| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   প্রবাসে বাংলা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
দক্ষিণ পূর্ব ইউরোপের বলকান অঞ্চলের দেশ নর্থ মেসেডোনিয়া সীমান্তে একটি ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশিসহ ২১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। দক্ষিণাঞ্চলের গ্রীস সীমান্তের একটি আঞ্চলিক রোডে নিয়মিত টহলের সময় তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে মেসেডোনিয়া পুলিশ। খবর আল জাজিরার।
খবরে বলা হয়েছে, সোমবার মধ্যরাতে সীমান্তে টহলের সময় গেভজেলিজা শহরের কাছে ট্রাকটিকে আটকানো হয়। এসময় ট্রাকে ১৪৪ জন বাংলাদেশি ও ৬৭ জন পাকিস্তানি নাগরিক ছিলেন বলে জানায় পুলিশ।

মেসেডোনিয়ার নাগরিক ২৭ বছর বয়সি ট্রাক চালককেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বিস্তারিত পরিচয় না জানানো হয়নি। আটক অবৈধ অভিবাসীদের একটি আশ্রয়কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। তাদের গ্রিসে পাঠানোর পরিকল্পনা চলছে।

এর আগে ২২ জুন নর্থ মেসিডোনিয়ায় একটি ট্রাকে ৬৪ জন বাংলাদেশি অভিবাসীকে পাওয়ার পর আটক করে দেশটির পুলিশ।

উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
দক্ষিণ পূর্ব ইউরোপের বলকান অঞ্চলের দেশ নর্থ মেসেডোনিয়া সীমান্তে একটি ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশিসহ ২১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। দক্ষিণাঞ্চলের গ্রীস সীমান্তের একটি আঞ্চলিক রোডে নিয়মিত টহলের সময় তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে মেসেডোনিয়া পুলিশ। খবর আল জাজিরার।
খবরে বলা হয়েছে, সোমবার মধ্যরাতে সীমান্তে টহলের সময় গেভজেলিজা শহরের কাছে ট্রাকটিকে আটকানো হয়। এসময় ট্রাকে ১৪৪ জন বাংলাদেশি ও ৬৭ জন পাকিস্তানি নাগরিক ছিলেন বলে জানায় পুলিশ।

মেসেডোনিয়ার নাগরিক ২৭ বছর বয়সি ট্রাক চালককেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বিস্তারিত পরিচয় না জানানো হয়নি। আটক অবৈধ অভিবাসীদের একটি আশ্রয়কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। তাদের গ্রিসে পাঠানোর পরিকল্পনা চলছে।

এর আগে ২২ জুন নর্থ মেসিডোনিয়ায় একটি ট্রাকে ৬৪ জন বাংলাদেশি অভিবাসীকে পাওয়ার পর আটক করে দেশটির পুলিশ।

এমপি পাপুল এখন কুয়েত কারাগারে বন্দি
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কুয়েতে গ্রেফতার সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলকে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে রাখার আদেশ দিয়েছেন দেশটির পাবলিক প্রসিকিউশন। তার বিরুদ্ধে মানব ও অর্থ পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে কুয়েতের অপরাধ তদন্ত বিভাগ- সিআইডি। এ বিষয়ে রোববার তদন্ত শেষ হওয়ার কথা রয়েছে বলে খবর প্রকাশ করেছে দেশটির সংবাদমাধ্যম ‘আরব টাইমস’। এর আগে, গ্রেফতার পাপুলের বিষয়ে তদন্তে বাংলাদেশ দূতাবাস কোনো হস্তক্ষেপ করবে না বলে জানান কুয়েতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম। কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল লক্ষ্মীপুর-২ আসনের এমপি।

আমিরাতে করোনায় ৬০ বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

সংযুক্ত আরব আমিরাতে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ কমে এলেও প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মারা গেছেন ৬০ জনের বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি। সর্বশেষ শনিবার পর্যন্ত দেশটিতে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৬২ জন।

চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি দেশটিতে প্রথম আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়। তবে প্রথমবারের মত দুজন আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু সনদে নাম উঠে ২০ মার্চ। গত ২৬ মার্চ চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রথম বাংলাদেশি মারা যান। এরপর থেকে নিয়মিত বাড়ছে বাংলাদেশিদের মৃত্যুর সংখ্যা। মাত্র ৬৭ দিনের ব্যবধানে এটি সমানুপাতিক হারে দাঁড়িয়ে গেছে।

আবুধাবি বাংলাদেশ দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স মিজানুর রহমান সমকালকে জানান, স্থানীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে কোন দেশের নাগরিক কতজন আক্রান্ত হয়েছেন এই হিসাব না জানালেও মৃত্যুর সংখ্যা ও মৃত ব্যক্তির সম্পর্কে জানানো হচ্ছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে তুলনামূলকভাবে কোভিড-১৯ আক্রান্ত বাংলাদেশিদের মৃত্যুর হার বেশি। শনিবার পর্যন্ত ৬০ জনের বেশি বাংলাদেশি করোনায় মারা গেছেন।

এদিকে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে আমিরাতের স্বাস্থ্য ও প্রশাসনিক দপ্তর। একদিকে রাতভর যেমন চলছে জীবাণুনাশক স্প্রে কর্মসূচি অন্যদিকে বাড়ানো হচ্ছে দৈনিক পরীক্ষার সংখ্যা। বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ হাজারের মত নাগরিকের করোনা পরীক্ষা করছে দেশটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

নিহত ২৬ বাংলাদেশিকে লিবিয়ায় দাফন
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

লিবিয়ায় মানবপাচারকারীদের গুলিতে নিহত ২৬ বাংলাদেশির মরদেহ সেখানকার মিজদাহ শহরেই কবর দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় একাধিক বাংলাদেশি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তারা জানান, মরদেহগুলো পঁচে গন্ধ হয়ে যাচ্ছিল। এদিকে যুদ্ধাবস্থা চলমান থাকায় এবং হামলাকারী লিবিয়ান ওই গোষ্ঠী চরম বিক্ষুব্ধ হয়ে থাকায় বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা সেখানে যেতে পারেননি।

হামলাকারীরা অন্য বাংলাদেশিদেরও খুঁজছে বলে জানান স্থানীয় বাংলাদেশিরা। তবে নিহত বাংলাদেশিদের স্থানীয়ভাবে দাফন করার বিষয়ে বাংলাদেশ দূতাবাস বা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

অবশ্য শুক্রবার দুপুরে দেয়া বিবৃতিতে মরদেহগুলো মিজদাহ হাসপাতালের মর্গে সংরক্ষণের ব্যবস্থার কথা জানায় মন্ত্রণালয়।

এদিকে বেনগাজীর বাংলাদেশ কমিউনিটির সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক জানান, লিবিয়ার দক্ষিণাঞ্চলের অবস্থা ভালো নয়। পরিস্থিতি এত খারাপ যে, এখনও অক্ষত অবস্থায় পালাতে সক্ষম হওয়া বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

তিনি বলেন, হামলাকারীরা জীবিত বাংলাদেশিদের অবস্থান জেনে যাওয়ায় ওই অঞ্চলে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে এবং আশ্রয়দাতাসহ অনেকেই হুমকির মুখে থাকাতে উদ্ধার কাজে কিছুটা বেগ পেতে হচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও জানায়, মিজদাহ শহরে এখন যুদ্ধাবস্থা বিরাজমান এবং এ অঞ্চলটি এখন দুটি শক্তিশালী পক্ষের যুদ্ধক্ষেত্রের মধ্যে রয়েছে। কিছুদিন আগে ত্রিপোলিভিত্তিক এবং ইউএন সমর্থিত জিএনএ সরকার এই অঞ্চলটি দখল করে নিলেও জেনারেল হাফতারের নেতৃত্বাধীন পূর্বভিত্তিক সরকারি বাহিনী দুদিন আগেও শহরটিতে বোমাবর্ষণ করে।

জার্মানিতে ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

জার্মানিতে অন্তত ১০ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে রাজধানী বার্লিনে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস। দূতাবাসের পক্ষ থেকে জার্মানিতে অবস্থানরত সব বাংলাদেশিকে সাবধানে ও নিরাপদে থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। বার্লিনে বাংলাদেশ দূতাবাস খোলা রয়েছে ।

মঙ্গলবার জার্মানিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, মোট ১০ জন বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং তারা হাসপাতালে অবস্থান করছেন। তবে বার্লিন ও ক্রেফেল্ডে দুই বাংলাদেশি আইসিইউতে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। এখানে বাংলাদেশি যারা করোনা আক্রান্ত তাদের অনেকের সাথেই দূতাবাসের কর্মকর্তারা কথা বলছেন এবং সব সময় যোগাযোগ রাখছেন ।

প্রবাসীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে রাষ্ট্রদূত ইমতিয়াজ আহমেদ বলেছেন, কোনো বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে তা যেন বাংলাদেশ দূতাবাসকে জানানো হয়। এই কঠিন সময়ে সংহতির নিদর্শনস্বরূপ জার্মানি বেশ কিছু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিকে চিকিৎসার জন্য ইতালি ও ফ্রান্স থেকে নিয়ে আসছে। কয়েক দিন ধরে বিশেষ বিমানে করে তাদের জার্মানির বিভিন্ন শহরে আনা হচ্ছে।

রাজধানী বার্লিনের মেয়র মিশায়েল মুলার জানিয়েছেন, গত শনি ও রবিবার তিনটি বিশেষ বিমানে ফ্রান্সের স্টাসবুর্গ শহর থেকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য বার্লিনে আনা হয়েছে। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর জনগণের প্রতি সহানুভূতি ও সহমর্মিতা দেখানোর এখনই প্রকৃত সময়। তিনি ইতালি থেকেও করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের বার্লিনে আনবেন বলে জানিয়েছেন। ইতিমধ্যে ইতালি থেকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের মিউনিখ, কোলন, হামবুর্গে আনা হয়েছে।

জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল এক বিবৃতিতে এই সংকটকালে সবাইকে ধৈর্য ধরতে অনুরোধ করেছেন। চ্যান্সেলর অফিসের একজন মুখপাত্র হেলগে ব্রাউন জানিয়েছেন, আগামী ২০ এপ্রিলের আগে জার্মানিতে লকডাউন-সংক্রান্ত বিধিনিষেধ শিথিল করবার কোনো সম্ভাবনা নেই।

সৌদিতে করোনায় এ পর্যন্ত ৬৮ বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

প্রবাসে করোনা ভাইরাসের সবচেয়ে থাবা মেরেছে যুক্তরাষ্ট্র ও বৃটেনে বসবাসরত বাংলাদেশিদের ওপর। এরপরেই রয়েছে সৌদি আরব।

দেশটিতে করোনা ভাইরাসের মৃত্যুর মিছিলে যোগ হয়েছে এ পর্যন্ত ৬৮ বাংলাদেশি। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজারের বেশি বাংলাদেশি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের করোনা বিষয়ক সেল রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এবং জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের দেয়া রিপোর্টে এ তথ্য দেয়া হয়েছে।

এতে উল্লেখ রয়েছে, মদিনায় মারা গেছেন ৩৪ জন বাংলাদেশি। যা সবচেয়ে বেশি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মারা গেছে মক্কায়। সেখানে ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। জেদ্দায় মারা গেছে ১০ জন।

হিসাব বলছে, সৌদি আরবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ২৪ জনই চট্টগ্রাম জেলার বাসিন্দা। এক জেলার এত প্রবাসী মারা যাওয়ার ঘটনায় হতভম্ব সৌদিস্থ চট্টলা কমিউনিটি। শোকের ছায়া নেমে এসেছে তাদের মধ্যে। এরপরেই কক্সবাজারের অবস্থান। চট্টগ্রাম বিভাগের ওই জেলার আট জন বাসিন্দা মক্কা ও মদিনায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন।

তাছাড়া কুমিল্লার পাঁচ জন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার চার জন, নোয়াখালীর তিন জন, চাঁদপুরের তিন জন, ঢাকার দুই জন, মানিকগঞ্জের দুই জন, টাঙ্গাইলের দুই জন, লক্ষ্মীপুরের দুই জন, রবিশালের দুই জন, ভোলার দুই জন এবং নড়াইলের এক জন, নরসিংদীর এক জন, বগুড়ার এক জন, খুলনার এক জন, বরগুনার এক জন, পাবনার এক জন, ফেনীর এক জন, পটুয়াখালির এক জন এবং সিলেটের এক জন বাসিন্দা মারা যাওয়ার তথ্য রয়েছে।

তবে আক্রান্তের সংখ্যাটি কয়েকটি দিন আগে জানিয়েছেন সেখানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ। তিনি জানান, সৌদি সরকারের হিসাবে ২৬০০ বাংলাদেশির করোনা শনাক্ত হওয়ার কথা বলা হয়েছে। কিন্ত অনানুষ্ঠানিক সূত্রে এ সংখ্যা সাড়ে ৩ হাজারের বেশি হবে বলে ধারণা বাংলাদেশ মিশনের।

করোনায় নিউইয়র্কে আরও ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্কে বৃহস্পতিবার আরও তিন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এর আগে বুধবার এক দিনেই সর্বোচ্চ ১০ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়। মৃত্যুর সংখ্যা কমে আসার পাশাপাশি করোনা আক্রান্ত অনেকেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার আশায় আছেন। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন সাংবাদিক ফরিদ আলম। তার আগে ফিরেছেন চিকিৎসক আতাউল ওসমানী। আর মৃত্যুর সঙ্গে তিন সপ্তাহেরও বেশি সময় লড়াই করে সুস্থতার পথে রয়েছেন স্থানীয় টাইম টিভির কর্মকর্তা ইলিয়াস খসরু। সেই সঙ্গে নিউইয়র্ক পুলিশের বেশ ক’জন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কর্মকর্তাও বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থেকে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন।

নিউইয়র্কে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। অনেকে চিকিৎসকের পরামর্শে হোম কোরেন্টাইনে থেকে ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বেশ ক’জনের অবস্থা শঙ্কটাপন্ন। তাদের মধ্যে বাংলাদেশ সোসাইটির কর্মকর্তা বাকির আজাদের অবস্থা খুবই গুরুতর। কমিউনিটির প্রিয়মুখ বাকির আজাদের সুস্থতা চেয়ে ফেসবুকে অসংখ্য পোস্ট দেখা গেছে। নিউইয়র্কে এ পর্যন্ত ৫৪ বাংলাদেশি প্রাণ হারিয়েছেন করোনায়। আর যুক্তরাষ্ট্রে সব মিলিয়ে বাংলাদেশি মারা গেছেন ৫৭ জন।

যুক্তরাষ্ট্রে দু’দিনে মারা গেছেন ১৫ বাংলাদেশি
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘন্টায় প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আরও ৫ বাংলাদেশি প্রাণ হারিয়েছেন। এ নিয়ে করোনায় গত দুইদিনে দেশটিতে মারা গেলেন মোট ১৫ বাংলাদেশি।

মঙ্গলবার নতুন করে মারা যাওয়া ৫ বাংলাদেশির মধ্যে ৪ জনই নিউইয়র্কের বাসিন্দা। বাকি একজন নিউজার্সির।

এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মারা গেলেন মোট ২৫ জন বাংলাদেশি। তবে, অনেক প্রবাসী বাংলাদেশির মতে, করোনায় সেখানে কমপক্ষে ৩৫ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

মরণব্যাধি করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে, বাড়ছে উৎকণ্ঠা। দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যাও ৪ হাজার পেরিয়েছে।

প্রতিদিনই দীর্ঘ হচ্ছে করোনায় মৃত্যুর মিছিলে। প্রতি মুহুর্তে মৃতদের তালিকায় যোগ হচ্ছে নতুন নতুন নাম। তবে সবচেয়ে করুণ অবস্থা নিউইয়র্ক নগরীর।

সেখানকার বাসিন্দারা ঘুমাতে যান মৃত্যুর কথা শুনে। আবার ঘুম ভেঙেও শুনেন মৃত্যুর সংবাদ। এই রকম কঠিন বাস্তবতা নিয়ে বেঁচে আছেন ওই রাজ্যের বাসিন্দারা।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন মুজিব বাহিনীর গেরিলা কমান্ডার ইঞ্জিনিয়ার ইব্রাহিম খানসহ দুজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহত অপর ব্যক্তি প্রবাসী সাংবাদিক এ হাই স্বপন। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ২৫ বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে।

ইব্রাহিম খান (৭৯) মঙ্গলবার ভোরে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের ব্রকলিনের কিংস কাউন্টি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন।

তার ছোট ভাই বদরুল আলম জানান, আগামী বৃহস্পতিবার ব্রকলিনেই তাকে দাফন করা হবে।

ইব্রাহিম খান চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার জিরি এলাকার বাসিন্দা। তিনি আওয়ামী যুবলীগের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা। তার স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছেন।

ইঞ্জিনিয়ার ইব্রাহিম খানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন পটিয়ার এমপি ও হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

এদিকে প্রবাসী সাংবাদিক এ হাই স্বপনও নিউইয়র্কের জ্যামাইকাতে একটি হাসপাতালে সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে ১১টায় মারা যান।

শুক্রবার করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন স্বপন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ ও কিডনি সমস্যায় ভুগছিলেন।

নিউইয়র্কে যাওয়ার আগে এ হাই স্বপন মানবজমিনের সিনিয়র ফটোসাংবাদিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

দুই বছর আগে নিউইয়র্কে তার ওপেন হার্ট সার্জারি হয়েছিল। এরপর তার কিডনি বিকল হয়ে যাওয়ায় তা ট্রান্সপ্লান্টের প্রস্তুতি চলছিল। এর মধ্যে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরীক্ষায় তার করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে একের পর এক বাংলাদেশির মৃত্যুর ঘটনায় প্রবাসীদের মধ্যে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

করোনায় নিউ ইয়র্কে ১৮ বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

নিউ ইয়র্কে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ৫ জন বাংলাদেশি মারা গেছেন। এদের দেশের বাড়ি সিলেটের গোলাপগঞ্জ থানার রণকেলী গ্রামে, একজনের যশোরে এবং অন্য আরেকজনের বাড়ি ফরিদপু্রে। সবার পরিচয় জানা গেলেও পারিবারিক আপত্তির ফলে তাদের নাম প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না। এ নিয়ে নিউ ইয়র্কে করোনায় ১৮ জন বাংলাদেশির মৃত্যু ঘটেছে বলে জানা গেছে।

এ দিকে শুধু নিউ ইয়র্কে করোনাভাইরাসে হয়েছেন আক্রান্ত ৫৯ হাজার ৬৪৮ জন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৯৬৫ জন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মারা গেছে ২৪৮৪ জন। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ৪২ হাজার ৪ জন। এ সংখ্যা প্রতি ঘন্টায় পরিবর্তন হচ্ছে।

পাকিস্তানির হাতে বাংলাদেশি খুন
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

দুবাইয়ে মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কথাকাটাকাটির জেরে পাকিস্তানিদের হাতে এক বাংলাদেশি খুন হয়েছে। দুবাইতে কর্মরত মো. রফিকুর ইসলাম রফিক (৫৬) নামে এক বাংলাদেশিকে খুন হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নিহতের গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ৬ নম্বর আনাইতারা ইউনিয়নের আটিয়া মামুদপুরে। পিতা মো. সিদ্দিকুর রহমান।

রফিকুল ইসলামের খালাতো ভাই ও আনাইতারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মো. সেকান্দার আলী জানান, তিনি দীর্ঘ দিন ধরে দুবাইতে একটি কোম্পানিতে চাকরি করতেন।

কয়েক দিন আগে ঐ কোম্পানীতে পাকিস্তানি বেশ কয়েকজন শ্রমিকের সঙ্গে বাংলাদেশে ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধ নিয়ে রফিকুল ইসলামের কথাকাটি হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পাকিস্তানি শ্রমিকরা রফিকুলকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয় বলে টেলিফোনে জানিয়েছিল।

ঘটনার তিন চারদিন পর রফিকুল কোম্পানীতে কাজ করতে গেলে পাকিস্তানি ঐ শ্রমিকরা প্রতিশোধ হিসেবে রফিকুলকে নির্মম ভাবে খুন করে লাশ ঝুলিয়ে রাখে। ঘটনা জানাজানি হলে দুবাইতে বিভিন্ন কোম্পানীতে কর্মরত বাংলাদেশিদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পরে।

শুক্রবার দুবাই থেকে নাগরপুর উপজেলার মুকনা ইউনিয়নের কেদারপুর গ্রামের এক যুবক রফিকুলের বাড়িতে খুনের বিষয়টি টেলিফোনে জানায়। খবর শুনেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন রফিকুলের বৃদ্ধা মা সুফিয়া বেগম ও স্ত্রী জহুরা বেগম।

মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক এবং মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমান বলেন, লাশ আনার ব্যাপারে সার্বিক সহযোগিতা করবে বাংলাদেশ ও দুবাই দুতাবাস। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসন থেকে রফিকুল ইসলামের পরিবারের সকল ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করা হবে বলে এই দ্ইু কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে ৬ নম্বর আনাইতারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, দুবাইতে পাকিস্তানীদের হাতে খুন হওয়া রফিকুলের লাশ দেশে আনার জন্য তার পরিবারকে সকল ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

করোনায় স্পেনে প্রথম বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে স্পেনের মাদ্রিদে এক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এটি স্পেনে প্রথম কোনো বাংলাদেশির মৃত্যু। বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) রাজধানী মাদ্রিদে ভোর ৪টার দিকে বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। বেশকিছু দিন থেকে সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভুগছিলেন তিনি। পরে পরীক্ষা করার পরে তার শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর থেকে নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন ছিলেন।

প্রবাসী ওই বাংলাদেশি পরিবার নিয়ে স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে বসবাস করতেন। তার গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জে।
বিশ্বে ইতালির পরে স্পেনেই মৃতের সংখ্যা এখন সবচেয়ে বেশি। ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে স্পেনে মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৩৬৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ৭১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

নিউইয়র্কে করোনায় চার বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্কে এক দিনে চার বাংলাদেশি মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় তাদের মৃত্যু হয়। তাদের মধ্যে দুজন নারী ও দুজন পুরুষ। এ নিয়ে নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে মোট আটজন বাংলাদেশি মারা গেলেন।

নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, এলমহার্স্ট হসপাতালে ৬০ বছরের আবদুল বাতেন, ৭০ বছরের নুরজাহান বেগম এবং ৪২ বছরের এক বাংলাদেশি প্রবাসী নারী মারা যান। আর প্লেইনভিউ হাসাপাতাল নর্থওয়েলে মারা গেছেন ৫৯ বছরের এ টি এম সালাম। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত রোগী নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে। সেখানে প্রতিদিন আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দ্বিগুণ হচ্ছে। নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে করোনা বুলেটের গতিতে ছড়াচ্ছে, বলেছেন রাজ্যের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো। নিউইয়র্কে এখন পর্যন্ত করোনায় কমপক্ষে ২১০ জন মারা গেছেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অঙ্গরাজ্যটিতে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়িয়েছে। বাড়ছে মৃত মানুষের সংখ্যাও।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আবদুল বাতেনের বাড়ি নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ী। তিনি ব্রুকলিনে বসবাস করতেন। ৪২ বছরের ওই নারীর বাড়ি মৌলভীবাজার জেলায়। তিনি অ্যাস্টোরিয়ায় বাস করতেন। রংপুরের এ টি এম সালাম থাকতেন ওয়েস্ট বে লং আইল্যান্ড এলাকায়। ঢাকার মোহাম্মদপুরের নুরজাহান বাস করতেন এলমহার্স্ট এলাকায়। মৃত ব্যক্তির স্বজনেরা আগে এক দিনে লাশ হাতে পেতেন। এখন হাসপাতালগুলোর ব্যস্ততার জন্য দুদিন সময় লাগছে।

বোর্ড অব ইলেকশনের সদস্য মাজেদা আক্তার বলেন, ‘মেয়র অফিস থেকে আমাদের জানানো হয়েছে, আক্রান্ত ব্যক্তিদের বেশির ভাগই ট্যাক্সিচালক এবং ডেলিভারির কাজে নিয়োজিত মানুষ। তাদের মাধ্যমে পরিবারের সদস্যরাও আক্রান্ত হয়েছেন।’

মাজেদা আক্তার আরও বলেন, ‘আমরা যারা বাংলাদেশি কমিউনিটির উন্নয়নের জন্য কাজ করি, তাদের মেয়র অফিস থেকে বাংলাদেশি মানুষের মৃত্যুর সংবাদগুলো জানানো হয়েছে।

এর আগে গত ২৩ মার্চ মারা গেছেন ৩৮ বছরের আমিনা ইন্দ্রালিব তৃষা এবং ৬৯ বছরের মোহাম্মদ ইসমত। আগের সপ্তাহে মারা গেছেন মোতাহের হোসেন ও মোহাম্মদ আলী নামের দুজন বাংলাদেশি।

বিশ্বজুড়ে ১৮ হাজার ৮৯১ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনাভাইরাস। এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ২২ হাজার ৬১৩। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১ লাখ ৮ হাজার ৮৭৯ জন।

এখন পর্যন্ত ১৯৭টি দেশ ও অঞ্চলে করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ জন। ফলে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯। এখন পর্যন্ত চারজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এবং ৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

ইতালিতে করোনায় এক বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতালিতে প্রথম এক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৮ চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিলানের নিউগোয়ারদা হাসপাতালে তিনি মারা যান (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না লিল্লাহি রাজিউন)।

জানা গেছে, নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগজ্ঞের গোলাম মাওলা (৫৫) নামের ওই ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবত সর্দিকাশিও শ্বাসকষ্টজনিত কারণে ভূগছিলেন। গত ১৫ দিনে আগে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হলে তার শরীরে করোনাভাইরাস শণাক্ত হয়। শুক্রবার রাত ৮ টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন। তাদের পুরো পরিবারকে হোমকোয়ারেন্টাইন রাখা হয়েছে।

গোলাম মাওলার মৃত্যুতে মিলানে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মিলানস্হ বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতির সাবেক সহ সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার ফিরোজ আলম ও সাবেক সাধারন সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম মামুন বলেন, তিনি একজন ভালো মানুষ ছিলেন তার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত।

নিউইয়র্কে করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশির মৃত্যু
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

নিউইয়র্কে করোনা ভাইরাসে প্রথমবারের মতো দুই বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। গতরাতে (বৃহস্পতিবার) বিষয়টি জানলেও তা কোনোভাবেই কনফার্ম হওয়া যাচ্ছিল না। এ নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় কথা বলেছি। যোগাযোগ করেছি বাংলাদেশ দূতাবাস ও নিউইয়র্ক কনস্যুলেটে। কিন্তু বাস্তবতা হলো কোভিড-১৯ ভাইরাসে মৃতের পরিচয় খোদ যুক্তরাষ্ট্র সরকারই গোপন রাখছে। সরকারসহ বিভিন্ন সূত্র শুধুমাত্র আক্রান্ত ও মৃতের প্রকৃত সংখ্যা জানাচ্ছে। তাই যে কারো পক্ষে পরিচয় নিশ্চিত হওয়া কঠিন।

করোনায় আক্রান্তদের পরিবারও সামাজিক কারণে তা প্রকাশ করছেন না। কেননা, কোভিড-১৯ এমনই ভয়াবহ যে মা তার সন্তানের কাছে, সন্তান তার মায়ের কাছেও যেতে পারছে না। এ অবস্থায় মৃত এক বাংলাদেশির নিকটজন সময় সংবাদকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তাই দেরীতে হলেও মৃত্যুর খবর জানাচ্ছি।

এ নিয়ে যখন রিপোর্ট তৈরির প্রস্তুতি নিচ্ছি তখন আমার নিকট একজনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্তের খবর পেলাম। তিনি নিউইয়র্কের একজন রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী। এ নিয়ে ২১ জন বাংলাদেশি প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর মিলেছে।

তবে আমার ধারণা, বাংলাদেশিদের আক্রান্ত হওয়ার প্রকৃত সংখ্যা অনেক বেশি। কেননা, নিউইয়র্কে মিডিয়া পরিবারের তিনজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তারা খবরটি প্রকাশ করছেন না। যেখানে মিডিয়ার মানুষই মিডিয়াকে তথ্য দিচ্ছে না সেখানে অন্যদের অবস্থাটা কি তা নিশ্চয়ই অনুমান করা যায়।

পরিস্থিতি সত্যিই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে।

মালয়েশিয়ায় ছয় লাখ বাংলাদেশি গৃহবন্দি
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকায় এবং এর বিস্তার ঠেকাতে লকডাউন (ঘরে অবরুদ্ধ) ঘোষিত মালয়েশিয়ায় সবধরণের কোম্পানিও বন্ধ রয়েছে। এতে গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন বাংলাদেশি ছয় লাখ বৈধ প্রবাসীসহ আরও কয়েক লক্ষাধিক অবৈধ প্রবাসী।

১৮ মার্চ থেকে সরকারের বেঁধে দেয়া এ আদেশ চলবে ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে গত মঙ্গলবার দুইজনের প্রাণহানি ঘটে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৯০০ জন। সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৭৫ জন। আক্রান্তদের সবাই দেশটির নাগরিক। তবে কোন বাংলাদেশি আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে প্রাণঘাতি ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকাতে চলমান “ভিজিট মালয়েশিয়া ২০২০” ক্যাম্পেইন বাতিল করেছে দেশটির পর্যটন ও শিল্প-সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

দ্যা স্ট্রেইট টাইমসের অনলাইন প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ন্যান্সি শুকরি বলেন, কোভিড-১৯ মহামারি স্থানীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রভাব ফেলায় এটি বাতিল করা হলো।

বাংলাদেশি প্রবাসীদের কল্যাণে গঠিত সামাজিক সংগঠন ‘সিলেট ডায়নামিক ফেডারেশন’-এর প্রতিষ্ঠাতা ও ‘জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন মালয়েশিয়া শাখা’-এর সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ এনামুল হক জানান, প্রাণঘাতি করোনার কারণে সর্বসাধারণের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে আনতে নেয়া হয়েছে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা। বিনা কারণে ঘর থেকে বের হলেই নেয়া হচ্ছে কঠোর ব্যবস্থা। এ অবস্থায় বাংলাদেশিসহ সকল প্রবাসী গৃহবন্দি হয়ে চরম দুশ্চিন্তা-আতঙ্ক ও অনিশ্চয়তায় দিনাতিপাত করছেন। সাময়িক অসুবিধা হলেও অবস্থানরত দেশের নিয়ম-কানুন মেনে চলার জন্য সকল প্রবাসীর প্রতি বিণীত অনুরোধ করেন তারা।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস রুখতে দেশটির সব মসজিদ বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। এছাড়া সবধরনের ধর্মীয় জমায়েত ১০ দিনের জন্য বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। মহামারি ঠেকাতে গোটা মালয়েশিয়া লকডাউন করে দিয়েছে সরকার।

ইতালিতে জরুরি আইন অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশি আটক
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

মরণঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিপর্যস্ত ইতালিতে জারি করা জরুরি অবস্থা আইন অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছে। রবিবার (১৫ মার্চ) সন্ধ্যায় ইতালির নাপোলির সান জুসেপ্পে ভেসুভিয়ানো এলাকা থেকে তাদের আটক করে স্থানীয় পুলিশ। ইউরোপের মধ্যে ইতালিতে সবচেয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। ইতালিতে আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ হাজার ৭৪৭। এরমধ্যে এক হাজার ৮০৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা গ্রহণের পর সুস্থ হয়ে উঠেছে দুই হাজার ৩৩৫ জন।

করোনার বিস্তার ঠেকাতে ইতোমধ্যে পুরো ইতালিকে রেড জোনের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। দেশটির সব শহরের প্রবেশদ্বারে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এক শহর থেকে অন্য শহরে যাতায়াত করতে দেওয়া হচ্ছে না। শহরে মাইকিং করে ঘর থেকে বের না হওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে। এরপরও যারা অকারণে বাইরে বেরোচ্ছেন তাদের জরিমানা গুণতে হচ্ছে, পড়তে হচ্ছে শাস্তির মুখেও। রেড জোনের আইন কেউ অমান্য করলে ২০৬ ইউরো জরিমানার বিধান করা হয়েছে। অন্যথায় ৩ মাস থেকে ২১ বছর পর্যন্ত জেলও হতে পারে। তবে সরকারি অনুমোদন সাপেক্ষে সফরের সুযোগ রয়েছে। স্থানীয় পৌর প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আটককৃত বাংলাদেশিরা খাদ্য সামগ্রী ক্রয় কিংবা জরুরী প্রয়োজনে বের হওয়ার কোনও প্রমাণ পুলিশকে দেখাতে পারেননি। ‘রেড জোন’র আওতায় সরকারি নির্দেশনা অনুসারে, এই পরিস্থিতিতে নির্দিষ্ট কারণ চিহ্নিত একটি অনুমতি পত্রে নির্দিষ্ট স্থানে বাইরে যাওয়ার অনুমতি রয়েছে। কিন্তু আটক বাংলাদেশিরা এই নিয়ম মেনে চলেননি। এছাড়া একজনের কাছ থেকে অপর জনের ১ মিটার দুরত্ব বজায় রাখতে ইতালির সরকারের নির্দেশনা থাকলেও তারা তা মানেননি। ফলে ইতালির আইনে পুলিশ ৬৫০ ধারায় ৯ জন বাংলাদেশিকে আটক এবং সরকারী আইন লঙ্ঘন করায় সংশ্লিষ্ট আইনে জনপ্রতি ২০৬ ইউরো জরিমানা করেঠে। পরে করোনা সন্দেহে যাচাইকরণের জন্যতাদেরকে দুই সপ্তাহের জন্য হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে পুলিশ।


   Page 1 of 3
     প্রবাসে বাংলা
উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার
.............................................................................................
এমপি পাপুল এখন কুয়েত কারাগারে বন্দি
.............................................................................................
আমিরাতে করোনায় ৬০ বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
নিহত ২৬ বাংলাদেশিকে লিবিয়ায় দাফন
.............................................................................................
জার্মানিতে ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত
.............................................................................................
সৌদিতে করোনায় এ পর্যন্ত ৬৮ বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
করোনায় নিউইয়র্কে আরও ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে দু’দিনে মারা গেছেন ১৫ বাংলাদেশি
.............................................................................................
করোনায় নিউ ইয়র্কে ১৮ বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
পাকিস্তানির হাতে বাংলাদেশি খুন
.............................................................................................
করোনায় স্পেনে প্রথম বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
নিউইয়র্কে করোনায় চার বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
ইতালিতে করোনায় এক বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
নিউইয়র্কে করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় ছয় লাখ বাংলাদেশি গৃহবন্দি
.............................................................................................
ইতালিতে জরুরি আইন অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশি আটক
.............................................................................................
স্পেনে ৮ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত, আশঙ্কাজনক ২
.............................................................................................
লন্ডনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
ব্রিটেনে করোনায় বাংলাদেশীর মৃত্যু
.............................................................................................
সৌদিতে সড়ক দূর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
মদিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
করোনাভাইরাসঃ দ. কোরিয়ায় আতঙ্কে বাংলাদেশিরা
.............................................................................................
জাপানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
.............................................................................................
ইতালিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে নিউইয়র্কে গণস্বাক্ষর অভিযান
.............................................................................................
ভারতে গণতন্ত্র বিপন্ন
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়ে বাড়ছে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা
.............................................................................................
কুয়েতে নিজ কর্মস্থলে দুর্ঘটনায় বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
আফগানিস্তানে অপহৃত ব্র্যাকের ২ কর্মকর্তা উদ্ধার
.............................................................................................
দ. আফ্রিকায় বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা
.............................................................................................
দুবাইয়ে সেপটিক ট্যাংকে নেমে ২ বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
রিয়াদে সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
সৌদিতে ওমরাহ পালন করে ফেরার পথে ৪ বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
জেদ্দায় আরাফাত রহমান কোকো ১ম মৃত্যু বার্ষিকীতে দোয়া ও আলোচনা সভা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ হাজী মোবারক হোসেন।। সহ-সম্পাদক : কাউসার আহম্মেদ।
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু।

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, mannan2015news@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- mannan dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop