| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
নষ্ট ৪৪ লাখ ডোজ, অপচয় বিতর্কে নাম জড়িয়েছে মহারাষ্ট্রও!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতে করোনার টিকার যতটা ব্যবহার হচ্ছে, অপব্যবহারের হারও কম নয়। ১১ এপ্রিল পর্যন্ত পাওয়া হিসাব বলছে, ভারতে এখনও পর্যন্ত ব্যবহৃত  ১০ কোটি ডোজের মধ্যে ৪৪ লাখ ডোজ নষ্ট হয়েছে। অপচয়ের দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে তামিলনাড়ু।  দেশটির সংবাদমাধ্যমি জি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সারা দেশে টিকাকরণ প্রকল্পে ব্যবহৃত মোট টিকার অন্তত ২৩ শতাংশই নষ্ট হয়েছে। অপচয়ের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে তামিলনাড়ু। মোট টিকার ১২ শতাংশ সে নষ্ট করেছে অঞ্চলটি। 

এরপর আছে যথাক্রমে হারিনা ৯ দশমিক ৭৪ শতাংশ, পাঞ্জাব ৮ দশমিক ১২ শতাংশ, মনিপুর ৭ দশমিক ৮ শতাংশ এবং তেলেঙ্গানা ৭ দশমিক ৫৫ শতাংশ। অপচয় বিতর্কে নাম জড়িয়েছে মহারাষ্ট্রও। 

আর, যেসব রাজ্যে অপচয় অনেক কম তাদের মধ্যে শীর্ষে পশ্চিম বাংলা। তারপর আছে কেরালা, হিমাচল প্রদেশ, মিজোরাম, গোয়ার মতো অঞ্চলগুলো।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে ভারত জুড়ে টিকাসঙ্কট চলছে। বেশ কিছু রাজ্যেই টিকার স্টক সম্পূর্ণ শূন্য। আটকে আছে টিকাকরণের কাজ। এই পরিস্থিতিতে টিকা নষ্টের খবর অত্যন্ত হতাশাজনক।

আগামী ১ মে থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে টিকাকরণ শুরু হবে দেশটিতে। ফলে টিকার বিপুল জোগান কোথা থেকে আসবে, সেই কথা ভেবে উদ্বিগ্ন সংশ্লিষ্ট মহল। 

নষ্ট ৪৪ লাখ ডোজ, অপচয় বিতর্কে নাম জড়িয়েছে মহারাষ্ট্রও!
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতে করোনার টিকার যতটা ব্যবহার হচ্ছে, অপব্যবহারের হারও কম নয়। ১১ এপ্রিল পর্যন্ত পাওয়া হিসাব বলছে, ভারতে এখনও পর্যন্ত ব্যবহৃত  ১০ কোটি ডোজের মধ্যে ৪৪ লাখ ডোজ নষ্ট হয়েছে। অপচয়ের দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে তামিলনাড়ু।  দেশটির সংবাদমাধ্যমি জি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সারা দেশে টিকাকরণ প্রকল্পে ব্যবহৃত মোট টিকার অন্তত ২৩ শতাংশই নষ্ট হয়েছে। অপচয়ের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে তামিলনাড়ু। মোট টিকার ১২ শতাংশ সে নষ্ট করেছে অঞ্চলটি। 

এরপর আছে যথাক্রমে হারিনা ৯ দশমিক ৭৪ শতাংশ, পাঞ্জাব ৮ দশমিক ১২ শতাংশ, মনিপুর ৭ দশমিক ৮ শতাংশ এবং তেলেঙ্গানা ৭ দশমিক ৫৫ শতাংশ। অপচয় বিতর্কে নাম জড়িয়েছে মহারাষ্ট্রও। 

আর, যেসব রাজ্যে অপচয় অনেক কম তাদের মধ্যে শীর্ষে পশ্চিম বাংলা। তারপর আছে কেরালা, হিমাচল প্রদেশ, মিজোরাম, গোয়ার মতো অঞ্চলগুলো।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে ভারত জুড়ে টিকাসঙ্কট চলছে। বেশ কিছু রাজ্যেই টিকার স্টক সম্পূর্ণ শূন্য। আটকে আছে টিকাকরণের কাজ। এই পরিস্থিতিতে টিকা নষ্টের খবর অত্যন্ত হতাশাজনক।

আগামী ১ মে থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে টিকাকরণ শুরু হবে দেশটিতে। ফলে টিকার বিপুল জোগান কোথা থেকে আসবে, সেই কথা ভেবে উদ্বিগ্ন সংশ্লিষ্ট মহল। 

মালদ্বীপের দূতাবাসের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন
                                  

মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ প্রতিনিধি। 

মালদ্বীপে যথাযোগ্য মর্যাদায় বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে , ১৭ এপ্রিল ২০২১ ঐতিহাসিক ‘মুজিবনগর দিবস’ উদযাপনকরা হয়েছে । 

 

মালদ্বীপের বাংলাদেশ দূতাবাসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান।

 

 তরজমা সহ পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয় । দিবসটি উপলক্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ করে শোনানো হয় ।

 

 অতঃপর হাই কমিশনের প্রথম সচিব ও দুতালায় প্রধান জনাব মো: সোহেল পারভেজ দিবসটির তাৎপর্য ও প্রেক্ষাপট ব্যাখ্যা করে তার বক্তব্য প্রদান করেন ।

 

 

 মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানে একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয় ।

 

 পরিশেষে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রাষ্ট্রদূত রিয়াল এডমিরাল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান তার মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন । 

 

রাষ্ট্রদূত বক্তব্যের শুরুতে জাতির পিতার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি জেলখানায় নিহত জাতীয় চার নেতার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন । জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশের ক্রমবর্ধমান অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন। 

 

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন তা বাস্তবায়ন করার জন্য প্রধানমন্ত্রী চেষ্টা করে যাচ্ছেন। কিন্তু শুধুমাত্র সরকারের একার চেষ্টা দেশের উন্নতি ও অগ্রগতির জন্য যথেষ্ট নয়। আমাকে-আপনাকে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তাহলে সোনার বাংলা গড়া সম্ভব হবে।

 

 

করোনা মহামারীর প্রাদুর্ভাব এবং স্বাগতিক দেশের জনসমাগমের উপর কঠোর বিধি নিষেধের কারণে সীমিত পরিসরে হাই কমিশনের অভ্যন্তরে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করা হয় ।

মালদ্বীপের প্রসিকিউটরের সাথে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ।
                                  

মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ থেকে। মাালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান।বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ দেশটির প্রসিকিউটর জেনারেল হোসাইন শামীম এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। দুতালায় সুত্রে জানা যায়, এ সময়ে ভাতৃপ্রতিম দু’টি দেশের পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা হয়। আলোচনায় রাষ্ট্রদূত মালদ্বীপে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিভিন্ন আইনগত সুবিধা অসুবিধার বিষয় গুলো তুলে ধরেন । এছাড়া বাংলাদেশী নাগরিকদের চলমান মামলা সমূহ দ্রুত নিষ্পত্তি ও বন্দিদের সাজা মওকুফ এর বিষয়ে অনুরোধ করা হয়। এই সময়ে প্রসিকিউটর মালদ্বীপের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে বাংলাদেশি কর্মীদের অবদানের প্রশংসা করেন। উল্লেখ, বর্তমান রাষ্ট্রদূত মালদ্বীপে নিযুক্ত হওয়ার পর থেকে। ভাতৃপ্রতিম দু’টি দেশের পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে। মালদ্বীপের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সাথে সাক্ষাৎ করে আলোচনা করে যাচ্ছেন। বিগত বছর গুলোতে বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের মধ্যে। পর্যটক শিল্প নিয়ে যে কাজগুলো হয়নি এখন সেই কাজগুলো করে যাচ্ছেন মালদ্বীপে নিযুক্ত মাননীয় রাষ্ট্রদূত রিয়াল অ্যাডমিরাল মো. নাজমুল হাসান।

বিশেষ ফ্লাইট শুরুর ঘোষণা বেবিচকের
                                  

আগামী শনিবার থেকে প্রবাসী কর্মীদের পাঁচ দেশে যেতে বিশেষ ফ্লাইট চালু করছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, কাতার ও সিঙ্গাপুরে বিশেষ ফ্লাইট শুরু হবে। ওই দিন থেকে দিনে বিভিন্ন উড়োজাহাজ কোম্পানির নির্ধারিত যেসব ফ্লাইট আছে, সেগুলোই বিশেষ ফ্লাইট হিসেবে যাওয়ার অনুমতি পাবে।বৃহস্পতিবার( ১৫ এপ্রিল) রাতে মন্ত্রী পর্যায়ের এক অনলাইন বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। 

বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান জানান, নিষেধাজ্ঞার প্রথম তিন দিনে যেসব ফ্লাইট বাতিল হয়েছে, ওই ফ্লাইটের প্রবাসী যাত্রীদের তালিকা তৈরি করবে প্রবাসী মন্ত্রণালয়। তারপর তাঁদের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আলাদা ফ্লাইটের ব্যবস্থা করা হবে।

 বৈঠকে অংশ নেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব, বেবিচক চেয়ারম্যান, বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এর আগে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে কঠোর বিধিনিষেধের আওতায় ১৪ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে অন্তত ৩০ হাজার পুরোনো ও নতুন কর্মীর বিদেশে গিয়ে কাজে যোগদান অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে।

পাকিস্তানে ৭ জনের মৃত্যু, নিষিদ্ধ হলো ইসলামপন্থী দল টিএলপি
                                  

পাকিস্তানের ইসলামপন্থী দল ‘তেহরিক-ই-লাব্বায়েক পাকিস্তান’কে (টিএলপি) নিষিদ্ধ ঘোষণা করল দেশটির সরকার। সোমবার (১২ এপ্রিল) থেকে ওই দলের চলমান বিক্ষোভে সাতজনের মৃত্যুর পর এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। ওই বিক্ষোভে আহত হয়েছেন তিন শতাধিক পুলিশ সদস্য।সোমবার থেকে দেশব্যাপী প্রতিবাদ শুরু করেছিল ‘তেহরিক-ই-লাব্বায়েক পাকিস্তান’। তাদের প্রধান সাদ হুসেন রিজভির গ্রেফতারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করেছিল তারা। টিএলপি আগে থেকেই সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিল ২০ এপ্রিলের আগেই পাকিস্তানের ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করতে হবে। সেই দাবি না মানায় ইমরান সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ শুরু হয়।

ফ্রান্সের ‘শার্লি এবদো’তে হযরত মুহাম্মদ (সা) এর ব্যঙ্গচিত্র আঁকাকে কেন্দ্র করেই তাদের প্রতিবাদ। ফ্রান্সের সঙ্গে সব রকম সম্পর্ক বন্ধ করতে চায় তারা। যদিও গত নভেম্বরেই ইমরান খানের ‘তেহরিক-ই-ইনসাফ’ সরকার টিএলপির সঙ্গে ওই ফরাসি রাষ্ট্রদূতের বহিষ্কারের ব্যাপারে সম্মতি জানিয়ে চুক্তি করেছিল। তখন জানানো হয়েছিল, ফেব্রুয়ারির মধ্যেই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেবে সরকার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। 

সেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২০ এপ্রিল। ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে দলের প্রধান সাদ হুসেন রিজভিকে।

গত তিনদিন ধরেই পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে টিএলপির বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। অবশেষে তাদের নিষিদ্ধ করার পাশাপাশি যে সব রাস্তা অবরুদ্ধ হয়েছিল তা খালি করা হয়েছে। তবে এখনও কিছু স্থানে বিক্ষোভকারীরা রয়েছেন। তাদেরও দ্রুতই সরিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পাক প্রশাসন। 

সূত্র: আল জাজিরা।

মালদ্বীপে অসুস্থ প্রবাসীকে বিমান টিকেট হস্তান্তর
                                  

মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ প্রতিনিধি। অসুস্থ মালদ্বীপ প্রবাসী প্রশান্ত দাসকে, মালদ্বীপ মাফুশি আইল্যান্ডের প্রবাসী ইসলামীক সংগঠন মালদ্বীপ নামে একটি সংগঠন প্রশান্ত দাসের টিকেটের সম্পূর্ণ খরচ বহন করেন। মালদ্বীপ প্রবাসী জনকল্যাণ ফাউন্ডেশনের অর্থ সম্পাদক মোঃ দিদারুল আলম ভূঁইয়া ও সদস্য মোঃ সিরাজুল মিয়ার তত্ত্বাবধানে টিকেটের সার্বিক কার্যক্রম সম্পূর্ণ করে। ১০ এপ্রিল রাত ৯ টার সময়ে অসুস্থ প্রশান্ত দাস এর হাতে এই বিমান টিকেট হস্তান্তর করা হয়। বিমান টিকেট ছাড়া ও মালদ্বীপ প্রবাসী জনকল্যাণ ফাউন্ডেশনের, এবং ফাউন্ডেশনের সদস্য বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোঃ সিরাজুল মিয়ার পক্ষ থেকে নগত ২০০ শত মার্কিন ডলার অনুদান প্রদান করা হয়। যা বাংলা টাকায় পায় ১৭ হাজার টাকা। অনুদান প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন- ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম সুমন, অর্থ সম্পাদক মো. দিদারুল আলম ভূঁইয়া। জানা গেছে, রেমিট্যান্সযোদ্ধা অসুস্থ প্রশান্ত দাস এর দেশের বাড়ি চট্রগ্রাম জেলায় সীতাকুণ্ড উপজেলায়। তিনি মালদ্বীপের মাফুশি আইল্যান্ডে একটি রেস্টুরেন্টে কাজ করা অবস্থায় পড়ে গিয়ে কোমরে আঘাত পেয়েছেন। ৪ মাস পর্যন্ত কোন ধরনের কাজকর্ম করতে পারেন না। চিকিৎসারও তেমন কোন উন্নতি হয়নি। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী আরো ৪/৫ মাস পর্যন্ত তাকে সম্পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে হবে। প্রশান্ত দাস মালদ্বীপে এসেছেন ২ বছর হয়েছে। বাড়ির অবস্থা ও তেমন ভালো না। মালদ্বীপ আসার সময়ের ঋণের টাকা ও এখনো পরিশোধ করতে পারেনি। তার বৈধ কোন কাজ পত্র নেই। এমতাবস্থায় সে দেশে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মালদ্বীপ মাফুশি আইল্যান্ডে ইসলামীক সংগঠন ও মালদ্বীপ জনকল্যাণ ফাউন্ডেশনের। যারা অসুস্থ প্রশান্ত দাসের টিকেট ও সার্বিক সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছেন , আল্লাহ যেন ওনাদের এই সহযোগিতাকে কবুল করে।এই কামনা করেছেন অসুস্থ প্রশান্ত দাস। উল্লেখ, মালদ্বীপ প্রবাসী জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন। এটি একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। সংগঠটির সকল পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সদস্যরা তাদের আয়ের একটা অংশ প্রতি মাসে অসহায় প্রবাসীদের পাশে দাঁড়ানো জন্য ব্যয় করেন। এটি শুরু থেকেই বাংলাদেশি অসহায় প্রবাসীদের বিভিন্ন সহায়তা করে যাচ্ছে। যেমন- যেসব রেমিট্যান্সযোদ্ধা প্রবাসে সবকিছু হারিয়ে সর্বশান্ত হয়ে যায়। তাদের চিকিৎসা সেবায় ভাবত অনুদান প্রদান করে দেশে পাঠানো। চাকরির ব্যবস্থাসহ বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছে সংগঠনটি

ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ৮
                                  

ইন্দোনেশিয়ায় ৬ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এ ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত ৮ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও ১২ জন। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানায়, শনিবার (১০ এপ্রিল) স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ১০ মিনিটে দেশটির জাভা দ্বীপের উপকূলে এ ভূমিকম্প হয়। 

ইন্দোনেশিয়ার গণমাধ্যমগুলো জানায়, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল পূর্ব জাভার মালাং শহর থেকে প্রায় ৪৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে ভূপৃষ্ঠের ৮২ কিলোমিটার গভীরে। তবে এই কম্পনের ফলে কোনো সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়নি।

জাভা দ্বীপের উপকূলীয় এলাকার বাাসন্দারা জানান, কম্পনটি বেশ শক্তিশালী ছিল এবং এটি দীর্ঘ সময় ধরে ছিল।

সূত্র: এএফপি

ভারতে লরি খাদে ১১ যাত্রী নিহত
                                  

ভারতের উত্তর প্রদেশে যাত্রীবাহী লরি খাদে পড়ে ১১ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন অন্তত ৪০ জন। শনিবার (১০ এপ্রিল) উত্তর প্রদেশের এটাহ জেলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।ভারতীয় গণমাধ্যম টাইম অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, ৫০ থেকে থেকে ৫৫ জন যাত্রী নিয়ে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যেতে লরিটি লখনার দিকে যাচ্ছিল। পথে সেটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই ১১ যাত্রী মারা যায়। আহত হন আরও ৪০ জন। 

এটাহ জেলা পুলিশ কর্মকর্তা ব্রিজেশ কুমার সিং জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে। মৃতদের সবাই পুরুষ। গুরুতর আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্যত্র পাঠানো হতে পারে।

তিনি বলেন, রাস্তা থেকে প্রায় ৩৫ ‍ফুট নিচের খাদে ছিটকে পড়ে লরিটি। লরির উপরের অংশ পুরো খালি হওয়ায় যাত্রীরা ছিটকে পড়েন। কেউ কেউ লরির নিচে চাপা পড়েন। তারা সবাই মারা গেছেন। চালক মদ্যপ থাকার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে কি-না তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

মারা গেলেন রানী এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ
                                  

অনলাইন ডেক্স :

রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ও ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপ মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৯ বছর। খবর- দ্য গার্ডিয়ানের।

শুক্রবার বাকিংহাম প্যালেস এক ঘোষণায় এ কথা জানায়।

অসুস্থ বোধ করায় গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ফিলিপকে কিং এডওয়ার্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। এক মাসের চিকিৎসা শেষে ১৬ মার্চ হাসপাতাল ছেড়েছিলেন তিনি।

তার মৃত্যুর পর বাকিংহাম প্যালেসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, খুবই বেদনার সঙ্গে রানী তার প্রিয় স্বামীর মৃত্যুর খবর ঘোষণা করেছেন। রানীর অফিশিয়াল আবাস ইউন্ডসর ক্যাসেলে শান্তিপূর্ণভাবে শেষ নিঃশ্বাস ফেলেছেন তিনি।

১৯৪৭ সালে এলিজাবেথকে বিয়ে করেনে ফিলিপ। ৫ বছর পর ১৯৫২ সালে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ব্রিটিশ সিংহাসনে আরোহণ করেন। তখন থেকে এ পর্যন্ত নৌবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা প্রিন্স ফিলিপ ২২ হাজার ২১৯টি একক সরকারি কর্মসূচিতে অংশ নেন।

 

যুক্তরাষ্ট্রে ৬ বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার
                                  

যুক্তরাষ্ট্রের একই পরিবারের ৬ বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

 

বিস্তারিত আসছে....

পশ্চিমবঙ্গে মনোনয়ন পেলেন জয়া
                                  

বলিউডের পর এবার বসতে যাচ্ছে টালিউডের ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের আসর। বুধবার (৩১ মার্চ) দেওয়া হবে এবারের পুরস্কার।
সোমবার (২৯ মার্চ) প্রকাশ করা হয়েছে মনোনয়ন প্রাপ্তদের নাম। মূলত ২০১৯ সালের মুক্তিপ্রাপ্ত কলকাতার বাংলা সিনেমাগুলো থেকে বাছাই করে এ পুরস্কার দেওয়া হবে। 

প্রকাশিত মনোনয়নে দেখা যায়, এবারও ওপার বাংলায় (পশ্চিমবঙ্গে) মনোনয়ন পেয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। এবার একসঙ্গে দুইটি মনোনয়ন পেয়েছেন তিনি। ‘রবিবার’ ও ‘বিজয়া’ সিনেমার জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (সমালোচক) বিভাগে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে জয়া আহসানকে। এই বিভাগে আরও মনোনয়ন পেয়েছেন রাইমা সেন (তারিখ), সোহিনী সরকার (ভিঞ্চি দা), শুভশ্রী গাঙ্গুলি (পরিণীতা) ও ঈশা সাহা (সোয়েটার)।

এদিকে শ্রেষ্ঠ সিনেমা বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে ‘গুমনামি’, ‘কণ্ঠ’, ‘মিতিন মাসি’, ‘পরিণীতা’, ‘সাঁঝবাতি ও ‘ভিঞ্চি দা’। শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে মনোনয়নে রয়েছেন বীর চ্যাটার্জি, দেব, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়,  প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, রুদ্রনীল ঘোষ ও শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়।

নারীবিদ্বেষী অর্ধনগ্ন ছবি পোস্ট করে বিপদে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব
                                  

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে চ্যাম্পিয়নশিপে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা ক্লাব সাম্পাইয়ো কোরেয়া। কোপা দো নর্দেস্তে প্রতিযোগিতায় খেলছে সাম্পাইয়ো। তাদের বিরুদ্ধে গুরুতর এক অভিযোগ তুলেছে দেশটির ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এজেন্সি। ক্লাবটির এক বিজ্ঞাপনকে ‘যৌন বৈষম্যবাদী ও নারীবিদ্বেষী’ হিসেবে চিহ্নিত করে তা মুছে ফেলতে বলা হয়েছে।সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তারা একটি বিজ্ঞাপন দেয়। যেখানে দেখা যায়, একজন অর্ধনগ্ন নারীর ছবি, যিনি সমর্থকদের হোটেলে যৌন সম্পর্কের ক্ষেত্রে ক্লাবের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ছাড় দেওয়ার কথা বলছেন। 

দেখতে কুরুচিকর এ ছবিতে সেই মেয়েটি বলছেন, ‘গোল করো বলিভিয়ানো!’ সাম্পাইয়োর ডাক নাম ‘বলিভিয়ানোস’- হলুদ, সবুজ ও লালের মিশ্রণে ক্লাবটির জার্সির রং বলিভিয়া জাতীয় দলের মতো।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) এ বিজ্ঞাপন মুছে ফেলার নির্দেশ দেয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এজেন্সি, জানিয়েছে ইএসপিএন। সেখানে অন্য কোনো বিজ্ঞাপন দেওয়ার কথাও বলা হয়।

এজেন্সির পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘সাম্পাইয়ো কোরেয়া ও ওয়েসিস হোটেলের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের নারীবিদ্বেষী বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।’ 

ক্লাবটিকে এ জন্য আইনের আওতায় আনা হতে পারে। ১৪ ঘণ্টার বেশি সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে নেওয়া হয়নি। বরং আরেকটি পোস্টের ছবিতে বলা হয়, ‘একজন নারী যেখানে থাকতে চায়, সেটাই তার জায়গা।’

সমর্থকদের জন্য ১২ শতাংশ ছাড়ের কথা বলা হয় এই বিজ্ঞাপনে। মন্তব্যের ঘরে আরও একটি পোস্ট করা হয়েছে ক্লাবটির পক্ষ থেকে। ওয়েসিস হোটেল ক্লাবটির অফিশিয়াল স্পন্সর। সেখান স্মার্ট টিভিসহ একটি স্যুইট অর্ডার করতে বলা হয়। জনসমাগম এড়িয়ে খাদ্য ও পানীয়র পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রাখার কথাও বলা হয়েছে।

মমতার নেই গাড়ি, নেন না বেতন
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ১৯৮২ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজ থেকে আইনে স্নাতক হন তিনি। তার আগে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অন্য একটি বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রিও রয়েছে তার।

ভারতের সব থেকে কম সম্পদশালী মুখ্যমন্ত্রীদের একজন পশ্চিমবঙ্গের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার আরও কমল তার সম্পদের পরিমাণ। যা গোটা ভারতে নজির বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।প্রায় ১০ বছর ধরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু রাজ্য সরকারের কাছ থেকে তিনি এক টাকাও বেতন নেন না। তার না আছে গাড়ি, না আছে স্থাবর সম্পত্তি। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পরই প্রকাশ্যে এসেছে এসব তথ্য।

রাজ্যের হলদিয়ার নির্বাচন দফতরে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি।

নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় হলফনামার মাধ্যমে প্রার্থীকে নিজের স্থাবর, অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা জানাতে হয়। সেই নিয়ম মেনেই স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ও শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কে তথ্য দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

তৃণমূল কংগ্রেসের এই শীর্ষ নেত্রীর হলফনামা বলছে, ২০১৯-২০২০ অর্থবর্ষে তার আয় ছিল ১০ লাখ ৩৪ হাজার ৩৭০ টাকা। ২০১৮-১৯ আর্থিক বছরে বার্ষিক আয় ছিল ২০ লাখ ৭১ হাজার ১০ টাকা। তারও আগের তিনটি আর্থিক বছরের আয়ের বিবরণও রয়েছে ওই হলফনামায়। বিবরণ বলছে, মমতার সর্বোচ্চ আয় ২০১৮-১৯ অর্থবছরেই। মনোনয়ন পেশের সময় পর্যন্ত মমতার হাতে নগদ রয়েছে ৬৯ হাজার ২৫৫ টাকা।

প্রকাশ্যে এসেছে পশ্চিমবঙ্গের এই মুখ্যমন্ত্রীর অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণও। কয়েকটি সেভিংস অ্যাকাউন্ট এবং ন্যাশনাল সেভিং সার্টিফিকেট মিলিয়ে মমতার মোট অস্থাবর সম্পত্তি ১৬ লাখ ৭২ হাজার ৩৫২ টাকা ৭১ পয়সা। যা গত বিধানসভা নির্বাচনে পেশ করা সম্পদের প্রায় অর্ধেক। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে নিজের সম্পদের পরিমাণ ৩০ লাখ ৭৫ হাজার টাকা বলে জানিয়েছিলেন মমতা। অর্থাৎ তৃণমূলের এই শীর্ষ নেত্রীর সম্পদ কমেছে প্রায় ৪৫ দশমিক ১ শতাংশ।

এবার পেশ করা হলফনামা অনুসারে মমতার হাতে নগদ রয়েছে ৬৯ হাজার ২৫৫ টাকা। ব্যাংকে রয়েছে ১৩ লাখ ৫৩ হাজার টাকা। অন্যান্য বিনিয়োগ রয়েছে ১৮ হাজার ৪৯০ টাকা। অলঙ্কার রয়েছে ৪৩ হাজার ৮৩৭ টাকার। গত বারের তুলনায় এবার লক্ষ্যণীয় ভাবে কমেছে তার ব্যাংকে জমা টাকার পরিমাণ। গত বিধানসভা নির্বাচনে মমতার ব্যাংক ব্যালান্স ছিল ২৭ লাখ ৬১ হাজার টাকা। কমেছে অন্যান্য বিনিয়োগের পরিমাণও। এছাড়া ৯ গ্রামের কিছু বেশি পরিমাণ অলঙ্কারও রয়েছে তার।

হলফনামায় দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মমতার কোনো গাড়ি নেই। নেই কৃষিকাজের জমিও। এছাড়া বাণিজ্যিক ভাবে ব্যবহৃত হয় এমন জমিও নেই তার। এমনকি পৈতৃক সূত্রে কোনো সম্পত্তির মালিকও নন মমতা। ব্যাংকে তার নামে কোনো খেলাপি ঋণও নেই।

প্রায় ১০ বছর ধরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা দায়িত্বপালন করলেও রাজ্য সরকরের কাছ থেকে তিনি এক টাকাও বেতন নেন না। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তার বেতন হল ২ লাখ ৫ হাজার টাকা। তবে সেই বেতন তিনি তা গ্রহণ করেন না।

গত বছরের মার্চের ৩১ তারিখ একটি টুইট করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তিনি লিখেছিলেন, বিধায়ক ও মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকলেও আজ পর্যন্ত তিনি তার বেতন হাতে নেননি। নিজের সব টাকা সমাজকল্যাণে ব্যবহার করেছেন।

টুইটে তিনি আরও লিখেছিলেন, বেশ কয়েকবার সাংসদ হয়েছিলেন। সে কারণে আজও তিনি পেনশন পান। সংসদ থেকেও পেনশন তোলেননি। তিনি জানিয়েছিলেন, আমি খুব ছোট জায়গা থেকে এসেছি।

নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কে হলফনামায় মমতা জানিয়েছেন, ১৯৮২ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজ থেকে আইনে স্নাতক হন তিনি। তার আগে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অন্য একটি বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রিও রয়েছে তার।

ভারতের সব থেকে কম সম্পদশালী মুখ্যমন্ত্রীদের একজন পশ্চিমবঙ্গের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার আরও কমল তার সম্পদের পরিমাণ। যা গোটা ভারতে নজির বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

খালি পেটে গ্রিন টি পানের অপকারিতা
                                  

শরীর ও মনকে চাঙা রাখতে চায়ের জুড়ি নেই। তা সে যেকোনো স্বাদের চা-ই হোক না কেন। তবে পছন্দের ভিন্নতায় একেক জনের স্বাদ একেক রকম হয়ে থাকে। যেমন- দুধ চা, রঙ চা, মশলা চা ইত্যাদি। কিন্তু যারা স্বাস্থ্য সচেতন মানুষ তাদের কাছে গ্রিন টির প্রাধান্য সবচেয়ে বেশি। কারণ গ্রিন টি ওজন কমাতে সহায়তা করে।
গ্রিন টিতে রয়েছে অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট, ভিটামিন এ, বি, বি৫, ডি, ই, সি, ই, এইচ সেলেনিয়াম, ক্রোমিয়াম, জিংক, ম্যাঙ্গানিজ ও সামান্য ক্যাফেইন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, এটি রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এমনকি ক্যান্সার প্রতিরোধেও এটি সহায়ক। এছাড়া উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণে গ্রিন টি সাহায্য করে।

এক কাপ কফির থেকে এক কাপ গ্রিন টি পান করা বেশি স্বাস্থ্যকর। ২৩০ মিলিগ্রাম গ্রিন টিতে ২০ থেকে ৪৫ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন রয়েছে যা সাধারণ চা বা কফির তুলনায় কম।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, যেহেতু গ্রিন টি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর তাই দিনে ২-৩ কাপ গ্রিন টি খাওয়া যেতে পারে। তবে তার বেশি খাওয়া উচিত নয়। কারণ অতিরিক্ত গ্রিন টি খেলে যে টক্সিন নির্গত হয় তা সরাসরি লিভারে গিয়ে জমা হয়। যেখান থেকে পরবর্তীতে লিভার ড্যামেজের মতো সমস্যা হতে পারে।

অন্যদিকে, খালি পেটে গ্রিন টি পান করলে শরীরে নেতিবাচক প্রভাবও পড়তে পারে। গ্রিন টিতে ট্যানিন রয়েছে, যা পেটে অ্যাসিড বাড়িয়ে তুলতে পারে। ফলে পেট ব্যথা হয়ে থাকে। এছাড়াও খালি পেটে গ্রিন টি খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য এবং বমিভাব হতে পারে। চলুন জেনে নেয়া যাক খালি পেটে গ্রিন টি পানের অন্যান্য অপকারিতাগুলো-

খালি পেটে গ্রিন টি পান করলে তা সরাসরি রক্তকে প্রভাবিত করে। এতে রক্ত জমাট বাঁধায় কাজ করে যেসব প্রোটিন, সেগুলোর পরিমাণ কমতে থাকে। ফলে রক্ত পাতলা হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।

গ্রিন টি পরোক্ষভাবে ওজন কমাতে সাহায্য করে। তবে যদি ব্যায়াম না করে গ্রিন টি পান করা হয়, এটি তেমন ভালো কাজে দেয় না। ব্যায়াম এবং গ্রিন টি পান একসঙ্গে চালিয়ে গেলে ওজন কমবে দ্রুত।

খাওয়ার পর এবং ঘুমাতে যাওয়ার আগে গ্রিন টি শরীরে উল্টো ক্ষতি ডেকে আনে। আর এ কারণেই সকালে নাস্তার পর কিংবা বিকেলেই গ্রিন টি পান করা উচিত।

গ্রিন টি হজমপ্রক্রিয়াকে বাড়িয়ে শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করে। তবে পেপটিক আলসার বা অ্যাসিড রিফ্লাক্সে আক্রান্ত রোগীদের খালি পেটে গ্রিন টি পান করা উচিত নয়।

শরীরে আয়রনের পরিমাণও কমিয়ে দেয় গ্রিন টি। এজন্য রক্তাল্পতায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের উচিত গ্রিন টি পান না করা।

বিশ্বজুড়ে করোনা কেড়ে নিল আরও সাড়ে ৯ হাজারের বেশি প্রাণ
                                  

যুগ-যুগান্তর ডেস্ক
আরও সাড়ে নয় হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিল করোনাভাইরাস। গত ২৪ ঘণ্টায় (শুক্রবার) বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৯ হাজার ৬৫৫ জন। এই সময়ে নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৪ লাখ ৪৭ হাজার ৫১ জন।

এ দিন সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে আমেরিকায়। দেশটিতে শুক্রবার এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৭৯৪ জনের। এই সময়ে নতুন আক্রান্ত ৬৭ হাজার ২৮১ জন।

ব্রাজিলে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৭৬০ জনের। সংক্রামিত হয়েছে ৭৫ হাজার ৩৩৭ জন। ফ্রান্সে মৃত্যু হয়েছে ৩০৫ জনের। আক্রান্ত হয়েছে ২৩ হাজার ৫০৭ জন।
শুক্রবার স্পেনে মারা গেছে ৬৩৭ জন। এদিন দেশটিতে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৬ হাজার ৬৫৪ জন। এই সময়ে ইতালিতে ২৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে আরও ২৪ হাজার ৩৬ জন।
এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় পোলান্ড মৃত্যু হয়েছে ২৬৩ জনের। আক্রান্ত ১৫ হাজার ৮২৯ জন। রাশিয়ায় মারা গেছে ৪৬২ জন। সংক্রামিত হয়েছে ১১ হাজার ২৪ জন। ভারতে মৃত্যু হয়েছে ১০৯ জনের। আক্রান্ত হয়েছে ১৮ হাজার ২৯২ জন। তুরস্কে মারা গেছে ৬২ জন। সংক্রামিত হয়েছে ১১ হাজার ৩০২ জন। সূত্র: ওয়ার্ল্ডওমিটার

বিশ্বজুড়ে বছরে ১০০ কোটি খাবার অপচয় করছে মানুষ
                                  

জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে জানা গেছে প্রতি বছর মানুষ প্রায় ১০০ কোটি টন খাবার অপচয় করছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এ তথ্য জানিয়েছে।জাতিসংঘের প্রতিবেদন অনুসারে, বিশ্বজুড়ে একজন ব্যক্তির বছরে গড়ে ৭৪ কেজি খাবার অপচয় করে। প্রতি সপ্তাহে আট বেলার খাবার যুক্তরাজ্যে প্রতিটি বাড়িতে অপচয় করা হয়।

এতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, মোট খাবার অপচয়ের ১৭ শতাংশ হয় রেস্তোরাঁ ও দোকানে। কিছু খাবার নষ্ট হয় কারখানা ও সাপ্লাই চেইনে। এর অর্থ হলো মোট খাবারের এক-তৃতীয়াংশ কখনও খাওয়াই হয় না।

খাবারের অপচয়ের ফলে কয়েকশ’ কোটি ক্ষুধার্ত মানুষদের সহযোগিতার উদ্যোগকে ব্যাহত হয়। এতে পরিবেশের ক্ষতিও হয়। খাবারের অপচয় ও নষ্ট কার্বন নির্গমনে ভূমিকা রাখে।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়, যদি খাবারের অপচয় একটি দেশ হতো তাহলে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের পর তৃতীয় সর্বোচ্চ কার্বন নির্গমনকারী দেশ হতো।  সাধারণভাবে মনে করা হয়, খাবারের অপচয় সমস্যা ধনী দেশগুলোতে বেশি প্রভাব ফেলছে। কিন্তু জাতিসংঘের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, অবাক করার মতো বিষয় হলে সব দেশেই পরিস্থিতি প্রায় একই রকম। দরিদ্র দেশগুলোর তথ্য আতঙ্কজনক।

গবেষকরা বলছেন, কোনও মানুষই ফেলে দেওয়ার জন্য কিনে না। প্রতি দিন অল্প করে খাবারের অপচয় তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে হয় না। ফলে খাবারের অপচয় রোধে মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধি অত্যন্ত জরুরী। 



   Page 1 of 50
     আন্তর্জাতিক
নষ্ট ৪৪ লাখ ডোজ, অপচয় বিতর্কে নাম জড়িয়েছে মহারাষ্ট্রও!
.............................................................................................
মালদ্বীপের দূতাবাসের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন
.............................................................................................
মালদ্বীপের প্রসিকিউটরের সাথে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ।
.............................................................................................
বিশেষ ফ্লাইট শুরুর ঘোষণা বেবিচকের
.............................................................................................
পাকিস্তানে ৭ জনের মৃত্যু, নিষিদ্ধ হলো ইসলামপন্থী দল টিএলপি
.............................................................................................
মালদ্বীপে অসুস্থ প্রবাসীকে বিমান টিকেট হস্তান্তর
.............................................................................................
ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ৮
.............................................................................................
ভারতে লরি খাদে ১১ যাত্রী নিহত
.............................................................................................
মারা গেলেন রানী এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে ৬ বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার
.............................................................................................
পশ্চিমবঙ্গে মনোনয়ন পেলেন জয়া
.............................................................................................
নারীবিদ্বেষী অর্ধনগ্ন ছবি পোস্ট করে বিপদে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব
.............................................................................................
মমতার নেই গাড়ি, নেন না বেতন
.............................................................................................
খালি পেটে গ্রিন টি পানের অপকারিতা
.............................................................................................
বিশ্বজুড়ে করোনা কেড়ে নিল আরও সাড়ে ৯ হাজারের বেশি প্রাণ
.............................................................................................
বিশ্বজুড়ে বছরে ১০০ কোটি খাবার অপচয় করছে মানুষ
.............................................................................................
নাইজেরিয়ায় ৩১৭ স্কুলছাত্রী অপহরণ
.............................................................................................
মমতা অবৈধ বাংলাদেশিদের ফুফু, রোহিঙ্গাদের খালা’
.............................................................................................
রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রকে নেতৃত্ব দেওয়ার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
.............................................................................................
ফেক আইডি খুললে কী করবেন?
.............................................................................................
মিয়ানমারে বিক্ষোভের প্রস্তুতি নিচ্ছেন ছাত্র ও চিকিৎসকরা
.............................................................................................
হৃদরোগে মৃত্যুর পরও ফাঁসিতে ঝোলানো হলো নিথর দেহ!
.............................................................................................
হৃদরোগে মৃত্যুর পরও ফাঁসিতে ঝোলানো হলো নিথর দেহ!
.............................................................................................
লকডাউনে দূষণে ভারতে ৬০ হাজার মানুষের মৃত্যু
.............................................................................................
পাকিস্তানি তরুণীর ভিডিও ভারতে ভাইরাল
.............................................................................................
হঠাৎ হাসপাতালে প্রিন্স ফিলিপ
.............................................................................................
বাইডেন-মোদি ফোনালাপ, কী বললেন মোদি?
.............................................................................................
সু চির বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা
.............................................................................................
ইসরাইলি সেনাবাহিনীতে বেড়েছে নারী সহকর্মীদের ওপর যৌন হয়রানি
.............................................................................................
১৯ লাখের কাছাকাছি দাম উঠল ওবামার সেই জুতা!
.............................................................................................
বাংলাদেশের একটি পাখিও পশ্চিমবঙ্গে ঢুকতে পারবে না: অমিত শাহ
.............................................................................................
কৃষকদের নতুন অবরোধে দিল্লিতে উত্তেজনা, নজিরবিহীন নিরাপত্তা
.............................................................................................
উত্তর ইতালিতে নতুন ধরনের করোনা শনাক্ত
.............................................................................................
সু চি’কে রিমান্ডে নিয়েছে সামরিক সরকার
.............................................................................................
কোটি কোটি ডলার খরচ করে মিথ্যা তথ্য ছড়ায় আল জাজিরা!
.............................................................................................
মিয়ানমার ইস্যুতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদার বৈঠক
.............................................................................................
সুচিতে সংকটে মিয়ানমার
.............................................................................................
মেইন-অ্যারিজোনা জিতে বাইডেন ২৩৮, ট্রাম্প ২১৩
.............................................................................................
ইউরোপের সংক্রমণ বৃদ্ধি নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন ডব্লিউএইচও
.............................................................................................
নারী ভোটারদের দলে ভেড়ানোর চেষ্টায় ট্রাম্প
.............................................................................................
ভারত অবৈধভাবে লাদাখকে নিজেদের অঞ্চল ঘোষণা করেছে: চীন
.............................................................................................
অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন আসছে ডিসেম্বরে
.............................................................................................
করোনার টিকা নিয়ে সুখবর দিল চীন
.............................................................................................
জাতিসংঘের অধিবেশনে ইরান-সৌদির বাকযুদ্ধ
.............................................................................................
বিশ্বজুড়ে একদিনে ৬ হাজার মৃত্যু, শনাক্ত ৩ লাখের বেশি
.............................................................................................
চীনকে হুমকি ভারতের!
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভে গুলি
.............................................................................................
‘কানাডায় দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনা সংক্রমণ চলছে’
.............................................................................................
৩ দেশের নাগরিকদের ওপর সৌদির নিষেধাজ্ঞা
.............................................................................................
কিউবার ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এম.এ মান্নান
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ হাজী মোবারক হোসেন।। সহ-সম্পাদক : কাউসার আহম্মেদ।
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ খন্দকার আজমল হোসেন বাবু। র্বাতা সম্পাদক আবু ইউসুফ আলী মন্ডল, ফোন ০১৬১৮৮৬৮৬৮২

ঠিকানাঃ বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়- নারায়ণগঞ্জ, সম্পাদকীয় কার্যালয়- জাকের ভিলা, হাজী মিয়াজ উদ্দিন স্কয়ার মামুদপুর, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ। শাখা অফিস : নিজস্ব ভবন, সুলপান্দী, পোঃ বালিয়াপাড়া, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ-১৪৬০, মোবাইল : 01731190131, 01930226862, E-mail : mannannews0@gmail.com, mannan2015news@gmail.com, web: notunbazar71.com, facebook- notunbazar / সম্পাদক dhaka club
    2015 @ All Right Reserved By notunbazar71.com

Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop