এবং দারুণ অভিনয়। কোনো কোনো বিদেশিনীর ফলস লুক চোখে পড়লেও সেগুলোও দেখতে দারুণ নির্মল লেগেছে। শেষে কোরাস ড্রান্স আর ঢাকার কোকিলে গানটিতে নৃত্য পরিবেশনা যেন সবটুকু মিলিয়ে মাখন হয়ে গেছে।

নানি-নাতি পর্বের একটি বিশেষ শব্দ দারুণ লাগলো। তা হলো-‘এখন তো অ্যাওয়ার্ডও হোম ডেলিভারি দেওয়া হয়।’ নির্মাতার সমাজ সচেতনতা ও বিভিন্ন অসঙ্গতিগুলো কতটা সূক্ষ্ম হতে পারে তা ঐ একটি শব্দে বুঝিয়ে দিয়েছেন, এ কারণেই তিনি হানিফ সংকেত। কারণ সাম্প্রতিককালে অ্যাওয়ার্ড তারকার ঘরে পৌঁছে দিয়ে সাজানো নাটকীয়তায় তারকাদের উচ্ছ্বাস রেকর্ড করার মতো প্রবণতা তৈরি হয়েছে। সেটিই নানি-নাতি পর্বে দারুণ সূক্ষ্মভাবে উপস্হাপন করলেন। অনুষ্ঠান রিভিউয়ে জোর করে সমালোচক চোখ হয়তো দুয়েকটা অনিচ্ছার ভুল তুলতেই পারবেন। কিন্তু সাবলীল এক দর্শকের চোখে এবারের ঈদ ইত্যাদি গত ৩৪ বছরের ইত্যাদির আর্কাইভের সেরা সংকলন করলে অন্যতম সেরা বলে বলে সংরক্ষিত থাকা উচিত। দর্শক হিসেবে কৃতজ্ঞতা ইত্যাদিও প্রতি। ধন্যবাদ হানিফ সংকেত।

আবারও বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন শবনম ফারিয়া
                                  

আবারও বিয়ে করে নতুন জীবন শুরু করেছেন শবনম ফারিয়া। তবে মডেল ও ছোট পর্দার জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী শুভকাজ সেরেছেন পারিবারিকভাবেই। এরপর থেকে নীরবে সংসার চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

শুক্রবার (৬ মে) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম ঢাকা পোস্ট।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে পারিবারিক আয়োজনে তোলা কয়েকটি ছবি শেয়ার করেন শবনম ফারিয়া। সেখানে এ অভিনেত্রীর নতুন স্বামীও ক্যামেরাবন্দি হন। যদিও শবনম ফারিয়া তার স্বামীর নাম-পরিচয় প্রকাশ করেননি।

মাস ছয়েক আগে থেকেই ইনস্টাগ্রামে এক বিশেষ ব্যক্তির তোলা ছবি শেয়ার করে আসছিলেন শবনম ফারিয়া। তবে তার নামের বদলে বানরের ইমোজি ব্যবহার করেন তিনি। পরবর্তীতে জানা গেল, সেই বানর ইমোজির মানুষটিই ফারিয়ার প্রেমিক এবং বর্তমান স্বামী।

১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে সমুদ্র সৈকতে এক পুরুষের সঙ্গে তোলা ছবি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে দেন শবনম ফারিয়া। সেই ছবির ক্যাপশনে তিনি লিখেন, “সবাইকে ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা। তোমার হৃদয় যেখানে পরিপূর্ণ শান্তি পায়, সেখানেই যাও।”

এরপর থেকে তার প্রেমের গুঞ্জন ছড়ায়। যদিও ছবিটি পেছন দিক থেকে তোলা বলে শবনম ফারিয়ার পুরুষ সঙ্গীর মুখ দেখা যায়নি

এর আগে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে ভালোবেসে হারুনুর রশীদ অপুকে বিয়ে করেছিলেন শবনম ফারিয়া। তবে তাদের সংসার টিকেছিল মাত্র ১ বছর ৯ মাস। এরপর তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়।

পরীমনির বিরুদ্ধে মাদকের মামলা চলবে
                                  

ঢাকাই চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে করা মামলা নিয়ে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ ছয় সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত। 

মঙ্গলবার (৮ মার্চ) বিকেলে আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের চেম্বার জজ আদালতে এ বিষয়ে শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

আইনজীবীরা জানিয়েছেন, এর ফলে পরীমনির বিরুদ্ধে মাদক মামলা চলতে বাধা নেই। গত ১ মার্চ পরীমনির বিরুদ্ধে বনানী থানায় দায়ের করা মাদক মামলার কার্যক্রম তিন মাসের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে মামলায় অভিযোগ গঠনের আদেশ ও মামলা কেন বাতিল করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়।

হাইকোর্টের বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মো. সেলিমের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এ আদেশের বিরুদ্ধে ৭ মার্চ রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করে, যার শুনানির জন্য মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দিন ধার্য করেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।

 

দিব্যা ভারতীর জন্মদিন আজ
                                  

বিনোদন ডেস্ক: বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী দিব্যা ভারতীর আজ জন্মদিন। বেঁচে থাকলে এদিন তিনি ৪৮ বছরে পা রাখতেন। মাত্র ৩ বছরের ক্যারিয়ারে পেয়েছিলেন তুমুল জনপ্রিয়তা। তাইতো মৃত্যুর এতোদিন পরও জন্মদিনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাঁকে নিয়ে চলছে আলোচনা ও স্মৃতিচারণ। 

নব্বইয়ের দশকে বলিউডের সাড়া জাগানো এক নাম দিব্যা ভারতী। নজরকাড়া সৌন্দর্য আর অভিনয়ে তিনি ছিলেন অনবদ্য। সে সময়ের হিন্দি ছবির দর্শকমহলে ছিলো দিব্যা ভারতীর অন্য এক আবেদন। মাত্র ৩ বছরের উজ্জ্বল ক্যারিয়ারে পেয়েছিলেন ঈর্ষণীয় দর্শকপ্রিয়তা।

১৯৭৪ সালের এই দিনে ভারতের মুম্বাইয়ে জন্মগ্রহণ করেছিলেন দিব্যা ভারতী। অভিনয়ে হাতেখড়ি তেলুগু ছবির মধ্য দিয়ে। ১৯৯২ সালে বিশ্বাত্মা ছবি দিয়ে বলিউডে পথচলা শুরু। প্রথম ছবি দিয়েই সবার নজর কেড়েছিলেন দিব্যা। এরপর মাত্র দুই বছরে ১৪টি ছবিতে অভিনয় করেন। আর অল্প সময়েই হয়ে উঠেন তুমুল আলোচিত ও জনপ্রিয়।

ঋষি কাপুর থেকে শুরু করে শাহরুখ খান, সালমান খান, অক্ষয় কুমার, জ্যাকি শ্রফ- সেসময়ের সব জনপ্রিয় অভিনেতাদের সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি। 

১৯৯২ সালে প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াওয়ালাকে গোপনে বিয়ে করেন দিব্যা। বিয়ের এক বছরের মধ্যেই ৯৩ সালের ৫ই এপ্রিল মাত্র ১৯ বছর বয়সে বাড়ির বারান্দা থেকে পড়ে আকস্মিক মৃত্যু হয় তাঁর। তবে এই মৃত্যু নিছক দুর্ঘটনা নাকি এর পেছনে রয়েছে অন্যকিছু তা আজও এক রহস্য। মৃত্যুর ২৯ বছর পরও তিনি চলচ্চিত্রপ্রেমীদের স্মৃতিতে উজ্জ্বল হয়ে আছেন।

চোখের জলে সিক্ত ভালোবাসায় শেষ বিদায় নিলেন বাপ্পি লাহিড়ি
                                  

শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় শেষ বিদায় নিলেন ভারতীয় গায়ক ও সংগীত পরিচালক বাপ্পি লাহিড়ি। আজ বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মুম্বাইয়ের পবনহংস শ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে।

৬৯ বছর বয়সে মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে মুম্বাইয়ের হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন সংগীতশিল্পী বাপ্পি লাহিড়ি। তার ছেলে বাপ্পা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করেন। আজ ভোরে পরিবারসহ সেখান থেকে ভারতে পৌঁছান।

 

পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে বাবার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাপ্পাও।

শোবিজ অঙ্গনের অনেক তারকা বাপ্পি লাহিড়িকে বিদায় জানাতে শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন। এ তালিকায় রয়েছেন- বিদ্যা বালান, শক্তি কাপুর, অলগা ইয়াগমিন, রুপালি গাঙ্গুলি, ভুষণ কুমার, মিকা সিং, উদিত নারায়ণ প্রমুখ। সবাই ছিলেন অশ্রুসিক্ত।

১৯৭০ থেকে ৮০-এর দশকে হিন্দি গানের জগতে অন্যতম জনপ্রিয় নাম বাপ্পি লাহিড়ি। হিন্দিতে ‘ডিস্কো ডান্সার’, ‘চলতে চলতে’, ‘শরাবি’, বাংলায় ‘অমর সঙ্গী’, ‘আশা ও ভালোবাসা’, ‘আমার তুমি’, ‘অমর প্রেম’ প্রভৃতি ছবিতে সুর দিয়ে অসংখ্য কালজয়ী গান উপহার দিয়েছেন।

২০২০ সালে তার শেষ গান ছিল ‘বাগি-৩’ ছবির জন্য। কিশোর কুমার ছিলেন বাপ্পির সম্পর্কে মামা। বাবা অপরেশ লাহিড়ি ও মা বাঁশরী লাহিড়ি দুজনই সংগীত জগতের মানুষ। ফলে একমাত্র সন্তান বাপ্পি ছোটবেলা থেকেই গানের প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন। মা-বাবার কাছেই পান প্রথম গানের তালিম।

আদালতের নির্দেশ অমান্য করেই সেই চেয়ারে বসলেন নিপুণ
                                  

বিনোদন ডেস্ক:

আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে মহামান্য আদালতের স্থিতাবস্থা বিদ্যমান। এ সময় পর্যন্ত এই পদে বিবাদমান কোন পক্ষই পদটিতে বসতে পারে না। অথচ আদালতের এমন নির্দেশনা উপেক্ষা করে বাদীপক্ষ নিজেই সমিতির কার্যালয় ব্যবহার করেছেন এবং চেয়ারে বসে পড়েছেন।

 

 

 

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন ঘিরে এখনো উত্তাল এফডিসি প্রাঙ্গণ। জায়েদ খান নাকি নিপুণ- কে বসতে যাচ্ছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে? ১৩ তারিখে জানা যাবে চূড়ান্ত ফলাফল। এর আগ পর্যন্ত জায়েদ খান ও নিপুণ আক্তার কেউই দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। ওই দিন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হবে। বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) চেম্বার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এ আদেশ দেন।

তবে তার আগেই আদালতের রায় অমান্য করে সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসলেন চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকালে সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসতে দেখা গেছে নিপুণকে।

 

 

 

নিপুণের চেয়ারে বসার কয়েকটি ছবি এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভেসে বেড়াচ্ছে। শিল্পী সমিতির টেবিলে নিপুণ তার নেমপ্লেটও লাগিয়েছেন। সেখানে লেখা রয়েছে- নিপুণ আক্তার, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। এসময় দুই মেয়াদের সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের নেমপ্লেটটি দেখা যায়নি।

এর আগে, নতুন কমিটি আসতে না আসতে বদলে ফেলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যালয়ের তালা। এমনকি বদল হয়েছে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পুরোনো চেয়ার। শুধু তাই নয়, বদলে ফেলা হয়েছে সিসি টিভির পাসওয়ার্ডও। এসব বদলানোর কথা স্বীকার করেছেন নবনির্বাচিত সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইমন সাদিক।

 

 

 

প্রসঙ্গত, গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের প্রাথমিক ফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। তবে তার বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে ভোট কেনাসহ নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অভিযোগ আনলে ৫ ফেব্রুয়ারি সেই পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বোর্ড জায়েদের প্রার্থিতা বাতিল করে। পরে নির্বাচনের আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান সোহানুর রহমান সোহান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী ঘোষণা করেন। এরপর থেকেই বিষয়টি ‘বেআইনি’ বলে দাবি করে আসছেন জায়েদ খান। আগামী রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির পর সিদ্ধান্ত আসবে, কে হবেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক।

 

 

 
বলিউডে অভিষেক হচ্ছে শাহরুখ কন্যা সুহানার
                                  

বিনোদন ডেস্ক: অনেকদিন ধরেই গুঞ্জন ছিল বলিউডে অভিষেক হচ্ছে শাহরুখ খানের মেয়ে সুহানা খানের। সেই গুঞ্জনে এবার নতুন হাওয়া লেগেছে। ভারতীয় মিডিয়ার খবর অনুযায়ী, প্রযোজক জোয়া আখতার বিখ্যাত কমিকস ‘আর্চি’র সিনেম্যাটিক ভার্সন নির্মাণ করতে যাচ্ছেন। আর এতেই অভিনয় করার কথা সুহানা খানের। ইতোমধ্যেই সুহানা খানের সাথে এ নিয়ে জোয়া আখতারের নাকি আলাপও হয়েছে।

শুধু সুহানাই নয়, এই ছবিতে দেখা যেতে পারে আরও দুই স্টার কিডকে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো দাবি করছে, শ্রীদেবী কন্যা খুশি কাপুর ও অমিতাভ বচ্চনের নাতনি অগস্তা নন্দাও কাজ করবেন এই সিনেমায়।

এ বিষয়ে জোয়া আখতার বলেন, ‘আমার শৈশব এবং কৈশোরের একটি বড় অংশ ছিল আর্চি। চরিত্রগুলি আইকনিক এবং বিশ্বব্যাপী প্রিয়। ছবিটি নিয়ে আমি সত্যিই উত্তেজিত।’

তবে ছবিতে কাদের কাস্ট করা হবে সে বিষয়ে কিছুই জানাননি তিনি। যদিও সুহানা খানকে দুই বার দেখা গেছে তার অফিসে।

মিউজিক্যাল ড্রামা হবে ‘আর্চি’। নেটফ্লিক্সে মুক্তি দেওয়ার কথা রয়েছে ছবিটির।

ফের চেয়ারে বসলেন নিপুণ, লাগিয়েছেন নেমপ্লেট
                                  

 টক অব দ্য` কান্ট্রিতে পরিণত হয়েছে চিত্রনায়ক জায়েদ খান ও চিত্রনায়িকা নিপুণের দ্বন্দ্ব। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তারা।

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানের পক্ষে দেওয়া হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছে চেম্বার আদালত। আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চের শুনানি আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি। ওই দিন পর্যন্ত জায়েদ-নিপুণ দু’জনের কেউই দায়িত্ব পালন করতে পারবে না।

 

 

 

এদিকে আজ (১০ ফেব্রুয়ারি) শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে নিপুণকে বরণ করে নিয়েছে এফডিসির সবগুলো সংগঠন। এসব সংগঠনগুলোর প্রধানরা নিপুণকে ফুল দিয়ে বরণ করেন এবং তাকে মিষ্টিমুখ করান।নিপুণকে বরণ করা প্রসঙ্গে এফডিসির সংগঠনগুলো জানায়, তারা সাধারণ সম্পাদক পদে নিপুণকেই গ্রহণ করেছেন। এ জন্য ফুল দিয়ে বরণ করেছেন এবং মিষ্টিমুখ করিয়েছেন।

নিপুণের হাইকোর্টে আপিল
                                  

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে চিত্রনায়ক জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্ট যে আদেশ দিয়েছেন, তার বিরুদ্ধে আপিল করেছেন চিত্রনায়িকা নিপুন আক্তার।

 

মঙ্গলবার (৮ ফেব্রুয়ারি) আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদন করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন নিপুণের আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান খান।

 

মোস্তাফিজুর রহমান খান বলেন, “আমরা আপিল করেছি চেম্বার আদালতে। আশা করছি আপিলটি বিকেলে শুনানি হতে পারে।”

 

এর আগে সোমবার দুপুরে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি নির্বাচনের আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। ১৫ ফেব্রুয়ারি রুল শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

 

এর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের আপিল বোর্ডের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন করেন জায়েদ খান। সোমবার জায়েদ খানের পক্ষে আইনজীবী নাহিদ সুলতানা যুথী এ রিট আবেদন করেন।

 

বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদন করা হয়েছে।

 

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হওয়া জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। এর ফলে তিনি পদ হারান।

 

শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নির্বাচনের আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান সোহানুর রহমান সোহান এক সভা শেষে এ সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে নায়িকা নিপুণকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী ঘোষণা করেন।

 

গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। এর প্রাথমিক ফলাফলে জয়ী হন চিত্রনায়ক জায়েদ খান। তবে নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগে তার প্রার্থিতা বাতিল করেছে আপিল বোর্ড

দেশের বিচার বিভাগ স্বাধীন বল্লেন জায়েদ খান
                                  

 

`দেশের বিচার বিভাগ যে স্বাধীন, তা ফের প্রমাণ হলো`

 

 

  বিনোদন ডেস্ক, নতুন বাজার 71 ডট

 

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিকে নিয়ে আলোচনা থামছেই না। একের পর এক নাটকীয়তা চলছেই। এবার নিপুণের সাধারণ সম্পাদক পদ স্থগিত করেছে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে এক সপ্তাহের রুল জারি করেছেন আদালত।

 

এর আগে সকালে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থিতা বাতিল সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চে আবেদন করেন জায়েদ খান।

 

upay

আদালতের এই আদেশে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে জায়েদ খান গণমাধ্যমকে জানান, ‘আদালতে ন্যায়বিচার পেয়েছি। আপিল বোর্ডকে অবৈধ বলা হয়েছে। সে হিসেবে আমিই জয়ী সাধারণ সম্পাদক। মহামান্য হাইকোর্টকে ধন্যবাদ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ। বাংলাদেশের বিচার বিভাগ যে স্বাধীন, তা ফের প্রমাণ হলো। আইনের প্রতি আমার শ্রদ্ধা আছে।’

 

এছাড়াও শুকরিয়া আদায় করে ফেসবুক স্ট্যাটাসে জায়েদ লিখেছেন, `আলহামদুলিল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ`।

 

গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। সেখানে সাধারণ সম্পাদক পদে জয়লাভ করেন জায়েদ খান। তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ অভিযোগ তোলেন, নির্বাচনে দুর্নীতি করেছেন জায়েদ। টাকা দিয়ে ভোট কিনেছেন তিনি। এসব অভিযোগ নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনও করেছিলেন নিপুণ। লিখিত অভিযোগ জানান নির্বাচনের আপিল বোর্ডের কাছেও। এরপরই বোর্ডকে বিষয়টির সুরাহা করার দায়িত্ব দেয় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়।

 

গেলো শনিবার বিকেলে বৈঠক ডাকে আপিল বোর্ড। এতে নিপুণ অংশ নিলেও জায়েদ ছিলেন অনুপস্থিত। তার অনুপস্থিতিতেই সোহানুর রহমান সোহান ঘোষণা করেন, শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জায়েদ খান থাকছেন না। নির্বাচনে অনিয়ম করার অভিযোগে তার প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। তার পরিবর্তে অপর প্রার্থী নিপুণ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছেন।

 

রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) এফডিসির উন্মুক্ত প্রাঙ্গনে শপথ গ্রহণ করেন নিপুণ। এরপর তিনি শিল্পী সমিতির প্রথম নারী সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দুই বছর মেয়াদী চেয়ারে বসেন।

নিপুনের সাধারণ সম্পাদক পদ স্থগিত করেছে হাইকোর্ট
                                  

নতুন বাজার রিপোর্ট

জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে এক সপ্তাহের রুল জারি করেছেন আদালত।

আদালতের এমন আদেশে স্থগিত হলো নিপুণের সাধারণ সম্পাদক পদ।

সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ জায়েদ খানের করা আপিলের প্রেক্ষিতে এ আদেশ দেন।

আদালতের এ রায়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জায়েদ খান জানান, সুষ্ঠু নির্বাচনে আমি জয়ী হয়েছি। কিন্তু বেআইনি চিঠির ভিত্তিতে আমাকে আপিল বোর্ড বাদ দিয়ে নিপুণকে জয়ী ঘোষণা করেছে।

 

 

এর আগে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের সময় ‘ভোট কেনার’ অভিযোগ তুলে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের আবেদন করেন পরাজিত সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নিপুণ। এমনকি এই পদে পুনরায় ভোটের দাবিও তোলেন তিনি।

ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জায়েদ খানের পদ বা প্রার্থিতা বাতিল হবে কী না- সে বিষয়ে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে এফডিসিতে বসেন শিল্পী সমিতির আপিল বোর্ড। আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জায়েদ খানের প্রার্থীতা বাদ করে নিপুণকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা নিকরা হয়।

ইলিয়াসের বিরুদ্ধে সুবহার মামলা, পেছাল প্রতিবেদন জমার তারিখ
                                  

গায়ক ইলিয়াস হোসাইনের বিরুদ্ধে স্ত্রী অভিনেত্রী শাহ হুমায়রা হোসেন সুবহার দায়ের করা মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন জমার তারিখ পিছিয়ে ২৭ ফেব্রুয়ারি ঠিক করেছে আদালত। যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগ এনে মামলাটি দায়ের করা হয়েছিল।

 মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে জমার জন্য তারিখ ঠিক ছিল আজ সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি), কিন্তু তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) বনানী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলসানারা বানু প্রতিবেদন জমা দিতে ব্যর্থ হন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরা প্রতিবেদন জমার নতুন তারিখ দেন।

এর আগে গত ৩ জানুয়ারি বনানী থানায় মামলাটি করেন সুবহা।

 

 

 

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত বছরের সেপ্টেম্বরে সুবহার সঙ্গে ইলিয়াসের পরিচয়। এরপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কে গড়ে ওঠে। গত ১ ডিসেম্বর তারা বিয়ে করেন।

 

 

 

বিয়ের সময় সুবহার পরিবারের পক্ষ থেকে ইলিয়াসের চাহিদা অনুযায়ী ১২ লাখ টাকা মূল্যের রোলেক্স ব্র্যান্ডের ঘড়িসহ ১৫ লাখ ৭৫ হাজার টাকার পণ্য দেয়া হয়, কিন্তু এতেও ইলিয়াস সন্তুষ্ট হননি।

 

 

 

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, বিয়ের পর সুবহা জানতে পারেন ইলিয়াস একাধিক বিয়ে করেছেন এবং তার অসংখ্য প্রেমের সম্পর্ক চলমান। এরই মধ্যে সুবহার কাছে ফ্ল্যাট কেনা বাবদ ৫০ লাখ এবং গাড়ির জন্য আরও ৩০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন ইলিয়াস।

 

 

 

গত ৯ ডিসেম্বর ইউটিউব চ্যানেল কেনার জন্য সুবহার মায়ের কাছে আরও ১০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। ওই সময় তাকে দুই লাখ ৫০ হাজার টাকা দেয় সুবহার পরিবার।

 

 

 

অভিযোগে আরও বলা হয়, গত ২৭ ডিসেম্বর দুপুরে ফ্ল্যাট ও গাড়ি কেনার কথা বলে ৮০ লাখ টাকার জন্য চাপ দেন ইলিয়াস। এ নিয়ে সুবহার সঙ্গে তার ঝগড়া হয়। এরই জেরে রাত ৮টার দিকে সুবাহকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও নির্যাতন করেন ইলিয়াস।

 

 

 

পরের দিন আবারও ৮০ লাখ টাকা যৌতুক চান ইলিয়াস। এ টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে সুবহাকে কিল-ঘুষি-লাথি ও চুলের মুঠি ধরে মাথা দেয়ালের সঙ্গে ঠুকে জখম করেন তিনি। এরপর ইলিয়াস সুবহাকে ব্যথার ওষুধ খাওয়ান। একটু পর সুবহা অজ্ঞান হয়ে যান।

 

 

 

এ সুযোগে ইলিয়াস আলমারিতে থাকা ২০ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার ও ৫০ হাজার টাকা নিয়ে যান। এদিকে ওষুধের ক্রিয়ায় সুবহার অবস্থা গুরুতর অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 

 

 
এমন জীবন ফিরে পেতে চান না লতা মঙ্গেশকর
                                  

উপমহাদেশের কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকরের জীবন প্রদীপ নিভে গেছে। এই কোকিলকণ্ঠীর চিরপ্রস্থানে ভারতীয় সংগীতের ইতিহাসে একটি সুরেলা অধ্যায়ের সমাপ্তি হলো। তিনি চলে গেলেও তার গান রয়ে যাবে মানুষের হৃদয়ে।

 লতা মঙ্গেশকরের জীবনে যশ-খ্যাতি-প্রতিপত্তি কোনো কিছুরই অভাব ছিলো না। জীবন সাগরে তিনি ছিলেন সফল নাবিক। অনেকেই তার মতো হতে চান। এক জীবনে তার অবস্থানে পৌঁছানো সহজ নয়। কিন্তু লতা মঙ্গেশকর নিজেই এমন জীবন ফিরে পেতে চান না!

জাভেদ আখতারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের শেষ ইচ্ছা জানিয়েছিলেন লতা মঙ্গেশকর। জাভেদ জানতে চেয়েছিলেন, পরের জন্মে কী হতে চান লতা? বিষণ্ণ হাসি হেসে এই সুরসম্রাজ্ঞী বলেছিলেন, ‘আর যেন জন্মাতে না হয়! যদি জন্মাতেই হয়, তা হলে অন্য কিছু হব। লতা মঙ্গেশকর হয়ে যেন আর না জন্মাই।’

 

 

লতার বাবা দীননাথ মঙ্গেশকর মাত্র ৪২ বছর বয়সে মারা যান। স্বামীর মৃত্যুর পর কে ধরবে সংসারের হাল, এ চিন্তায় লতার মা সুধামতী দিশেহারা। শেষ পর্যন্ত দায়িত্বটা এসে পড়ে ১২ বছরের মেয়ে লতার কাঁধে। বাবার মৃত্যুর মাত্র সাতদিন পরই শোক লুকিয়ে লতা ‘প্যাহলি মঙ্গলাগাঁও’ ছবির শুটিংয়ে যান। মারাঠি এ ছবিটিতে অভিনয় করে আর গান গেয়ে ক্যারিয়ার শুরুর পাশাপাশি জীবন সংগ্রামটাও শুরু করেন কিংবদন্তি এই শিল্পী। সংসারের দায়িত্ব কাঁধে থাকার কারণেই তিনি নিজেকে নিয়ে কোনোদিন আলাদা করে ভাবার সুযোগ পাননি। আর তাই ৯২ বছরের দীর্ঘ জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত চিরকুমারিই রয়ে গেলেন লতা মঙ্গেশকর।

 

 

 

প্রসঙ্গত, লতা মঙ্গেশকর ভারতীয় সিনেমার কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী। দেশটির ইতিহাসে সর্বকালের সবচেয়ে সফল গায়িকা তিনি। ১৯৪২ সালে ১৩ বছর বয়সে তার গানের ক্যারিয়ার শুরু হয়। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তিনি গেয়েছেন ৩০ হাজারের বেশি গান। তার কণ্ঠে সুর পেয়েছে বিভিন্ন ভাষা। বরেণ্য এই শিল্পী ভারতের সর্বোচ্চ সম্মাননা ‘ভারত রত্ন’ পদকে ভূষিত হয়েছেন। এ ছাড়া দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ সব প্রাপ্তিই যুক্ত হয়েছে তার ঝুলিতে।

আক্ষেপের সুরে তিনি জানিয়েছিলেন, ‘লতা মঙ্গেশকর হতে গিয়ে বা হওয়ার পরে আমায় যে কী পরিমাণ কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে, সে শুধু আমিই জানি।’

জায়েদ খানের প্রার্থীতা বাতিল, নিপুণ কে জয়ী ঘোষণা
                                  

 

 

 

 

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনী তফসিলের ১০ নম্বর ধারা মোতাবেক বিধি ভঙ্গের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থী জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচনের আপিল বোর্ড। নোট দি‌য়ে ভোট কেনার অভিযোগ ছিল জায়েদের বিরুদ্ধে। অভিযোগ প্রমা‌ণিত হওয়ায় তার বিরুদ্ধে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। জায়েদের প্রার্থিতা বাতিল হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিপুণ সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। একইসঙ্গে কার্যকরী পরিষদের সদস্য পদের প্রার্থী চুন্নুর প্রার্থিতাও বাতিল করা হয়েছে। তাই চুন্নুর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নাদির খানকে কার্যকরী সদস্য হিসেবে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

সন্ধ্যায় আপিল বো‌র্ডের সভা শে‌ষে সাংবা‌দিক‌দের এ তথ্য জানান বোর্ড চেয়ারম্যান সোহানুর রহমান সোহান। তিনি বলেন, ‌‘নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী ২৮ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ ও একইদিনে ফলাফল জানিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ফলাফল জানানো হয় পরদিন ভোরে। এতে পরিস্কার হয় প্রধান নির্বাচন কমিশনার পীরজাদা হারুন পক্ষপাতিত্ব করেছেন। এর মধ্যে দুজন ভোটার লিখিতভাবে জানিয়েছেন নগদ অর্থের বিনিময়ে তারা জায়েদ খান ও চুন্নুকে ভোট দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, ভিডিও ফুটেজেও আমরা সেটার সত্যতার প্রমাণ পেয়েছি। তফসিলের ১০ নম্বর ধারা অনুযায়ী এমন অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল বলে গণ্য হবে। আমরা সেই সিদ্ধান্তই নিয়েছি। জায়েদের প্রার্থিতা বাতিল হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিপুণ আক্তারকে সাধারণ সম্পাদক এবং চুন্নুর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নাদির খানকে কার্যকরী সদস্য হিসেবে জয়ী ঘোষণা করা হলো।’

 

 

আপিল বোর্ডের বৈঠক শুরুর আগে

 

সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিপুণের নাম ঘোষণা করার পর নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন অভিনেত্রী। তিনি বলেন, ‘সত্যের জয় হয়েছে। ২৮ জানুয়ারি সকাল থেকে আমি যে যুদ্ধ শুরু করেছিলাম আজ সেটার ফল পেলাম। নির্বাচন কমিশনারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছি, চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়েছি অনিয়মগুলো। কিন্তু তারা আমার পাশে দাঁড়ায়নি। অবশেষে সত্য প্রতিষ্ঠিত হলো।’

আপিল বোর্ডের রায়ের পর মুঠোফোনে জায়েদ খান বলেন, ‘আপিল বোর্ডের কোনো ভ্যালু নেই। তারা এরকম কোনো সিদ্ধান্ত দিতে পারে না৷ এটা আইন বহির্ভূত। পৃথিবীতে এমন নজিরবিহীন ঘটনা আগে ঘটেনি যে প্রজ্ঞাপনের পর মৃত আপিল বোর্ড রায় ঘোষণা করে।’

মামলা করার কথাও বললেন অভিনেতা, ‘আমি মামলা করব। আদালতে যাব।’

আজকের এই আপিল বোর্ডের বৈঠকে যাবেন না, আগেই জানিয়েছিলেন জায়েদ। শুক্রবার কালের কণ্ঠকে জায়েদ বলেছিলেন, ‌‘নির্বাচনি তফসিল অনুযায়ী ২৯ জানুয়ারি বিকাল ৫টার পর থেকে আপিল বোর্ড মৃত। একটি মেয়াদোত্তীর্ণ সংস্থা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার বিরুদ্ধে লেগেছে, যার কোনো আইনগত ভিত্তিও নেই। শনিবারে নাকি একটি বৈঠক ডেকেছে সেখানে আমাকেও উপস্থিত থাকতে হবে, এই মর্মে আমার পিয়নের কাছে চিঠি ধরিয়ে দিয়েছে। আপিল বোর্ড ২৯ তারিখ বিকেল পাঁচটার পর আপত্তি নিষ্পত্তি করেছে নিপুণ পরাজয় মেনে নিয়ে সাক্ষর করে চলে গেছে। এখানেই আপিল বোর্ডের কাজ শেষ হয়ে গেছে।’

 

 

 

সাংবাদিক সম্মেলনে নিপুণ ও সোহানুর রহমান সোহান

২৮ জানুয়ারি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত হন ইলিয়াস কাঞ্চন। সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী করা হয় জায়েদ খানকে। নির্বাচনের দিনই গণমাধ্যমে জায়েদের বিরুদ্ধে ভোট কেনার অভিযোগ করেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী নিপুণ। ফলাফল ঘোষণার পর দেখা গেল জায়েদ ভোট পেয়েছিলেন ১৭৬টি, নিপুণ পেয়েছিলেন ১৬৩টি। এর মধ্যে ২৬টি বাতিল বলে গণ্য করা হয়। নিপুণের আবেদনের প্রেক্ষিতে ২৯ জানুয়ারি পুরনরায় ভোট গণনা করা হয়। দ্বিতীয় বার গণনায় নিপুণের ১৪টি ও জায়েদের ১২টি ভোট অকার্যকর হয়েছে। তাতেও জায়েদ খানকে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

এরপর এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও নিপুণ থেমে থাকেননি। বিজয়ী জায়েদের বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে ভোট কেনাসহ নানা নির্বাচনী তফসিলবিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ করেছেন প্রতিপক্ষ প্যানেলের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নিপুণ আক্তার। শুধু জায়েদ খান নন, কার্যকরী পরিষদ সদস্য পদে নির্বাচিত চুন্নুর বিরুদ্ধেও নির্বাচনী আচরণবিধি না মানার অভিযোগ এনেছেন নিপুণ।

এসব অভিযোগ নিষ্পত্তি করতে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সমাজসেবা অধিদপ্তর আপিল বোর্ডকে নির্দেশ দিয়েছে। আজ শনিবার বিষয়টির সুরাহা করতে বিকেল ৫টায় শিল্পী সমিতির অফিসে জরুরি বৈঠক ডেকেছে এই বোর্ড। সেখানেই আজ প্রার্থিতা হারালেন জায়েদ খান ও চুন্নু এবং বিজয়ীর মালা পরলেন নিপুণ ও নাদির খান।

 

 

 

 

 

    

 

 

জামিন পেলেন মিথিলা
                                  

অনলাইন ডেস্ক

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে হওয়া মামলায় অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলাকে স্থায়ী জামিন দিয়েছেন আদালত। 

গত ১৩ ডিসেম্বর ৮ সপ্তাহের জামিন দেন হাইকোর্ট। সেই জামিনের মেয়াদ শেষে বৃহস্পতিবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রেজাউল করিম চৌধুরীর আদালতে আত্মসমর্পণ করে স্থায়ী জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক তাকে পুলিশ রিপোর্ট পর্যন্ত জামিন দেন। 

সিএমএম আদালতে ধানমন্ডি থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইশারত আলী জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ১৩ ডিসেম্বর মিথিলার ৮ সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করেন উচ্চ আদালত। ওইদিন শবনম ফারিয়াকে ৮ সপ্তাহের জামিন দেওয়া হয়।

গত ৪ ডিসেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় সাদ স্যাম রহমান নামে ইভ্যালির এক গ্রাহক তাহসান খান, রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়াসহ নয়জনের নামে মামলা করেন।

সুবাহ বহু পুরুষে আসক্ত, তাকে টেস্ট করা হোক: ইলিয়াস
                                  

 সংগীতশিল্পী ইলিয়াস হোসাইন ও মডেল-অভিনেত্রী সুবাহ শাহ হুমায়রা গত বছরের ১ ডিসেম্বর ঘরোয়া আয়োজনে বিয়ে করেছিলেন। এর কয়েকদিন পর বিষয়টি প্রকাশ্যে আসলেই কাদা-ছোড়াছুড়ি শুরু হয়। দু’জনেই হয়ে ওঠেন একে-অপরের প্রতিপক্ষ। এমনকি থানায় একে অপরের নামে জিডিও করেন। সুবাহর অভিযোগ, ইলিয়াস তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেছেন। এসব তথ্য তারা দুজনই সংবাদ সম্মেলনে দিয়েছেন। অন্যদিকে ইলিয়াস অভিযোগ তোলেন, সুবাহ তাকে ফাঁদে ফেলে বিয়ে করেছেন। এমনকি বিয়ের পর তার গায়ে নাকি হাতও তুলেছেন।বর্তমানে ইলিয়াস দুবাই এ অবস্থান করছেন। সেখানে থেকে তিনি দেশের একটি গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দেন। সেখানে ইলিয়াস মামলা সম্পর্কে বলেন, মিথ্যা বেশি দিন টেকে না, সুবাহর করা মামলাটি পুরোপুরি মিথ্যা, সাজানো এবং ভিত্তিহীন, মামলার এজাহারটি পড়লে যে কেউ বুঝবে, এটি যে আমাকে মিথ্যা হয়রানি করার জন্যই করা। সুতরাং এই মিথ্যাও বেশি দিন টিকবে না। মাসখানেক পর দেশে ফিরলে আমিও অবশ্যই আইনি লড়াই করবো। a liar can never win. তার একমাত্র হাতিয়ার মিথ্যা কথা বলে কান্নার অভিনয় করা।ইলিয়াস আরও বলেন, এটা তার ব্যবসা, মানুষকে ফাঁসানো। তার দ্বারা কারও সাথে সংসার সম্ভব না! কারণ সে বহু পুরুষে আসক্ত। বিশ্বাস নাহলে তার টেস্ট করা হোক। চ্যালেঞ্জ দিলাম ২০-৩০ জন পুরুষের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যাবে। সে আলোচনায় থাকতে চায়, যেকোনো মূল্যে সেটার জন্য যত নিচে নামার দরকার সে নামবে তাতে তার ন্যূনতম লজ্জা কাজ করবে না। আগেই বললাম মিথ্যা কান্নার অভিনয়টাই তার মূল অস্ত্র। শ্রেষ্ঠ মিথ্যা কান্নার জন্য অ্যাওয়ার্ড থাকলে নিঃসন্দেহে সে পেত। তার বাসায় বহু পুরুষের আনাগোনা। যতই অভিনয় করুক মিথ্যার চেয়ে সত্যি অনেক শক্তিশালী।


   Page 1 of 18
     বিনোদন
দর্শককে ঠকায় না বলেই ইত্যাদি আলাদা, অনবদ্য
.............................................................................................
আবারও বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন শবনম ফারিয়া
.............................................................................................
পরীমনির বিরুদ্ধে মাদকের মামলা চলবে
.............................................................................................
দিব্যা ভারতীর জন্মদিন আজ
.............................................................................................
চোখের জলে সিক্ত ভালোবাসায় শেষ বিদায় নিলেন বাপ্পি লাহিড়ি
.............................................................................................
আদালতের নির্দেশ অমান্য করেই সেই চেয়ারে বসলেন নিপুণ
.............................................................................................
বলিউডে অভিষেক হচ্ছে শাহরুখ কন্যা সুহানার
.............................................................................................
ফের চেয়ারে বসলেন নিপুণ, লাগিয়েছেন নেমপ্লেট
.............................................................................................
নিপুণের হাইকোর্টে আপিল
.............................................................................................
দেশের বিচার বিভাগ স্বাধীন বল্লেন জায়েদ খান
.............................................................................................
নিপুনের সাধারণ সম্পাদক পদ স্থগিত করেছে হাইকোর্ট
.............................................................................................
ইলিয়াসের বিরুদ্ধে সুবহার মামলা, পেছাল প্রতিবেদন জমার তারিখ
.............................................................................................
এমন জীবন ফিরে পেতে চান না লতা মঙ্গেশকর
.............................................................................................
জায়েদ খানের প্রার্থীতা বাতিল, নিপুণ কে জয়ী ঘোষণা
.............................................................................................
জামিন পেলেন মিথিলা
.............................................................................................
সুবাহ বহু পুরুষে আসক্ত, তাকে টেস্ট করা হোক: ইলিয়াস
.............................................................................................
৬ জন হেভি’ওেয়ট নায়িকা যারা সরা’সরি ন’’গ্ন হয়ে দেখিয়েছেন সারা শ’’রীর
.............................................................................................
ডিবির পর র‍্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে ইমন কে
.............................................................................................
এবার ‘কাঁচা বাদাম’ গান গাইলেন রানু মণ্ডল
.............................................................................................
‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’
.............................................................................................
মেসির জন্য নগ্ন হতে চান,
.............................................................................................
টিকাটুলির মোড়ের পর এবার ‘পান্থপথের মোড়’
.............................................................................................
মা হবেন পরীমনি!
.............................................................................................
স্বামীকে নিয়ে ওমরাহ করতে গেলেন মাহি
.............................................................................................
৪৬ বছর বয়সে বলিউড অভিনেত্রী যমজ সন্তানের মা হয়েছেন।
.............................................................................................
মিশা সওদাগর চিকন আলীকে ডিবি থেকে ছাড়িয়ে আনলেন
.............................................................................................
দীর্ঘদিন পর বড় পর্দায় বলিউড অভিনেত্রী রানী মুখার্জির সিনেমা
.............................................................................................
অভিনেত্রী ও নির্মাতা অপর্ণা সেনকে আইনি নোটিশ
.............................................................................................
জিতের প্রযোজনায় মিথিলা-প্রসেনজিৎ জুটি
.............................................................................................
পরীমনি যতদিন কারাগারে ছিলেন ‘বিছানায় ঘুমাননি’ এক ভক্ত
.............................................................................................
অতুলপ্রসাদের সার্ধশত জন্মবার্ষিকী উদযাপন
.............................................................................................
সোমবার শিল্পকলায় ‘খোয়াবনামা’
.............................................................................................
‘হাবিবি’ নিয়ে হাজির নুসরাত ফারিয়া
.............................................................................................
যে নায়কের জন্য পঞ্চাশেও অবিবাহিতা টাবু!
.............................................................................................
দীপাবলির রাতে প্রেমে মশগুল রণবীর-আলিয়া!
.............................................................................................
রাজস্থানে কেন বিয়ে করতে চাইছেন ক্যাটরিনা?
.............................................................................................
মুক্তির অনুমতি পেলো ‘রোহিঙ্গা’
.............................................................................................
হতাশায় দুইবার আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন বাঁধন
.............................................................................................
জন্মদিনে সপরিবারে মুম্বাই ছাড়লেন শাহরুখ
.............................................................................................
সালমানের কারণে ‘চলতে চলতে’ ছেড়েছিলেন ঐশ্বরিয়া
.............................................................................................
উদ্ভট সাজে চমকে দিলেন শিল্পা শেঠি
.............................................................................................
মানিকে মাগে হিতে’ বাংলায় গাইতে চান ইয়োহানি
.............................................................................................
স্পনসর নিয়ে জন্মদিন পালনের ঘোষণা পরীমনির
.............................................................................................
সুশান্তের সাবেক প্রেমিকা বিয়ে করতে যাচ্ছেন
.............................................................................................
আংটিবদল করলেন ব্রিটনি
.............................................................................................
অবশেষে পরীর দেখা পেলেন নানা
.............................................................................................
এবার নুসরাতের বার্তায় নতুন জল্পনা
.............................................................................................
যেভাবে ব্যাংকারদের ব্ল্যাকমেইল করতেন মডেল-অভিনেত্রীরা
.............................................................................................
শ্রাবন্তীকে রোশানের খোঁচা
.............................................................................................
টালিউডে অভিষেক হচ্ছে মিথিলার
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু, সহ সম্পাদক কাওসার আহমেদ র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল । বার্তা বিভাগ ফোন০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, রেজিস্ট্রেশন নং 134 / নিবন্ধন নং 69 মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD