| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
যুক্তরাজ্য: কয়েকমাসে রুশ তেলে নিষেধাজ্ঞা, আওতামুক্ত গ্যাস

যুক্তরাষ্ট্রের পর যুক্তরাজ্যও রাশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানি নিষিদ্ধ করার কথা ভাবছে বলে জানায় বিবিসি। 

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মঙ্গলবার (৮ মার্চ) একথা ঘোষণা করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, আগামী কয়েকমাসে পর্যায়ক্রমে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে এবং রাশিয়ার গ্যাস এর আওতায় পড়বে না।

এদিকে, বৃটিশরা ইতোমধ্যেই তেলের বাজারে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব টের পাচ্ছেন। 

রোববার (৬ মার্চ) রয়্যাল অটোমোবাইল ক্লাব (আরএসি) জানায়, যুক্তরাজ্যে পেট্রোলের দাম গড়ে প্রতি লিটারে ১ পাউন্ড ৫০ পেনি বেড়েছে।

এই যুদ্ধের কারণে গ্যাসের দামও বেড়েছে এবং যুক্তরাজ্যে বসতবাড়িতে বার্ষিক গ্যাসের বিল তিন হাজার পাউন্ড পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে বলে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

রাশিয়া থেকে সরবরাহ কমে যাওয়ার আশঙ্কায় সাম্প্রতিক দিনগুলোতে যুক্তরাজ্য ও ইউরোপে গ্যাসের দাম রেকর্ড পর্যায়ে পৌঁছেছে।

 

যুক্তরাজ্য: কয়েকমাসে রুশ তেলে নিষেধাজ্ঞা, আওতামুক্ত গ্যাস
                                  

যুক্তরাষ্ট্রের পর যুক্তরাজ্যও রাশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানি নিষিদ্ধ করার কথা ভাবছে বলে জানায় বিবিসি। 

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মঙ্গলবার (৮ মার্চ) একথা ঘোষণা করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, আগামী কয়েকমাসে পর্যায়ক্রমে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে এবং রাশিয়ার গ্যাস এর আওতায় পড়বে না।

এদিকে, বৃটিশরা ইতোমধ্যেই তেলের বাজারে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব টের পাচ্ছেন। 

রোববার (৬ মার্চ) রয়্যাল অটোমোবাইল ক্লাব (আরএসি) জানায়, যুক্তরাজ্যে পেট্রোলের দাম গড়ে প্রতি লিটারে ১ পাউন্ড ৫০ পেনি বেড়েছে।

এই যুদ্ধের কারণে গ্যাসের দামও বেড়েছে এবং যুক্তরাজ্যে বসতবাড়িতে বার্ষিক গ্যাসের বিল তিন হাজার পাউন্ড পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে বলে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

রাশিয়া থেকে সরবরাহ কমে যাওয়ার আশঙ্কায় সাম্প্রতিক দিনগুলোতে যুক্তরাজ্য ও ইউরোপে গ্যাসের দাম রেকর্ড পর্যায়ে পৌঁছেছে।

 

রাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে ইউরোপ
                                  

পূর্ব ইউক্রেনে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত দুই অঞ্চলকে রাশিয়া স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দিয়ে সেখানে সেনা মোতায়েনের প্রেক্ষিতে ইউরোপ ইতিমধ্যেই নানা অবরোধ ও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে শুরু করেছে রাশিয়ার ওপরে। 

সোমবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দোনেৎস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেওয়ার ডিক্রিতে স্বাক্ষর করেন পুতিন। পরে ‘শান্তি বজায় রাখতে’ ওই অঞ্চলে রাশিয়ান বাহিনী মোতায়েনের নির্দেশ দেন তিনি। 

পুতিনের এই আগ্রাসী সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাশিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা ভাবছে ইউক্রেন, রাশিয়ার পাঁচটি ব্যাংক ও কয়েক ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাজ্য, নর্ড স্ট্রিম ২ গ্যাস পাইপ প্রকল্প বন্ধ করছে জার্মানি, আর যুক্তরাজ্যের মতো একাধিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তাব বিবেচনা করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

বিবিসির ইউরোপ সংবাদদাতা ক্যাটিয়া অ্যাডলার বলছেন, বিশেষ ব্যক্তির বিরুদ্ধে বা বিশেষ লক্ষ্যে নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নে। যদি ইউক্রেনে রাশিয়া তার সামরিক কর্মকাণ্ড আরও বৃদ্ধি করে, তাহলে নিষেধাজ্ঞা আরও জোরদার করা হবে। 

রাশিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা ভাবছে ইউক্রেন

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জানিয়েছেন, রাশিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে তার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি অনুরোধ তিনি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছেন।

একটি সংবাদ সম্মেলনে তিনি ইউরোপিয় মিত্র দেশগুলোর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন, তারা যেন রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে দেরি না করে।

রাশিয়ার সঙ্গে বড় ধরনের যুদ্ধ বাধবে না বলে তিনি মনে করলেও, মি. জেলেনস্কি জানিয়েছেন, প্রয়োজনে তিনি দেশে ‘মার্শাল ল’ জারি করতে প্রস্তুত রয়েছেন।

নর্ড স্ট্রিম ২ গ্যাস পাইপ প্রকল্প বন্ধ করছে জার্মানি

জার্মানির চ্যান্সেলার ওলাফ শলৎজ বলেছেন রাশিয়ার সর্বসাম্প্রতিক পদক্ষেপের পর নর্ড স্ট্রিম ২ গ্যাস পাইপলাইন প্রকল্প চালুর অনুমোদন জার্মানি দেবে না।

রাশিয়া ও জার্মানির মধ্যে এই পাইপলাইনের কাজ শেষ হয়েছে গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে, কিন্তু পাইপলাইনটি এখনও চালু হয়নি।

রাশিয়ার পাঁচটি ব্যাংকের ওপর যুক্তরাজ্যের নিষেধাজ্ঞা জারি

রাশিয়ার পাঁচটি ব্যাংকের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাজ্য। এগুলো হলো রোসিয়া, আইএস ব্যাংক, জেনারেল ব্যাংক, প্রোমসভায়াজ ব্যাংক এবং ব্ল্যাক সি ব্যাংক।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে এই নিষেধাজ্ঞা জারির ঘোষণা করেন।

সেই সঙ্গে রাশিয়ার তিনজন ব্যক্তির সকল সম্পদের পরেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তারা হলেন গেনেডি তিমচেনঙ্কো, বরিস রোটেনবার্গ এবং ইগোর রোটেনবার্গ।

আরও পড়ুন: আশা, আশঙ্কা ও অনিশ্চয়তার দোলাচলে দোনেৎস্ক

যুক্তরাজ্যে থাকা তাদের সকল সম্পদ জব্দ অবস্থায় থাকবে। তারা যুক্তরাজ্যে যাতায়াত করতে পারবেন না। যুক্তরাজ্যের কোন নাগরিক তাদের সঙ্গে ব্যবসাবাণিজ্য করতে বা সম্পর্ক রাখতে পারবেন না।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন যুক্তরাজ্যের সহযোগী ও মিত্র দেশগুলোকেও রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা জারি করার আহ্বান জানিয়েছেন।

যেসব নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বিবেচনা করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

-দোনেৎস্ক এবং লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতির দেয়ার সিদ্ধান্তের সঙ্গে যারা যারা জড়িত রয়েছেন (যাদের মধ্যে রাশিয়ান পার্লামেন্টের ৩৫১ জন সদস্য ও রয়েছেন), এবং যে ১১ জন ব্যক্তি ওই প্রস্তাবটি তুলেছেন তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা। 

-যেসব ব্যাংক রাশিয়ার সামরিক বাহিনী এবং ওই অঞ্চলের কর্মকাণ্ডে অর্থায়ন করে সেগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা। 

-ইউরোপীয় ইউনিয়নের মূলধনী বা আর্থিক বাজারে রাশিয়ার রাজ্যগুলো বা সরকারের সংশ্লিষ্টতার সুযোগ স্থগিত করা। 

-বিচ্ছিন্নতাবাদী দুইটি অঞ্চলের সঙ্গে সকল প্রকার ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ করা। যারা এটি করবেন, তাদের আর্থিক শাস্তি নিশ্চিত করা।

-এসব নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে হলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭ দেশের সকল সদস্যের সম্মতি থাকতে হবে। তবে পররাষ্ট্র নীতির প্রশ্নে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশগুলোর মধ্যে মতভিন্নতা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা।

এদিকে, পশ্চিমা দেশগুলোর মতো ব্রাসেলসও রাশিয়ার বিরুদ্ধে যৌথ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে চায়। কিন্তু কূটনীতিকরা আশঙ্কা করছেন, হাঙ্গেরি এসব নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে একমত নাও হতে পারে। কারণ দেশটির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর ওরবান মস্কোর সঙ্গে খুবই ঘনিষ্ঠ।

এছাড়া জ্বালানি সরবরাহ এবং কম মূল্যে প্রাপ্তির কারণে রাশিয়ার ওপর ভবিষ্যতে আরও নিষেধাজ্ঞা আরোপের ব্যাপারে নিজেদের দ্বিধার কথা পরিষ্কার করে দিয়েছে জার্মানি, ইটালি এবং অস্ট্রিয়া।

 

শ্রমিক খরচ বেড়েছে পর্তুগালের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে
                                  

২০২১ সালে পর্তুগালে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোতে শ্রমিক ব্যয় বেড়েছে শতকরা ২.৫ শতাংশ। এটি ধারাবাহিকভাবে বাড়তে থাকবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সোমবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্তুগালের জাতীয় পরিসংখ্যান ইনস্টিটিউটে (আইএনই) এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

২০২১ সালের শ্রমিক ব্যয় সূচক (আইসিটি) ২.৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, যা শ্রমিকদের বেতন ব্যয়ের মোট ১.৯ শতাংশ। অন্যান্য খরচে ৪.৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, সেক্ষেত্রে সরকারি এই পরিসংখ্যান প্রতিষ্ঠানটি শ্রমিক খরচের হারকে ঊর্ধ্বগতির দিকেই ইঙ্গিত করেছে।

 পরিসংখ্যান ব্যুরোর মতে, মহামারি করোনাভাইরাস শুরু হওয়ার পর থেকে লে-অফে থাকা পর্তুগিজ স্থানীয় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিমাণ হ্রাস পেয়েছে। মহামারিকালীন আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে ওঠতে বেশিরভাগ পর্তুগিজ কোম্পানিই তাদের ব্যবসায়ের জন্য সরকারি অনুদানের অন্তর্ভুক্ত ছিলেন। করোনা কমতে শুরু করায় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো লে-অফে সিস্টেমের বহির্ভূত হচ্ছেন বা নিজস্বভাবে আর্থিক পরিচালনা করছেন।

তাদের মধ্যে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানই মহামারি পরবর্তীতে দেশের অর্থনীতিকে পুনরুদ্ধারের জন্য ব্যক্তি উদ্যোগে এককভাবে সামাজিক নিরাপত্তা কাঠামো ফি (সেগুরান্সা সোশ্যাল) দিয়েছেন। অর্থাৎ শ্রমিকদের বেতনের নির্দিষ্ট একটি অংশ শ্রমিকদের বেতন থেকে কেটে সেগুরান্সা সোশ্যালের জন্য রাখা হতো। যা এখন বেশিরভাগ ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানই সম্পূর্ণ অংশ বহন করে থাকেন। প্রধানত এই কারণেই শ্রমিক ব্যয় বেড়েছে।

এছাড়াও প্রতিদিন বেড়ে চলেছে পর্তুগালের চাকরির সর্বনিম্ন বেতন ভাতা। চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে পর্তুগিজ সর্বনিম্ন বেতন নির্ধারণ করা হয়েছে ৭০৫ ইউরো যা আগে ছিল ৬৬৫ ইউরো। নতুনভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে ৪০ ইউরো। এতে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গুলোতে নিয়োজিত শ্রমিকদের ব্যয়ভারও বৃদ্ধি পেয়েছে।

 
27 শে ফেব্রুয়ারি পৌরসভার ভোটে প্রচার চলছে জোর কদমে
                                  

27 শে ফেব্রুয়ারি পৌরসভার ভোটে প্রচার চলছে জোর কদমে এলাকায় এলাকায়, ....। বরানগরের সার্বিক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে, আসন্ন বরানগর পৌরসভা নির্বাচনে, 33 নম্বর ওয়ার্ড ও 34 নম্বর ওয়ার্ডের সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের মনোনীত প্রার্থী ,বাংলার জননেত্রী মমতা ব্যানার্জীর আশীর্বাদ ধন্য ,অমর পাল মহাশয় এবং শ্রীমতি রিতা মুখার্জি (বিউটি), ভোট প্রচারে নামলেন এবং একটি বিশাল র্যালি করলেন, দুই প্রার্থীকে পুনরায় ভোটে জয়যুক্ত করুন , প্রচার শুরু করেন তৃণমূলের কার্যালয় অফিস থেকে , কুঠিঘাট হয়ে জয়রাম ধাম ,রায় যতীন্দ্রনাথ চৌধুরী লেন, বেনেপাড়া, মুন্সিঘাট, রামেশ্বর ষষ্ঠীতলা হয়ে পুনরায় তৃণমূল কার্যালয়ে এসে শেষ হয়, এই মিছিলে কয়েকশো ছেলে মেয়ে ও তৃণমূল কর্মী, সদস্য যোগদান করেন, মিছিলের প্রথমভাগে ছিলেন বিধায়ক তাপস রায় মহাশয় সহ দুই প্রার্থী অমর পাল মহাশয় ও শ্রীমতি রিতা মুখার্জি, এছাড়া ছিলেন অজিত দত্ত, অভিনব বোস ,শিবানী বৈরাগী, পম্পা বৈরাগী, সোমা ,প্রশান্ত, তাপসী ,দেব জিৎ ,টুম্পা, কৌশিক, সুনিতা, শিব শংকর, বাপ্পা ,সোমনাথ, বুড়ো ,দেবপ্রিয় সহ অন্যান্য তৃনমূল সদস্য বৃন্দ। মাননীয় প্রার্থী অমর পাল মহাশয় বলেন এদের ছাড়া কখনই কোন কিছু করা সম্ভব নয় যারা বিভিন্ন কাজে আমাকে সহযোগিতা করে, এছাড়া এলাকার বাসিন্দাদের উদ্দেশ্যে জানান, আপনারা নির্ভয়ে ভোট দিন, জোড়া ফুলে ভোট দিন, এবং সকাল সকাল গিয়ে নিজের ভোট নিজে দিবেন। 27 এ ফেব্রুয়ারি আজ কি দিন নির্ভয়ে ভোট দিন, রিপোর্টার বরানগর থেকে শম্পা দাস ও সমরেশ রায়

করোনায় বিশ্বে কমেছে শনাক্ত ও মৃত্যু
                                  

গেলো ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আরও সাত হাজার ৭৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৮ লাখ ৫৪ হাজার ২৩৭ জন। 

এর আগে শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিশ্বে ১০ হাজার ৮৫৪ জনের মৃত্যু এবং ২৩ লাখ ৩ হাজার ৪০৬ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন।

রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য পাওয়া যায়।

বিশ্ব এখন পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ কোটি ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৮৮০ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫৮ লাখ ৫৭ হাজার ৮৬১ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৩ কোটি ৬ লাখ ৪৭ হাজার ৪০৩ জন।

ওমিক্রনের কারণে ইউরোপ জুড়ে করোনার প্রকোপ কিছুটা কমে আসলেও ওই অঞ্চলের একাধিক দেশে বাড়ছে শনাক্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় জার্মানিতে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৫১ হাজার ৮৭১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১২২ জনের। রাশিয়ায় আক্রান্ত দুই লাখ তিন হাজার ৭৬৬ জন এবং মৃত্যু ৭২৯ জন, ব্রাজিলে আক্রান্ত এক লাখ ৩৪ হাজার ২২৮ জন এবং মৃত্যু ৮৯২ জন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ৮৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আক্রান্ত ৫৯ হাজার ৫৭৯ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত এক লাখ ১৮ হাজার ৬১১ জন এবং মৃত্যু ১৬১ জন, জাপানে আক্রান্ত ৯৮ হাজার ১৭৩ জন এবং মৃত্যু ১৪২ জন, তুরস্কে আক্রান্ত ৮৬ হাজার ১৯৩ জন এবং মৃত্যু ২৭২ জন, নেদারল্যান্ডসে আক্রান্ত ৭০ হাজার ৩৫১ জন এবং মৃত্যু ১২ জন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

 

উগ্র ধর্মীয়বাদের বিরুদ্ধে প্রতীক হয়ে উঠেছেন যে নারী
                                  

মুসলিম শিক্ষার্থীদের হিজাব পরা নিয়ে ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে চলছে ব্যাপক বিক্ষোভ-প্রতিবাদ। এরই মাঝে উগ্র ধর্মীয় জাতীয়তাবাদের বিরুদ্ধে এই আন্দোলনের প্রতিচ্ছবি হয়ে দাঁড়িয়েছেন বোরখা-হিজাব পরিহিত এক কলেজ শিক্ষার্থী। 

বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে মুসকান খান নামে ওই শিক্ষার্থীর একটি ভিডিও। এতে দেখা যায়, কলেজে প্রবেশ করার সময় একদল যুবক তার পিছু নিয়েছেন।

ভারতীয় হিন্দু জাতীয়তাবাদের প্রতীক গেরুয়া শাল পরিহিত ওই যুবকেরা `জয় শ্রী রাম` শ্লোগান দিয়ে মুসকানের প্রতি নিন্দা প্রকাশ করেন।

এসময় পাল্টা শ্লোগান দিয়ে প্রতিউত্তর দেন মুসকান। তার `আল্লাহু আকবর` ধ্বনিতে কেঁপে ওঠে গোটা ক্যাম্পাস। পরে কলেজ কর্তৃপক্ষ তাকে ভবনের ভেতরে নিয়ে যায়। 

মুসকানের এই সাহসী পাল্টা জবাব ভারতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসার ঝড় তোলে, যার ঢেউ এসে আছড়ে পড়ে বাংলাদেশেও। একে ধর্মীয় উগ্রবাদ ও নারী স্বাধীনতার সমালোচকদের বিরুদ্ধে শক্ত জবাব হিসেবে দেখছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা। 

ওই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর বিবিসিকে মুসকান বলেন, `তারা কী পরে তা নিয়ে আমার কোনো সমস্যা নেই। আমি শুধু আমার শিক্ষার অধিকার রক্ষা করতে চাই।` 

ভারতে লাখ লাখ মুসলিম নারী হিজাব ও বোরখা পরে থাকেন। তবে সাম্প্রতিক সময়ে কিছু কিছু জায়গায় তাদের পোশাকের অধিকারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হচ্ছে। 

গত মাসে কর্ণাটকের উদুপি জেলায় একটি কলেজের শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের হিজাব পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়, যা রাজ্যজুড়ে ব্যাপক প্রতিবাদের জন্ম দেয়। 

হিজাব পরার স্বাধীনতা চেয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের জবাবে হিজাব নিষিদ্ধ করার দাবিতে পাল্টা আন্দোলন শুরু করে উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিভিন্ন গোষ্ঠী। 

এরই জেরে বুধবার থেকে তিনদিনের জন্য কর্ণাটকের সব হাই স্কুল ও কলেজ বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। 

ভারতে ডিম ডে মিল কর্মীদের ১৩ দফা দাবিতে বিক্ষোভ
                                  

প্রকল্পের বরাদ্দ কমানো নয়, প্রকল্পের সার্বিক উন্নতির জন্য বরাদ্দ বাড়াতে হবে, 3, মিড ডে মিল কর্মীদের সরকারি কর্মীর স্বীকৃতি দিতে হবে,4, ভারতীয় শ্রম সম্মেলনের সুপারিশ অনুযায়ী মিড ডে মিল কর্মীদের ন্যূনতম বেতন ,বর্তমানে মাসিক 21 হাজার টাকা দিতে হবে, 5, বছরে দশ মাস 12 মাসের মাসিক বেতন প্রদান করতে হবে, 6 , মিড ডে মিল কর্মীদের পিএফ, বোনাস পেনশন দিতে হবে,7, শারীরিক অসুস্থতা বা পারিবারিক কাজের জন্য সবেতন ছুটি দিতে হবে, বছরে 24 দিন, 8 , মিড ডে মিল কর্মীদের অবসরকালীন ভাতা 5 লক্ষ টাকা প্রদান করতে হবে, 9 , প্রতি 25 জন ছাত্রছাত্রীর রান্নার জন্য একজন কর্মী নিয়োগ করতে হবে, 10 , সবেতন মাতৃকালীন ছুটি দিতে হবে, 11 , কোন অজুহাতে দুয়ারে মদ, ই রিটেল চালু করা চলবে না, 12, ছাত্র-ছাত্রীদের সুষম খাদ্যের জন্য মাথাপিছু বরাদ্দ বাড়াতে হবে ,মিড ডে মিল কর্মীদের জন্য খাদ্য বরাদ্দ করতে হবে, গ্রীষ্মকালীন ও পুজোর ছুটিতে ছাত্র-ছাত্রী শুকনো খাবার সরবরাহ করতে হবে, .. 12 দফা দাবি নিয়ে তারা রাজ্যপালকে ডেপুটেশন দেন এবং বলেন যে পহেলা ফেব্রুয়ারি বাজেটে জিমেইলের বরাদ্দ কমানো হয়েছে, কিন্তু ছাত্র সংখ্যা বেড়ে চলেছে, সরকার যদি আমাদের দিকে নজর না দেন এবং মিড ডে মিলের যেসকল দাবিসমূহ আমরা রাখলাম সেগুলো যদি সম্পূর্ণ না হয় ,তাহলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামবেন 22 শে মার্চ । সারা পশ্চিমবঙ্গ মিড-ডে-মিল কর্মীরা একত্রিত হয়ে বৃহত্তর আন্দোলন করবেন। রিপোর্টার শম্পা দাস ও সমরেশ দাস

অন্তঃসত্ত্বা বোনের মাথা কেটে মাসহ ভাই এর সেলফি!
                                  

পরিবারের মতের বিরুদ্ধে বিয়ে করার জেরে নিজের অন্তঃসত্ত্বা বোনকে মাথা কেটে হত্যা করে এক কিশোর। আর তাকে এই কাজে সহযোগিতা করে তাদের মা৷ রোববার (৫ ডিসেম্বর) মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদ ভাইজাপুর এলাকার এ ঘটনা 

স্থানীয়রা জানান, হত্যার পর বোনের কাটা মাথা নিয়ে প্রতিবেশীদের দেখায় এবং এর সঙ্গে মাকে নিয়ে সেলফি তোলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের জুনে পরিবারের অমতে বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করেন ১৯ বছরের ওই কিশোরী৷ তখন থেকে নিজের স্বামীর সঙ্গেই থাকছিলেন তিনি৷ গত সপ্তাহে মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে তার সঙ্গে দেখা করার কথা বলেন ওই কিশোরীর মা৷ রোববার নিজের ছেলেকে নিয়ে ওই মেয়ের বাড়িতে যান মা৷ সে সময় ওই কিশোরীর স্বামী অসুস্থ অবস্থায় অন্য একটি ঘরে শুয়েছিলেন৷ বোন যখন চা বানাতে ব্যস্ত, তখনই তার ওপরে হঠাৎ হামলা চালায় নিজের ভাই৷ নিজের মেয়ের পা চেপে ধরে তার মা৷ এরপর ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে বোনের মাথা দেহ থেকে আলাদা করে দেয় ওই কিশোর৷ এরপর প্রতিবেশীদের নিজের বোনের কাটা মাথা দেখায় সে৷ পরে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে ওই কিশোর৷অভিযুক্ত কিশোর এবং তার মাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নেশার ওষুধ খাইয়ে দশম শ্রেণির ১৭ জন ছাত্রীকে যৌন হেনস্তা করল শিক্ষক
                                  

এক নজিরবিহীন ঘৃণ্য ঘটনার সাক্ষী হলো ভারতের উত্তরপ্রদেশ। অভিযোগ, মুজফফরনগরে নেশার ওষুধ খাইয়ে দশম শ্রেণির ১৭ জন ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করেছেন স্কুলেরই এক শিক্ষক! ইতোমধ্যে অভিযুক্ত শিক্ষক ও স্কুলের মালিকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত। একজন শিক্ষক কী করে এমন কাজ করতে পারলেন ভেবে পাচ্ছেন না এলাকার বাসিন্দারা।

 

 

 

জানা গেছে, সিবিএসই প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার অজুহাত দেখিয়ে পুরকাজি এলাকার ওই ছাত্রীদের রাতে স্কুলে ডেকে পাঠান অভিযুক্ত শিক্ষক। তাদের রাতে স্কুলেই থাকতে বলেন তিনি। পরে তাদের সকলকে রাতের খাবার দেওয়া হয়। তাতে মাদক মেশানো ছিল। খাবার খেয়ে ওই ছাত্রীরা অচেতন হয়ে পড়লে তাদের যৌন হেনস্তা করেন অভিযুক্ত। পরের দিন সকালে তারা বাড়ি ফেরে। সেই সময় সকলকে হুমকি দেন ওই শিক্ষক। বলা হয়, মুখ খুললে তাদের পরিবারের সদস্যদের খুন করা হবে। জানা গেছে, নিগৃহীতরা সকলেই গরিব পরিবারের সন্তান।

ঘটনাটি ঘটেছিল গত ১৭ নভেম্বর। শিক্ষকের হুমকি পেয়ে ভয়ে এতদিন চুপ করেছিল ওই ছাত্রী ও তাদের পরিবার। তবে শেষ পর্যন্ত দুই ছাত্রীর পরিবার দ্বারস্থ হয় এলাকার বিধায়ক প্রমোদ আটওয়ালের। তিনিই পুলিশের সিনিয়র সুপারিন্টেনডেন্ট অভিষেক যাদবকে বিষয়টি জানান। এরপরই দায়ের হয় এফআইআর।

 

 

 

ছাত্রীদের পরিবারগুলোর দাবি, প্রথমে অভিযোগ নিতে চায়নি পুলিশ। পরে বিধায়কের হস্তক্ষেপেই অভিযোগ দায়ের করা হয়। যদিও এই ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। এ ছাড়াও অভিযোগ, পুরকাজি থানার হাউজ অফিসার বিনোদকুমার সিংয়ের দ্বারস্থ হয়েছিল ছাত্রীদের পরিবার। কিন্তু তিনি বিষয়টিকে পাত্তাই দিতে চাননি। ওই অফিসারের বিরুদ্ধেও তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মালদ্বীপে দূতাবাসে সংবাদ সম্মেলন
                                  
মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ প্রতিনিধি, 
 

মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোহাম্মদ নাজমুল হাসান 

 
০৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায়   বাংলাদেশ থেকে আগত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রায় অর্ধ শতাধিক সংবাদকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন। 
 
এসময় তিনি হাইকমিশনের বিভিন্ন  কার্যক্রম ও বাংলাদেশ-মালদ্বীপ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিষয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন।
 
 উল্লেখ করা যায় যে, ইউ এস বাংলা এয়ারলাইনস এর ব্যবস্থাপনায় সংবাদমাধ্যম এর উক্ত কর্মীগণ ৩ দিনের সফরে মালদ্বীপে এসেছেন।
মালদ্বীপে বাংলাদেশের ব্যাংকের শাখা চালু হচ্ছে।
                                  
মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ প্রতিনিধি 
 
ব্যাংকের শাখা খোলার বিষয়ে আলোচনার জন্য বাংলাদেশ থেকে আগত আল আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক-এর  চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মালদ্বীপের মাননীয় অর্থ মন্ত্রী এবং মালদ্বীপ মনিটারি অথোরিটির গভর্নর মহোদয় এর সঙ্গে 
২৫ নভেম্বর বৈঠকে মিলিত হন।
 
 
 
উক্ত বৈঠক সমূহে মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত  মোহাম্মদ নাজমুল হাসান উপস্থিত ছিলেন। এরপর উক্ত ব্যাংকের কর্মকর্তাবৃন্দ  রাষ্ট্রদূত  এর সাথে পৃথকভাবে বৈঠক করেন।
 
উল্লেখ্য, মালদ্বীপে একটি বাংলাদেশী ব্যাংক-এর শাখা খোলা হলে প্রবাসী বাংলাদেশীগণ সহজে, সাশ্রয়ে এবং বৈধ পথে দেশে রেমিটেন্স পাঠাতে পারবেন বলে আশা করা যায়।
 
 
যেনে রাখা ভালো,,মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ নাজমুল হাসান মালদ্বীপের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর আলী হাশিমের সঙ্গে গত ১৪ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে এক বৈঠকে মিলিত হন।
 
এসময় হাই কমিশনার মালদ্বীপে বাংলাদেশের একটি ব্যাংকের শাখা খোলার বিষয়ে গভর্নরকে অনুরোধ করেন। একই সঙ্গে ডলারের পরিবর্তে এমভিআর-এ প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিজ দেশে অর্থ পাঠানোর বিষয়ে সহযোগিতা চান।
বৈঠকে ভ্রাতৃপ্রতিম দুই দেশের ব্যাংকিং সেক্টরে সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা হয়।
 
আলোচনায় মালদ্বীপে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো গুরুত্ব দেওয়া হয়।
মালদ্বীপের ব্যাংক গভর্নর জানান, বাংলাদেশি কর্মীরা নিজ দেশে অর্থ পাঠাতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার বিষয়টি তিনি অবহিত।
 
 
যুক্তরাষ্ট্র-চীনের যৌথ প্রচেষ্টায় কমেছে জ্বালানি তেলের দাম
                                  

গত ছয় সপ্তাহের মধ্যে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম এখন সবচেয়ে কম। দাম কমার পেছনে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের যৌথ প্রচেষ্টা রয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

১৮ নভেম্বর এক প্রতিবেদনে সিএনএন জানায়, বিশ্ববাজারে গত দেড় মাস ধরে বাড়ছিল তেলের দাম। এতে উৎপাদনকারী এবং ব্যবসায়ীরা লাভ করলেও সাধারণ ভোক্তারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল। তেলের দাম নিয়ে অস্থিরতার পর অবশেষে জ্বালানি তেলের দাম কমলো।

ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (ডব্লিউটিআই) ও ব্রেন্ট অপরিশোধিত তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ৮০ ডলারের নিচে নেমে গেছে। যা গত ছয় সপ্তাহের মধ্যে এখন সবচেয়ে কম।রিস্ট্যাড এনার্জির হেড অফ অয়েল মার্কেট বোর্নার টনহউজেন বলেন, এখন জ্বালানি তেলের দাম কমার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখছে যুক্তরাষ্ট্র ও চীন। এই দুই দেশের সংরক্ষিত (রিজার্ভ) তেল বাজারে ছেড়ে দেওয়ায় দাম কমাতে সহায়তা করছে।

তিনি আরও বলেন, আগামী মাসে ২০ থেকে ৩০ মিলিয়ন ব্যারেল তেল অনলাইনে আসার ব্যাপারে আশা করছেন বিনিয়োগকারীরা। এটা যুক্তরাষ্ট্র ও চীন থেকে আসতে পারে। কিংবা আন্তর্জাতিক জ্বালানি সংস্থার বৃহত্তর সমন্বিত পদক্ষেপের মাধ্যমেও আসতে পারে।

হোয়াইট হাউজের বরাত দিয়ে সিএনএন জানায়, কয়েকদিন আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের মধ্যে এক ভার্চুয়াল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এই বৈঠকে বৈশ্বিক জ্বালানী তেল সরবরাহের বিষয়ে আলোচনা করেন তারা। এরই ধারাবাহিকতায় দুই দেশের সমন্বিত পদক্ষেপে লক্ষাধিক ব্যারেল তেল বাজারে আসে।

তবে এই পদক্ষেপ দীর্ঘমেয়াদী কোন পরিবর্তন বয়ে আনবে না বলেও মনে করেন বোর্নার টনহউজেন।

২৪ ঘন্টায় মালদ্বীপে করোনা আক্রান্ত ১২৭।
                                  
মাহামুদুল মালদ্বীপ  প্রতিনিধি।
 
মালদ্বীপে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১২৭ জন, করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে রাজধানীতে মালেতে আক্রান্ত ২৫ জন।
 
আজ (১৪ নভেম্বর ) নিয়মিত সংবাদ বুলেটিন এর মাধ্যমে মালদ্বীপের সাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থা এইচপিএ এই তথ্য জানিয়েছে।
 
এখন পর্যন্ত মালদ্বীপে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৮৯ হাজার ৮৪০ জন।
 
গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সুস্থ হয়েছে ১৫৯ জন। এখন পর্যন্ত মালদ্বীপে করোনা থেকে সুস্থ ৮৭ হাজার ৩৮৪ জন।
 
সংবাদ সম্মেলন আরও জানানো হয়েছে,আক্রান্ত রোগী আছে ২ হাজার ১৯৬ জন, তাদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি আছে ৮ জন।
 
করোনা শুরু থেকে এখন পর্যন্ত মালদ্বীপে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে ২৪৭ জন।
 
বাইডেনের গণতন্ত্র সম্মেলন আমন্ত্রণের চূড়ান্ত তালিকায় নাম নেই বাংলাদেশের
                                  

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগামী ৯ ও ১০ ডিসেম্বর গণতন্ত্র সম্মেলন আয়োজন করতে যাচ্ছেন। ভার্চুয়াল সম্মেলনে বিশ্বের ১০০টির বেশি দেশের নেতাকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। যদিও আমন্ত্রিত দেশগুলোর তালিকা গোপন রাখা হয়েছে। তবে পলিটিকো ম্যাগাজিন একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। এতে আমন্ত্রিত দেশের তালিকায় বাংলাদেশের নাম নেই। পলিটিকোর তালিকা চূড়ান্ত কিনা তা নিশ্চিত নয় ঢাকা। তাই বাংলাদেশের তরফে চূড়ান্ত তালিকার খোঁজ করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর বাইডেন পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ে তার প্রথম ভাষণে গণতন্ত্র সম্মেলন আয়োজনের অঙ্গীকার করেন। বিশ্বব্যাপী রাশিয়া ও চীনসহ গোটা বিশ্বে কর্তৃত্ববাদী শাসনের বিস্তার ঘটার পরিপ্রেক্ষিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট সম্মেলনের আয়োজন করছেন।

চলতি বছরের ডিসেম্বরে আমন্ত্রিত দেশগুলোর নেতারা গণতন্ত্র, ব্যক্তিগত ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, মানবাধিকার বিষয়ে তাদের অঙ্গীকার ব্যক্ত করবেন। এক বছর পর ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এসব ক্ষেত্রে অগ্রগতি যাচাই করতে আরেকটি ফলোআপ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। মহামারি পরিস্থিতির উন্নতি হলে দেশগুলোর নেতাদের সশরীরে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

জানতে চাইলে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা বুধবার যুগান্তরকে বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আমন্ত্রিত দেশগুলোর তালিকা প্রকাশ করেনি। পলিটিকোর তালিকা সঠিক কিনা তা নিশ্চিত নয়। ভার্চুয়াল সম্মেলনের তালিকা এক সপ্তাহ আগে পর্যন্ত পরিবর্তন হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রে আমাদের দূতাবাস চূড়ান্ত তালিকা জানার চেষ্টা করছে।’

ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘চলতি বছরের ডিসেম্বরে ভার্চুয়াল সম্মেলনে সব দেশকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে না। ফলে আগামী বছরের সশরীরে উপস্থিত সম্মেলনে এবার বাদ পড়া দেশগুলোকে আমন্ত্রণ জানাতেও পারে। এসব বিষয়ে বিস্তারিত আমরা এখনো জানি না।’

ডোনাল্ড ট্রাম্প বৈদেশিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার নিয়ে আগ্রহী ছিলেন না। এ কারণে বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ব হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে। বাইডেনের সম্মেলনে আমন্ত্রণ তালিকা নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে। ফ্রান্স, সুইডেনের মতো পরিপক্ব গণতন্ত্রের দেশ যেমন আমন্ত্রণ পেয়েছে; ফিলিপাইন, পোল্যান্ডের মতো দেশ যেখানে গণতন্ত্র হুমকির মধ্যে পড়েছে তারাও আমন্ত্রিত হয়েছে। এশিয়ায় জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া আমন্ত্রিত হলেও থাইল্যান্ডকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগী মিসর আমন্ত্রণ পায়নি। আমন্ত্রণ পায়নি ন্যাটোভুক্ত তুরস্ক।

আমন্ত্রিত দেশের তালিকা কীসের ভিত্তিতে করা হচ্ছে সেটা স্পষ্ট নয়। মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের সূত্রের বরাতে বলা হচ্ছে, আমন্ত্রণের তালিকা গণতন্ত্রের মানদণ্ড নয়। বিশ্বের ভৌগোলিক অঞ্চলের মধ্যে সুষম এবং বৈচিত্র্যের বিবেচনায় তালিকা করা হচ্ছে। কোন দেশ কীভাবে গণতন্ত্রের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছে সেই অভিজ্ঞতা জানা সম্মেলনের অন্যতম উদ্দেশ্য। কেউ কেউ আবার যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করছে। তাদের ভাষায়, ট্রাম্প গত নিবূাচনের ফলাফল মানেননি। এতে যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রও প্রশ্নাতীত নয়।

 

মালদ্বীপে যুবলীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত।
                                  
মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ প্রতিনিধিঃ
 

মালদ্বীপে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের গৌরব, ঐতিহ্য ও সংগ্রামের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। 

 
এ উপলক্ষে ১১ নভেম্বর ২০২১ সোমবার স্থানীয় সময় রাত ১১ ঘটিকায় মালদ্বীপের রাজধানী মালে একটি  রেস্টুরেন্টে মালদ্বীপ আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও কেক কাটার আয়োজন করা হয়।
 
মালদ্বীপ আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক সেলিম ফরাজীর সভাপতিত্বে, যুগ্ম আহবায়ক   বিল্লাল হোসেন, এর  সঞ্চালনায় । 
 
অনুষ্ঠানে প্রধান  অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালদ্বীপ আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব দুলাল মাদবর। 
 
 বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  দুলাল হোসেন সিনিয়র সহ-সভাপতি মালদ্বীপ আওয়ামী লীগ, মালদ্বীপ আওয়ামী লীগের নেতা নূরে আলম রিন্টু , মালদ্বীপ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজালাল সিকদার, 
 
অনুষ্ঠানে বিশেষ  আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালদ্বীপ যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক, রাসেল আহমেদ সাগর, 
 
 
 
এতে আরও উপস্থিত ছিলেন, মালদ্বীপ আওয়ামী লীগের সদস্য, গাজী জাহিদ, এনামুল হক জাকির,নুরে আলম ভুইয়া , মো: রফিক, প্রমুখ।
এবং মালদ্বীপ যুবলীগের  ও আন্তার্জাতিক বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের  নেতাকর্মীরা,
 করোনা  মহামারী এর জন্য  সরকারের বিধিনিষেধের কারণ কিছু  সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশিরা।
 
অনুষ্ঠানে কোরআন তেলোয়াত দোয়া, ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মালদ্বীপ মদিনা জামাতের আহবায়ক মাওলানা মোহাম্মদ আলামিন। 
আমন্ত্রণের চূড়ান্ত তালিকার খোঁজ নিচ্ছে বাংলাদেশ বাইডেনের
                                  

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগামী ৯ ও ১০ ডিসেম্বর গণতন্ত্র সম্মেলন আয়োজন করতে যাচ্ছেন। ভার্চুয়াল সম্মেলনে বিশ্বের ১০০টির বেশি দেশের নেতাকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। যদিও আমন্ত্রিত দেশগুলোর তালিকা গোপন রাখা হয়েছে। তবে পলিটিকো ম্যাগাজিন একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। এতে আমন্ত্রিত দেশের তালিকায় বাংলাদেশের নাম নেই। পলিটিকোর তালিকা চূড়ান্ত কিনা তা নিশ্চিত নয় ঢাকা। তাই বাংলাদেশের তরফে চূড়ান্ত তালিকার খোঁজ করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর বাইডেন পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ে তার প্রথম ভাষণে গণতন্ত্র সম্মেলন আয়োজনের অঙ্গীকার করেন। বিশ্বব্যাপী রাশিয়া ও চীনসহ গোটা বিশ্বে কর্তৃত্ববাদী শাসনের বিস্তার ঘটার পরিপ্রেক্ষিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট সম্মেলনের আয়োজন করছেন।

 

চলতি বছরের ডিসেম্বরে আমন্ত্রিত দেশগুলোর নেতারা গণতন্ত্র, ব্যক্তিগত ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, মানবাধিকার বিষয়ে তাদের অঙ্গীকার ব্যক্ত করবেন। এক বছর পর ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এসব ক্ষেত্রে অগ্রগতি যাচাই করতে আরেকটি ফলোআপ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। মহামারি পরিস্থিতির উন্নতি হলে দেশগুলোর নেতাদের সশরীরে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

জানতে চাইলে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা বুধবার যুগান্তরকে বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আমন্ত্রিত দেশগুলোর তালিকা প্রকাশ করেনি। পলিটিকোর তালিকা সঠিক কিনা তা নিশ্চিত নয়। ভার্চুয়াল সম্মেলনের তালিকা এক সপ্তাহ আগে পর্যন্ত পরিবর্তন হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রে আমাদের দূতাবাস চূড়ান্ত তালিকা জানার চেষ্টা করছে।’

ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘চলতি বছরের ডিসেম্বরে ভার্চুয়াল সম্মেলনে সব দেশকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে না। ফলে আগামী বছরের সশরীরে উপস্থিত সম্মেলনে এবার বাদ পড়া দেশগুলোকে আমন্ত্রণ জানাতেও পারে। এসব বিষয়ে বিস্তারিত আমরা এখনো জানি না।’

ডোনাল্ড ট্রাম্প বৈদেশিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার নিয়ে আগ্রহী ছিলেন না। এ কারণে বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ব হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে। বাইডেনের সম্মেলনে আমন্ত্রণ তালিকা নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে। ফ্রান্স, সুইডেনের মতো পরিপক্ব গণতন্ত্রের দেশ যেমন আমন্ত্রণ পেয়েছে; ফিলিপাইন, পোল্যান্ডের মতো দেশ যেখানে গণতন্ত্র হুমকির মধ্যে পড়েছে তারাও আমন্ত্রিত হয়েছে। এশিয়ায় জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া আমন্ত্রিত হলেও থাইল্যান্ডকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগী মিসর আমন্ত্রণ পায়নি। আমন্ত্রণ পায়নি ন্যাটোভুক্ত তুরস্ক।

আমন্ত্রিত দেশের তালিকা কীসের ভিত্তিতে করা হচ্ছে সেটা স্পষ্ট নয়। মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের সূত্রের বরাতে বলা হচ্ছে, আমন্ত্রণের তালিকা গণতন্ত্রের মানদণ্ড নয়। বিশ্বের ভৌগোলিক অঞ্চলের মধ্যে সুষম এবং বৈচিত্র্যের বিবেচনায় তালিকা করা হচ্ছে। কোন দেশ কীভাবে গণতন্ত্রের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছে সেই অভিজ্ঞতা জানা সম্মেলনের অন্যতম উদ্দেশ্য। কেউ কেউ আবার যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করছে। তাদের ভাষায়, ট্রাম্প গত নিবূাচনের ফলাফল মানেননি। এতে যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রও প্রশ্নাতীত নয়।


   Page 1 of 55
     আন্তর্জাতিক
যুক্তরাজ্য: কয়েকমাসে রুশ তেলে নিষেধাজ্ঞা, আওতামুক্ত গ্যাস
.............................................................................................
রাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে ইউরোপ
.............................................................................................
শ্রমিক খরচ বেড়েছে পর্তুগালের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে
.............................................................................................
27 শে ফেব্রুয়ারি পৌরসভার ভোটে প্রচার চলছে জোর কদমে
.............................................................................................
করোনায় বিশ্বে কমেছে শনাক্ত ও মৃত্যু
.............................................................................................
উগ্র ধর্মীয়বাদের বিরুদ্ধে প্রতীক হয়ে উঠেছেন যে নারী
.............................................................................................
ভারতে ডিম ডে মিল কর্মীদের ১৩ দফা দাবিতে বিক্ষোভ
.............................................................................................
অন্তঃসত্ত্বা বোনের মাথা কেটে মাসহ ভাই এর সেলফি!
.............................................................................................
নেশার ওষুধ খাইয়ে দশম শ্রেণির ১৭ জন ছাত্রীকে যৌন হেনস্তা করল শিক্ষক
.............................................................................................
মালদ্বীপে দূতাবাসে সংবাদ সম্মেলন
.............................................................................................
মালদ্বীপে বাংলাদেশের ব্যাংকের শাখা চালু হচ্ছে।
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্র-চীনের যৌথ প্রচেষ্টায় কমেছে জ্বালানি তেলের দাম
.............................................................................................
২৪ ঘন্টায় মালদ্বীপে করোনা আক্রান্ত ১২৭।
.............................................................................................
বাইডেনের গণতন্ত্র সম্মেলন আমন্ত্রণের চূড়ান্ত তালিকায় নাম নেই বাংলাদেশের
.............................................................................................
মালদ্বীপে যুবলীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত।
.............................................................................................
আমন্ত্রণের চূড়ান্ত তালিকার খোঁজ নিচ্ছে বাংলাদেশ বাইডেনের
.............................................................................................
সুই না ফুটিয়েই টিকা দেবে রোবট
.............................................................................................
ইসরায়েল-সৌদি সম্পর্কের নেপথ্যে
.............................................................................................
অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্র থেকে অস্ত্রের বড় চালান পাচ্ছে সৌদি
.............................................................................................
মুক্তি পেলেন সুদানের ৪ মন্ত্রী
.............................................................................................
জেল হত্যা দিবস পালন করেছে মালদ্বীপ আওয়ামীলীগ
.............................................................................................
৫ প্রভাব বিস্তারকারীর তালিকায় শেখ হাসিনা
.............................................................................................
মাস্কহীন আলিঙ্গন!
.............................................................................................
কাবুলের সামরিক হাসপাতালে হামলা, দায়েশের দায় স্বীকার
.............................................................................................
জলবায়ু সম্মেলনে ঘুমালেন বাইডেন
.............................................................................................
৬৩ দেশের জন্য ভ্রমণের দরজা খুলল থাইল্যান্ড
.............................................................................................
মালদ্বীপের মাফুসি কারাগার পরিদর্শন করেন,রাষ্ট্রদূত,
.............................................................................................
রাস্তায় কেনা পাথর আসলে ২৩ কোটির হীরা!
.............................................................................................
প্রথমবার ক্যামেরার সামনে মোল্লা ওমরের ছেলে
.............................................................................................
বিশ্বসভায় যেতে চায় বাংলাদেশ
.............................................................................................
ধনী দেশগুলোর টিকানীতির কৌশল অনৈতিক: গুতেরেস
.............................................................................................
ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর পৌর বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে জখম করার প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন।
.............................................................................................
মালদ্বীপ সরকার ২ লাখ ডোজ করোনা টিকা উপহার দিল বাংলাদেশকে,
.............................................................................................
মালদ্বীপে টিকেট পাচ্ছেনা প্রবাসী বাংলাদেশীরা ,ভিডিও সহ,কালোবাজারে টিকেট বিক্রি।
.............................................................................................
সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ খেলতে বাংলাদেশ দল এখন মালদ্বীপে
.............................................................................................
নিউইয়র্কে আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা
.............................................................................................
মালদ্বীপের ভাইস প্রেসিডেন্ট এর সাথে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এর সৌজন্য সাক্ষাৎ
.............................................................................................
জাতিসংঘে ভারতের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের চিঠি
.............................................................................................
কমিশনার অব প্রিজন আহমেদ ফুলহুর সাথে রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ।
.............................................................................................
মালদ্বীপে করোনায় নতুন আক্রান্ত ১৬২,সুস্থ ১৪০ জন,
.............................................................................................
ফিনল্যান্ড পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
এক মাস পর কেমন চলছে আফগান জনজীবন?
.............................................................................................
মালদ্বীপে বাংলাদেশ দূতাবাসে পাসপোর্ট ও ভিসা সেবা কার্যক্রম পুনরায় শুরু হয়েছে।
.............................................................................................
পুলিশ সাংবাদিকতা করলে বুঝতে হবে সব শেষ: ফখরুল
.............................................................................................
আরও একটি দেশে বাংলাদেশিদের প্রবেশে বাধা কাটল
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মালদ্বীপের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প সম্পুর্ন
.............................................................................................
৪ বছরে ৮ স্বামী, এইডসে আক্রান্ত নারী
.............................................................................................
মালদ্বীপের সর্বশেষ করোনা পরিস্থিতি,
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রের উপহারের ১০ লাখ টিকা আসার তারিখ পরিবর্তন
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু, সহ সম্পাদক কাওসার আহমেদ র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল । বার্তা বিভাগ ফোন০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, রেজিস্ট্রেশন নং 134 / নিবন্ধন নং 69 মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD